Bartaman Patrika
সম্পাদকীয়
 

বহু প্রতীক্ষার স্বস্তি 

জট কাটল। আন্দোলন প্রত্যাহার করলেন জুনিয়র ডাক্তাররা। আশা করা যায়, এবার চিকিৎসা পরিষেবা স্বাভাবিক হবে। দুশ্চিন্তা অনেকটাই কাটল রোগী ও তাঁদের আত্মীয়-পরিজনদের। সপ্তাহব্যাপী আন্দোলন চলার পর মুখ্যমন্ত্রী ও জুনিয়র ডাক্তারদের আলোচনা ফলপ্রসূ হওয়ায় বহু প্রতীক্ষিত স্বস্তি মিলল। নিংসন্দেহে চিকিৎসকনিগ্রহ অপরাধ। কিন্তু, এমন পরিস্থিতি তৈরি হওয়ার পিছনে চিকিৎসকদেরও একটা দায় থেকেই যায়—কোনও ভুক্তভোগী রোগী বা তাঁর একান্তপরিজনদের কারও কথা এটা নয়। একথা বলছেন একজন চিকিৎসকই। কেমন চিকিৎসক? ইনি কুলতলির কাঁটামারি প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রের চিকিৎসক সম্বিৎকুমার মুখোপাধ্যায়, যিনি এক তরুণী রোগীর মৃত্যুকে কেন্দ্র করে জয়নগর গ্রামীণ হাসপাতালে কর্মরত থাকা অবস্থায় গত বছরের শেষের দিকে রোগীর বাড়ির লোকজনের হাতে ব্যাপকভাবে প্রহৃত হয়েছিলেন। সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, তিনি আরও যে-ক’টি কথা বলেছেন, তাও বর্তমান প্রেক্ষাপটে উল্লেখযোগ্য। তিনি বলছেন, ‘বেশিরভাগ চিকিৎসকই এখন অনেক বেশি পেশাদার হয়ে গিয়েছেন। সেবামূলক মানসিকতা অনেক সময়ই দেখা যায় না। রোগীর প্রতি মনযোগ আগের থেকে অনেক কম। যার ফলে হয়তো ভুল হচ্ছে।’
নীলরতন সরকার হাসপাতালের ইন্টার্ন এবং জুনিয়র ডাক্তারদের প্রহৃত হওয়াকে কেন্দ্র করে গত কয়েকদিন ধরে টানা সরকারি চিকিৎসা ক্ষেত্রে যে-অচলাবস্থা চলছিল, সেখানে আন্দোলনের ধরন দেখে মনে হয়েছে, মানবিকতা, সহানুভূতিশীলতা ইত্যাদি কথা কেবল অভিধানেই সীমাবদ্ধ। রোজ দূরদূরান্ত থেকে শ’য়ে শ’য়ে অসহায় মানুষ হাসপাতালে এসেছেন কম পয়সায় বা বিনামূল্যে একটু চিকিৎসার আশায়। কিন্তু কেউ চারদিন, কেউ পাঁচদিন বা কেউ আরও দীর্ঘ সময় অপেক্ষার পরও সেই সামান্যতম চিকিৎসাটুকু পাননি। তার ফলে কত মর্মান্তিক মৃত্যু যে চোখের সামনে আমাদের দেখতে হয়েছে, তার হিসেব কষা এই মুহূর্তে কঠিন। দু’মাসের দুধের শিশু আর ক’দিন চিকিৎসা পেলে হয়তো সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে যেতে পারত। কিন্তু এসএসকেএমের মতো রাজ্যের এক নম্বর সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ডাক্তারদের চরম অমানবিকতায় সেই দৃশ্য দেখার সুযোগ আমাদের হয়নি।
খোদ যে ঘটনাটিকে ঘিরে রাজ্য, এমনকী দেশজুড়ে চিকিৎসা ব্যবস্থা কার্যত স্তব্ধ হয়ে পড়েছিল, সেই এনআরএস কাণ্ডেও পুলিসি তদন্তে দেখা গিয়েছে, রোগীর বাড়ির লোকজনের আক্রমণের মুখে পড়ে জুনিয়র ডাক্তাররাও সেদিন মারাত্মক মারমুখী হয়ে উঠেছিলেন। তাঁরাও পরিজনদের সঙ্গে কম দুর্ব্যবহার করেননি বলেও অভিযোগ ছিল। অর্থাৎ, তালি যে এক হাতে বাজে না, বা সেদিন বাজেনি, তা ঘটনার ভিতরে গেলেই পরিষ্কার হয়ে যায়। তবুও মূল ঘটনার চেয়েও বড় করে তোলা হয়েছে জুনিয়র ডাক্তারদের আক্রান্ত হওয়ার ঘটনাকে। নিঃসন্দেহে তা নিন্দনীয়। চিকিৎসক রোগীর চিকিৎসা করতে গিয়ে মার খাবেন কেন? তাঁদের জন্য নিরাপত্তার ব্যবস্থা করতেই হবে। সেই আশ্বাসই দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।
অন্যদিকে, রোগীদের প্রতি ডাক্তারবাবু সহৃদয় মনোভাব দেখাবেন সেটাই প্রত্যাশিত। এই আন্দোলন চলাকালীন সে পরিচয়ও দিয়েছেন অনেকে। স্যালুট করতে হয় সেইসব চিকিৎসককে, যাঁরা এই চরম অমানবিকতার যুগেও স্রোতে গা ভাসিয়ে না দিয়ে নিজস্বতা বজায় রাখতে সক্ষম হয়েছেন। তেমনই একজন হলেন সম্বিৎবাবু। শুধু সম্বিৎবাবু কেন? চিত্তরঞ্জন ন্যাশনাল ক্যান্সার ইনস্টিটিউটের চিকিৎসক, সেখানকার মেডিক্যাল অঙ্কোলজির ডাঃ পার্থ নাথের কথাও উল্লেখ করতে হয়। সহকর্মীদের কর্মবিরতির মাঝে, তাঁদের অপ্রিয় হতে হবে জেনেও তিনি মরণাপন্ন রোগীদের কেমো দেওয়া চালিয়ে গিয়েছেন রবিবার। চিকিৎসক নিগ্রহের প্রতিবাদ জানিয়েও নিজের ছোট্ট চেম্বারে রোগী দেখা বন্ধ করেননি ডাঃ শুভেন্দু বাগ। শুধু তাই নয়, সমস্ত রোগীর কাছ থেকে তিনি ফি-ও নেননি।
জেলায় জেলায়ও সোমবার কিন্তু সামগ্রিক চিত্রে কিছুটা হলেও বদল এসেছিল। যেমন উত্তরবঙ্গের দিনহাটা মহকুমা হাসপাতালে চিকিৎসকরা প্রতীকী প্রতিবাদ জানিয়েছেন রোগীদের দু’টাকার টিকিট না করিয়েই চিকিৎসা পরিষেবা দিয়ে। আরামবাগ হাসপাতালে একসঙ্গে বসে আউটডোরে রোগী দেখছেন ডাক্তাররা। ঝাড়গ্রাম হাসপাতালে আউটডোর বন্ধ থাকলেও রোগীদের চিকিৎসা চলেছে বাইরে চেয়ার টেবিল পেতে। আসানসোল জেলা হাসপাতালে চিকিৎসা ব্যবস্থা স্বাভাবিক বলেই জানা গিয়েছে। কর্মবিরতিতে অংশ নিয়েও বাঁকুড়া মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে জুনিয়র ডাক্তাররা অবস্থান মঞ্চেই আউটডোরের রোগী দেখেছেন।
সংবাদপত্রে প্রকাশিত খণ্ড খণ্ড চিত্র। কিন্তু, এসবই চিকিৎসকের মানবিকতার প্রতীক। সহানুভূতিশীলতার প্রতীক। নিশ্চয়ই চিকিৎসকদের দাবি থাকবে। আন্দোলনও হতে পারে। কিন্তু, সাধারণ অসহায় মানুষের চিকিৎসা পরিষেবা বজায় রেখে কি তা করা যেত না? তা যে করা যায়, তা এই চিকিৎসকরাই কিন্তু করে দেখিয়ে দিলেন।
সন্ত্রাসমুক্তিই লক্ষ্য মোদির

 পাকিস্তান এবং সন্ত্রাস। আন্তর্জাতিক মঞ্চে এটাই যে নরেন্দ্র মোদির অন্যতম লক্ষ্য হতে চলেছে, তা স্পষ্ট বুঝিয়ে দিলেন প্রধানমন্ত্রী। কিরঘিজস্তানের রাজধানী বিশকেকে অনুষ্ঠিত সাংহাই কোঅপারেশন অর্গানাইজেশন সম্মেলনে মোদি বললেন, যে দেশ সন্ত্রাসে অর্থ জোগাচ্ছে, সমর্থন দিচ্ছে... জবাবদিহি করতে হবে সেই দেশকে।
বিশদ

16th  June, 2019
পে কমিশন ও রাজ্য
কর্মীদের আশা-আকাঙ্ক্ষা

লোকসভা ভোটের পর থেকে বিজেপির নেতৃত্বে গোটা রাজ্যে যে ডামাডোল শুরু হয়েছে, তাতে চাকরিজীবী মধ্যবিত্তের পকেটে গোদের উপর বিষফোঁড়ার মতো হুল ফোটাচ্ছে কাঁচা আনাজ ও মাছ বাজারের অগ্নিমূল্য।
বিশদ

15th  June, 2019
ব্যাঙ্ক প্রতারণা অর্থনীতির বিপদ

আধুনিক অর্থনীতির বুনিয়াদ বহুলাংশে ব্যাঙ্কনির্ভর। মানুষের কষ্টার্জিত অর্থের সঞ্চয় থেকে ঋণগ্রহণ—কোনোটাই আজ ব্যাঙ্কের বাইরে ভাবা যায় না। ব্যবসায়িক লেনদেন এবং দেশে বিদেশে টাকা প্রেরণ কিংবা গ্রহণ প্রভৃতির জন্যও ব্যাঙ্ক একটি অপরিহার্য প্রতিষ্ঠান।
বিশদ

14th  June, 2019
চিকিৎসা থামিয়ে প্রতিবাদ নয়

 মরণাপন্ন রোগীদের হাসপাতালের ভিতরে আনা ঠেকাতে দু’টি গুরুত্বপূর্ণ গেট আটকে পাহারা দিচ্ছেন জুনিয়র ডাক্তাররা! ভিতরে বন্ধ আউটডোর, ইমার্জেন্সিসহ চিকিৎসার সব ধরনের পরিষেবা! এমনই এক ভয়ঙ্কর ছবি দেখল কলকাতা। ঘটনাটি মঙ্গলবারের। ঘটনাস্থল নীলরতন সরকার মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল—উন্নত চিকিৎসা পরিষেবার জন্য সারা রাজ্যের অন্যতম সেরা ভরসা।
বিশদ

13th  June, 2019
মানুষের সঙ্গে, মানুষের পাশে 

হাতে আর খুব বেশি সময় নেই। ২০২১-এর বিধানসভা নির্বাচনে জিতে ফিরতে হলে যেখানে যা ঘাটতি আছে তা পূরণ করার কাজ এখনই শুরু করা দরকার। এবারের লোকসভা নির্বাচনে শতকরা হিসেবে ভোটের হার তৃণমূলের না কমলেও এই রাজ্যে বহু মানুষের মধ্যে বিজেপিকে সমর্থনের প্রবণতা যে দেখা দিয়েছে তা অস্বীকার করার নয়।  বিশদ

12th  June, 2019
বন্ধ হোক খুনোখুনি, রক্তপাত

রাজনীতি মানে তো নীতির রাজা। অর্থাৎ যে নীতি শুধুই মানুষের কল্যাণ করবে। যে নীতির মধ্যে থাকবে না আগ্রাসী ও দখলদারী মনোভাব। সেই নীতিতে হিংসার কোনও স্থান নেই। কিন্তু সময় বদলে গিয়েছে। এখন রাজনীতি মানে রাজার নীতি। রাজাই হলেন সর্বোচ্চ ক্ষমতাবান ব্যক্তি। তিনি যা মনে করবেন, সেটাই হবে।
বিশদ

11th  June, 2019
ব্যাঙ্ক জালিয়াতিতেও রেকর্ড!

 টাকা অরক্ষিত রাখলে লুট হতে পারে—একথা কে না জানেন। তাই ক্রমাগত কমতে থাকা সুদের হার সত্ত্বেও আমাদের গচ্ছিত টাকা রাষ্ট্রের নির্ধারিত সিন্দুকেই রাখি, শুধুমাত্র নিরাপত্তার সুবন্দোবস্তের কথা মাথায় রেখে। সেই রাজকোষই যদি চুরি হয়ে যায়, তার দায় নেবে কে?
বিশদ

10th  June, 2019
মোদির বিদেশ কূটনীতি

একটা দেশ প্রভাকরণ জমানার পর চলতি বছর ইস্টারে সন্ত্রাসের পুনর্জন্মের সাক্ষী হয়েছে। জঙ্গি হামলায় প্রায় আড়াইশো নিরপরাধ মানুষের মৃত্যুর পর তার রেশ কাটিয়ে এখনও বেরতে পারেনি তারা। শ্রীলঙ্কা। আর একটা দেশ কয়েক বছরের রাজনৈতিক টানাপোড়েন কাটিয়ে ফের অভ্যন্তরীণ এবং আন্তর্জাতিক স্তরে ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছে। মালদ্বীপ।
বিশদ

09th  June, 2019
সম্মান ফিরে পেলেও দেওয়ালের লিখন পড়তে পারছেন রাজনাথ

 ব্যাপক শোরগোল ও বিতর্কের পর আপাতত নিজের গুরুত্ব কিছুটা হলেও ফিরে পেলেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং। বৃহস্পতিবার বেলা গড়াতেই রটে যায় অমিত শাহের গুরুত্ব বাড়াতে এবং নরেন্দ্র মোদির যোগ্য উত্তরসূরি হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে মন্ত্রিসভার সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত আটটি কমিটিতেই তাঁকে স্থান দেওয়া হয়েছে।
বিশদ

08th  June, 2019
ফকির পাকিস্তানের ছদ্মবেশ

ভারতের বিরুদ্ধে একনাগাড়ে মহড়া যুদ্ধ, জঙ্গি তালিম, তাদের আশ্রয়দান ও আন্তর্জাতিক জঙ্গিগোষ্ঠীগুলিকে আর্থিক ও সামরিক সাহায্যদানের খয়রাতি চালাতে গিয়ে খেয়ালই নেই যে জাতীয় অর্থনীতির জাহাজ পাহাড়ে ধাক্কা খেয়ে ফুটো হয়ে গিয়েছে।
বিশদ

07th  June, 2019
প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ জরুরি

শিল্প-বাণিজ্য ক্ষেত্রে ক্রেডিট রেটিং একটি গুরুত্বপূর্ণ কথা। ঋণগ্রহণ এবং ঋণদান বা অর্থলগ্নি বাণিজ্যের একটি বড় দিক। সব ধরনের বাণিজ্যিক সংস্থাকেই ঋণ ব্যবস্থার মধ্য দিয়ে এগতে হয়। বিশদ

06th  June, 2019
রোজ হোক পরিবেশ দিবস 

আজ বিশ্ব পরিবেশ দিবস। আন্তর্জাতিক ক্যালেন্ডার মেনে বিশ্বের সমস্ত দেশ এই দিনটি পালন করছে। এদিন ঈদের ছুটি থাকায় মঙ্গলবারই রাজ্যে সরকারিভাবে নানা অনুষ্ঠানের মাধ্যমে দিনটি পালন করা হল। বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি, পরিবেশ রক্ষার্থে স্লোগান লেখার প্রতিযোগিতা, সচেতনতামূলক পথনাটিকা প্রভৃতি অনেক কিছুই হল।
বিশদ

05th  June, 2019
হিংসা-হানাহানি বন্ধ হোক 

বউমা তৃণমূলের সমর্থক। ভাশুর বিজেপি নেতা। পারিবারিক শান্তি বিঘ্নিত করে দীর্ঘদিন ধরে রাজনৈতিক পরিচয়ই হয়ে উঠেছিল বিবাদের কেন্দ্রবিন্দু। কিন্তু তার যে পরিণতি এমন মর্মান্তিক হবে, তা কে জানত! শনিবার রাত ৮টা নাগাদ সন্তানকে দুধ খাওয়াচ্ছিলেন বউমা শিপ্রাদেবী।  
বিশদ

04th  June, 2019
সামনে অসংখ্য চ্যালেঞ্জ, এখন কিন্তু কাজের সময়

 দীর্ঘ ভোট প্রক্রিয়ার পর কেন্দ্রে নতুন সরকার গঠিত হয়েছে। মন্ত্রিসভার শপথও সমাপন। এখন উচ্ছ্বাসকে কমিয়ে এনে কাজ করার সময়। প্রতিটি দপ্তরের মন্ত্রী তাঁদের দায়িত্বভার গ্রহণ করেছেন। কিন্তু মনে রাখা দরকার, দ্বিতীয় নরেন্দ্র মোদি সরকারের সামনে এখন অনেক চ্যালেঞ্জ। বিশদ

03rd  June, 2019
মন্ত্রিসভা ও সংগঠন 

যেমন শোনা গিয়েছিল, ঠিক তেমনটা হল না। নরেন্দ্র মোদি মোটেও ছোটখাটো মন্ত্রিসভায় নিজের দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুটাকে সীমাবদ্ধ রাখলেন না। পূর্ণ ও রাষ্ট্রমন্ত্রী মিলিয়ে সংখ্যাটা ৫৮। বহরে বড়। চমকেও। যাবতীয় জল্পনাকে মিথ্যা প্রমাণ করে নির্মলা সীতারামনকে অর্থমন্ত্রক দিয়েছেন মোদি।  
বিশদ

02nd  June, 2019
বাংলার দিল্লি-ভাগ্য

স্বাধীনতা আন্দোলনে দেশকে নেতৃত্ব দিয়েছে বাংলা। বাংলার রেনেসাঁ শিক্ষা সাহিত্য শিল্প সংস্কৃতি ধর্ম ও সমাজসংস্কার থেকে জীবনের নানা ক্ষেত্রে পথ দেখিয়েছে সারা ভারতকে। এবং, বাংলার এই অবদান এতটাই স্পষ্ট এখনও যে কারও পক্ষেই তা অস্বীকার করা সম্ভব হয়নি। ভারতের এবং বহির্ভারতের একটি নামী প্রতিষ্ঠান খুঁজে পাওয়া দুষ্কর যেখানে এক বা একাধিক বঙ্গসন্তান বিশেষ সাক্ষ্য রাখছেন না।
বিশদ

01st  June, 2019
একনজরে
  ফিলাডেলফিয়া ও লোয়া, ১৭ জুন (এপি): মার্কিন মুলুকে ফের বন্দুকবাজের হামলা। পার্টি চলাকালীন ফিলাডেলফিয়ায় গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যু হল এক পড়ুয়ার। জখম হয়েছে আরও ৮ জন। রবিবার রাত সাড়ে ১০টার কিছুটা আগে সাউথ সেভেনটি স্ট্রিট এবং রিড বার্ড স্ট্রিটের কাছে ...

সংবাদদাতা, কালনা: কালনা ফেরিঘাটের এবার নিলাম হতে অনলাইনে। ইতিমধ্যে কালনা পুরসভার তরফে অনলাইনে নিলামের বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে। ১১ জুলাই নিলামের দিন ধার্য করা হয়েছে। পুরসভার পক্ষ থেকে নিলাম দর রাখা হয়েছে বাৎসরিক ৫০ লক্ষ টাকা।  ...

 সৌম্যজিৎ সাহা  কলকাতা: রাজ্যে ক্রমশ কমছে ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের আসন। গতবার যেখানে ৩১ হাজারের বেশি আসন ছিল, এবার তা আরও কমে হয়েছে ২৯ হাজার ৬৫৯টি আসন। প্রাথমিক হিসেবে এই তথ্য মিলেছে। যদিও এখনও দু’টি কলেজ এবং কয়েকটি বিষয়ের আসন যুক্ত হওয়ার ...

 দীপ্তিমান মুখোপাধ্যায়, হাওড়া: জেলার সেচবাঁধ ও শর্ট কাট চ্যানেলগুলির অবস্থা খতিয়ে দেখে পঞ্চায়েত সমিতিগুলিকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দিল জেলা প্রশাসন। আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই রাজ্যে বর্ষা ঢুকবে বলে জেলা প্রশাসনের কর্তারা মনে করছেন। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

উচ্চতর বিদ্যায় সাফল্য আসবে। প্রেম-ভালোবাসায় আগ্রহ বাড়বে। পুরনো বন্ধুর সঙ্গে সাক্ষাতে আনন্দলাভ হবে। সম্ভাব্য ক্ষেত্রে ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৯৩৬- রুশ সাহিত্যিক ম্যাক্সিম গোর্কির মৃত্যু
১৯৮৭- পরিচালক হীরেন বসুর মৃত্যু
২০০৫- ক্রিকেটার মুস্তাক আলির মৃত্যু
২০০৯- প্রখ্যাত সরোদ শিল্পী আলি আকবর খানের মৃত্যু  





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৮.৯৯ টাকা ৭০.৬৮ টাকা
পাউন্ড ৮৬.৩৪ টাকা ৮৯.৫৫ টাকা
ইউরো ৭৬.৭৯ টাকা ৭৯.৭৬ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩৩,৩২৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩১,৬১৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩২,০৯০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৭,১০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৭,২০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৩ আষা‌ঢ় ১৪২৬, ১৮ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার, প্রতিপদ ২৩/৫৮ দিবা ২/৩১। মূলা ১৭/১৬ দিবা ১১/৫০। সূ উ ৪/৫৬/০, অ ৬/১৮/৫৪, অমৃতযোগ দিবা ৭/৩৬ মধ্যে পুনঃ ৯/২৩ গতে ১২/৩ মধ্যে পুনঃ ৩/৩৮ গতে ৪/৩১ মধ্যে। রাত্রি ৭/১ মধ্যে পুনঃ ১১/৫৮ গতে ২/৬ মধ্যে, বারবেলা ৬/৩৭ গতে ৮/১৭ মধ্যে পুনঃ ১/১৮ গতে ২/৫৮ মধ্যে, কালরাত্রি ৭/৩৯ গতে ৮/৫৮ মধ্যে। 
২ আষাঢ় ১৪২৬, ১৮ জুন ২০১৯, মঙ্গলবার, প্রতিপদ ২২/২২/৩৮ দিবা ১/৫২/৩৩। মূলানক্ষত্র ১৭/২৭/২৯ দিবা ১১/৫৪/৩০, সূ উ ৪/৫৫/৩০, অ ৬/২১/২৮, অমৃতযোগ দিবা ৭/৪০ মধ্যে ও ৯/২৭ গতে ১২/৮ মধ্যে ও ৩/৪২ গতে ৪/৩৫ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/৫ মধ্যে ও ১২/২ গতে ২/৯ মধ্যে, বারবেলা ৬/৩৬/১৫ গতে ৮/১৬/৫৯ মধ্যে, কালবেলা ১/১৯/১৩ গতে ২/৫৯/৫৮ মধ্যে, কালরাত্রি ৭/৪০/৪৩ গতে ২/৫৯/৫৯ মধ্যে। 
মোসলেম: ১৪ শওয়াল 
এই মুহূর্তে
বিশ্বকাপ: আফগানিস্তানকে ১৫০ রানে হারাল ইংল্যান্ড

10:48:34 PM

স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে নিরাপত্তা, চালু কলকাতা পুলিসের হেল্প লাইন 
গতকাল মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ পাওয়ার পর স্বাস্থ্য ক্ষেত্রে নিরাপত্তা জনিত সমস্যার ...বিশদ

09:48:24 PM

বিশ্বকাপ: আফগানিস্তান ৮৬/২ (২০ ওভার) 

08:17:00 PM

দার্জিলিং পুরসভায় প্রশাসক নিয়োগ করল রাজ্য সরকার 

08:08:39 PM

জাপানে বড়সড় ভূমিকম্প, মাত্রা ৬.৫, জারি সুনামি সতর্কতা 

07:34:58 PM

বিশ্বকাপ: আফগানিস্তান ৪৮/১ (১০ ওভার) 

07:05:00 PM