Bartaman Patrika
বিনোদন
 

সিনেমার আলোচনা: অ্যাক্সিডেন্টাল প্রাইম মিনিস্টার
না তথ্যচিত্র, না ফিকশন, এই ছবির পরিচালকই অ্যাক্সিডেন্টাল! 

বাস্তব কাহিনী নাটকীয় মোড়কে পরিবেশন করতেন এডউইন পোর্টার। আমেরিকার এই ফিল্ম মেকারই প্রথম সিনেমার বিভিন্ন অংশের গুরুত্ব বিবেচনা করে ক্লোজ শট, মিড শট আবার কখনও লং শটের ব্যবহার শুরু করেন। পোর্টার এভাবে সেলুলয়েডে দৃশ্যগত বিবরণকে নিপুণভাবে উপস্থাপিত করতেন বটে। কিন্তু তাঁর ছবিগুলিতে কল্পনার বিস্তার অথবা চিন্তার উপাদান ছিল না। ১৯১৪ সালে ‘বার্থ অফ আ নেশন’ ছবিতে সিনেমার টেকনিক্যালিটির সঙ্গে সূক্ষ্ম বুদ্ধিদীপ্ত আবেদন আর কল্পনাশক্তি মিশিয়ে প্রথম পরিপূর্ণ ফিল্ম উপহার দিলেন ডেভিড গ্রিফিথ। প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে মাত্র ১২ কিলোমিটার দূরে দিল্লির ইস্ট অফ কৈলাসে এক প্রেক্ষাগৃহে শুক্রবার সাতসকালে বহু প্রতীক্ষিত ‘অ্যাক্সিডেন্টাল প্রাইম মিনিস্টার’ দেখতে দেখতে এই কথাগুলিই কেন মনে এল? কারণ অনতি অতীতের জীবন্ত রাজনীতির গতিপ্রকৃতি নিয়ে নির্মিত এই ছবি অনায়াসে হতে পারত টানটান পলিটিক্যাল থ্রিলার। ২০০৪ থেকে ২০১৪ সালের মধ্যে ক্ষমতার অলিন্দে সত্যিই একের পর এক নাটকীয় পটপরিবর্তন হয়েছিল। কিন্তু সেই পথে যেতে হলে সর্বাগ্রে স্ক্রিপ্টকে নির্মোহ হতে হবে। পক্ষপাতহীন এক কল্পনাশক্তি আর সিনেম্যাটিক চিন্তার আবেদন মিশ্রিত করতে হবে। অযথা রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হলে সেই লক্ষ্য ব্যর্থ হয়। আর ঠিক সেটাই হয়েছে ছবিতে। পরিচালক বিজয় রত্নাকর গুট্টে আদ্যন্ত মোটা দাগের প্রোপাগান্ডা বিজ্ঞাপন নির্মাণ করেছেন। ছবির প্রধান প্রতিপাদ্য হল ডঃ মনমোহন সিং কতটা দুর্বল, কতটা পুতুল এবং কতটা প্রশাসনিক ক্ষমতাহীন এক অসহায় মানুষ সেটাই প্রতিপন্ন করা। আর সোনিয়া ও রাহুল গান্ধীসহ সব কংগ্রেস নেতারা কীভাবে ব্যক্তিগত স্বার্থসিদ্ধির জন্য মনমোহনকে হেনস্তা করেছেন তারই বিবরণ। প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের মিডিয়া অ্যাডভাইসর সঞ্জয় বারুর লেখা বইয়ের কাহিনী অবলম্বনে তৈরি এই ছবিতে খোদ সঞ্জয়ের (অক্ষয় খান্না) চরিত্রটিই সূত্রধর। ননফিকশন সিনেমার সবথেকে বড় চ্যালেঞ্জ তথ্যগত সততা রক্ষা এবং নিখুঁত হোমওয়ার্ক। ভারতের সর্বোচ্চ পাওয়ার করিডরে কীভাবে দিনযাপন হয় সেটা আমজনতার পক্ষে জানা সম্ভব নয়। তাই এক্ষেত্রে আরও যত্নশীল হতে হতো। কিন্তু উল্টে ছবিতে হাস্যকর মুহূর্ত দৃশ্যে দৃশ্যে। প্রধানমন্ত্রীর শপথগ্রহণের পর সাধারণত রাষ্ট্রপতি ভবনে চায়ের আয়োজন থাকে। ছবিতে দেখা যাচ্ছে স্ন্যাক্স, চা আর অভিনন্দন জ্ঞাপনের মধ্যে সাংবাদিক সঞ্জয় বারু একের পর এক কংগ্রেস নেতাদের প্রশ্ন করছেন, আপনি কোন মন্ত্রক পাচ্ছেন? চিদম্বরম নিজেই বলে দিলেন আমি অর্থমন্ত্রক পাচ্ছি। অথচ তখনও মন্ত্রক বণ্টনই হয়নি। পাবলিকের সামনে চায়ের আসরে চিদম্বরম থেকে পৃথ্বীরাজ চৌহান নিজেদের সম্ভাব্য মন্ত্রকের কথা আগাম জানিয়ে দেবেন এটা বিশ্বাস্য! এখানেই শেষ নয়। ছবিতে প্রধানমন্ত্রী নিজের হাতে অর্থমন্ত্রক রাখবেন স্থির করেছেন, এটা জেনে ক্ষুব্ধ চিদম্বরম সোজা আহমেদ প্যাটেলকে নালিশ করলেন। আহমেদ গিয়ে সোনিয়াকে কানে কানে বললেন চিদম্বরমের ক্ষোভ। তৎক্ষণাৎ সদ্য শপথ নেওয়া প্রধানমন্ত্রীকে আলাদা ডেকে সোনিয়া ধমকে দিলেন। ভারত সরকারের মন্ত্রিসভা গঠনের নাটক সবটাই একটি হলঘরে দাঁড়িয়ে চায়ের কাপ হাতে সকলের সামনে? এমনকী যেখানে বিরোধী নেতারাও উপস্থিত? মনমোহনকে প্রতিনিয়ত অপমান করেন সোনিয়া, সেটা দেখানোর জন্য একটি দৃশ্য রয়েছে। সোনিয়া এবং তাঁর সচিব ড্রইং রুমে পায়ের উপর পা তুলে বসে আছেন। সেই ঘরে ঢুকে প্রধানমন্ত্রী অনেকটা হেঁটে সোফার সামনে দাঁড়ালেন। সোনিয়া একবারও চেয়ার থেকে না উঠে কথা বলছেন। এ ছবির সেরা চরিত্রায়ণ সুজান বার্নেট। জার্মান এই অভিনেত্রী সোনিয়ার চরিত্রটি অবিকল আনতে সমর্থ হয়েছেন। সোনিয়ার নির্বিকার চেয়ে থাকা, নির্লিপ্ত প্রত্যাঘাত এবং উদাসীন অসম্মান সবই নিখুঁতভাবে এসেছে। অনুপম খের যতটা শারীরিক ভঙ্গি ও আচরণে মনমোহন হয়ে ওঠায় মনোযোগী ছিলেন, ততটা প্রধানমন্ত্রীর বৌদ্ধিক নিবিষ্টতাকে চরিত্রে আনতে পারলেন কোথায়? মিহি কণ্ঠস্বর, সামনে দু হাত রেখে চলার ভঙ্গির মধ্যে মিমিক্রির আভাস। মনমোহনের মুখে বসানো হয়েছে অবিশ্বাস্য সংলাপ। ওড়িশার মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়ক রাজ্যের জন্য বিশেষ প্যাকেজ চাইতে আসায় তাঁকে মনমোহন বলছেন, টাকা কি গাছে ফলে! এই ভাষা পরিশীলিত মনমোহন সিং বলছেন এরকম কল্পনা তাঁর প্রবল প্রতিপক্ষও করবেন না। আর অক্ষয় খান্নাকে দেখে মনে হবে ভারতের সবথেকে ক্ষমতাবান ব্যক্তি হলেন প্রধানমন্ত্রীর মিডিয়া অ্যাডভাইসর! তাঁর অবারিত দ্বার প্রধানমন্ত্রীর কামরায়। এমনকী তিনি যখন তখন ঘরে ঢুকে দেশের ন্যাশনাল সিকিউরিটি অ্যাডভাইসর অথবা ক্যাবিনেট সচিবদের পর্যন্ত বলছেন, আমার প্রাইম মিনিস্টারের সঙ্গে আলাদা কথা আছে! অকল্পনীয় কল্পনাশক্তি! ছবির শেষভাগে এসেছে নরেন্দ্র মোদির ভাষণের একের পর এক নিউজ রিল। উত্তর পাওয়া গেল না, পাঁচ বছর ধরে এত অসম্মান করে আসা মনমোহনকে পুনরায় ২০০৯ সালে কেন সোনিয়া গান্ধী আবার প্রধানমন্ত্রী করলেন? আরও বড় প্রশ্ন, এত অসম্মান সহ্য করে কেন দ্বিতীয়বার প্রধানমন্ত্রী হতে রাজি হলেন মনমোহন? তবে এই সিনেমার সবথেকে তাৎপর্যপূর্ণ দৃশ্য হল প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে বই প্রকাশের পর একদিকে মনমোহনের দপ্তর থেকে স্পষ্ট বিবৃতিতে জানানো হচ্ছে বইয়ের সঙ্গে বাস্তবের মিল নেই। আর অন্যদিকে সঞ্জয় রূপী অক্ষয় খান্না দর্শকদের জানাচ্ছেন, বই প্রকাশের পর আজ পর্যন্ত সঞ্জয়ের সঙ্গে মনমোহন একটি কথাও বলেননি। না হয়েছে ডকুমেন্টারি, না বায়োপিক, হয়নি ফিকশনও। বিজয় রত্নাকর গুট্টে লোকসভা ভোটের প্রাক্কালে নেহাৎ একজন অ্যাক্সিডেন্টাল ফিল্ম ডিরেক্টর!
সমৃদ্ধ দত্ত 
বন্ধুত্বের সহজ পাঠ শেখাবে গুড্ডু-গুড়িয়া 

বিনোদনের খবর শুরু হোক ক্যুইজ দিয়ে ! গুপী-বাঘা, সন্তু-জোজো, জয়-বিরু বা টিনটিন-হ্যাডক। সময়কাল আলাদা হলেও সবার আগে এই জুটিগুলোর মধ্যে মিল কোথায়? মিল তাদের বন্ধুত্বে। যে বন্ধুত্ব লাভ ক্ষতির হিসেবের ঊর্ধ্বে।   বিশদ

ঘরের ছেলের দেশনায়ক হয়ে ওঠার গল্প 

বিপ্লবী ক্ষুদিরাম বসুকে সদ্য মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে অত্যাচারী ব্রিটিশ সরকার। প্রতিবাদের আগুন রাজপথে। বন্দেমাতরম ধ্বনিতে আকাশ-বাতাস উদ্বেলিত। যার আঁচ পড়েছে এক বনেদি পরিবারেও। সেই বাড়ির বছর ১৪-র এক কিশোর মায়ের কাছে জানতে চাইছে, ক্ষুদিরাম বসু দেশের জন্য প্রাণ দিলেন কিনা।   বিশদ

সিনেমার আলোচনা: উরি
ভারতীয় সেনা, দেশাত্মবোধ
এবং কৌশল প্রাপ্তি 

‘বলিদান পরম ধর্ম...’
ডানদিকের বুকপকেটে নামের ঠিক নীচটায় লেখা থাক ‘বলিদান’ শব্দটা। প্যারা এসএফ বা প্যারা স্পেশাল ফোর্সের অফিসাররা সেই কাজটাই করে থাকেন। কঠিন অপারেশনেই ডাক পড়ে তাঁদের। তা সে পণবন্দি উদ্ধার হোক, কিংবা সন্ত্রাস দমন।  বিশদ

নকশি কাঁথায় বোনা সম্প্রীতির আখ্যান 

এই মুহূর্তে ‘নকশি কাঁথা’ ধারাবাহিকে শবনম, যশ ও রোহিনীর মধ্যে যে চোরা হিংসার স্রোত বইছে তার বিন্দুমাত্র লেশ পাওয়া গেল না শ্যুটিং ফ্লোরে! পরিবর্তে আড্ডা খুনশুটিতেই মজে ছিলেন তিন মূর্তি।  
বিশদ

08th  January, 2019
নতুন ভূমিকার জন্য
ওয়ার্মআপ মধুমিতার 

বাংলা টেলি ধারাবাহিকের খুবই পরিচিত মুখ মধুমিতা সরকার (চক্রবর্তী)। ধারাবাহিকে নয়, চলচ্চিত্র বা ওয়েবসিরিজে এবার তাঁকে দেখা যাবে। তবে কোথায় সেটা এখনই খোলসা করেননি অভিনেত্রী। মধুমিতা বলছেন,‘শুধু এটুকু বলা যেতে পারে, সিরিয়াল আর করছি না। অন্য মাধ্যমে নামার প্রস্তুতি নিচ্ছি। 
বিশদ

08th  January, 2019
দর্শকের প্রত্যাশা পূরণে সার্থক 

‘বিসর্জন’ ছবির শেষেই পরিচালক কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায় একটা আভাস দিয়েছিলেন যে এই ছবির সিক্যুয়াল হলেও হতে পারে। নিজের প্রেমকে গলা টিপে মেরে পদ্মা না হয় গণেশ মণ্ডলের সঙ্গে সংসার করতে রাজি হল।  
বিশদ

08th  January, 2019
চিত্রনাট্য পড়ে অনিল কাপুরকে
রাজি করান সোনমই 

অনিল কাপুর ও সোনম কাপুর যে এই প্রথম একই ছবিতে অভিনয় করছেন সে খবর ইতিমধ্যে পুরনো। ‘এক লড়কি কো দেখা তো অ্যায়সা লগা’র ট্রেলারে বাবা-মেয়ের জুটিকে পছন্দও করেছেন দর্শক। ‘অন্যরকমের প্রেম কাহিনী’ বলা হচ্ছে এই ছবিকে। 
বিশদ

08th  January, 2019
সম্পর্কের গল্পে অতিপ্রাকৃত ছোঁয়া 

একটা সময় টেলি দুনিয়ায় শাশুড়ি-বউমার সাংসারিক কূটকচালির রাজত্ব চলত। এরপর সেই শাসনভার ক্রমে হস্তান্তরিত হয় ঐতিহাসিক, পৌরাণিক কাহিনীর উপর। সেই শাসনকালও দীর্ঘস্থায়ী হয়নি। বর্তমানে ছোটপর্দার সিংহাসন অতিপ্রাকৃতর দখলে। চ্যানেলে চ্যানেলে আধিভৌতিক, অতিপ্রাকৃত, জাদুশক্তির ছড়াছড়ি। 
বিশদ

08th  January, 2019
কলকাতার ডন সাম্রাজ্য 

এ গল্প অন্ধকারের। সেখানকার ক্লেদ ও ক্রোধের। যার উৎসমুখ লুকিয়ে আছে উদ্বাস্তু জীবনের অজানা দিনলিপির অন্দরে। অস্তিত্বের সংকট যে জীবনযাপনকে করে তুলেছিল প্রতিবাদী, প্রতিরোধী।  
বিশদ

05th  January, 2019
দুষ্টের দমনে অরণ্যদেব 

কমিকস এর পাতা থেকে নয়, সাধারণ মানুষের মধ্যে থেকেই উঠে এসেছে অরণ্যদেব চক্রবর্তী। সে ব্রুস লি’র ভক্ত, স্বপ্ন দেখে অপরাধীদের শায়েস্তা করার। এদিকে বাস্তবে নরম স্বভাবের অরণ্যদেব বন্ধুদের কাছে হাসির খোরাক। 
বিশদ

05th  January, 2019
ছুটির আমেজে খেলা 

বছর পঁচিশ আগের কথা। বাংলা গানের জগতে আগমন হয়েছিল এক ‘বখাটে’ ছেলের। উসকো খুসকো চুল, ঢোলা জামা-রং চটা জিন্স পরা ছেলের হাবভাব এমন যেন পাড়ার রক থেকে সোজা মঞ্চে এসেছে। রকের ভাষাতে কথা বলা সেই ছেলের মঞ্চ দাপানো পারফরম্যান্স ‘রুচিশীল’ বাঙালি ভালো চোখে নেয়নি।  
বিশদ

05th  January, 2019
তথ্যনিষ্ঠ ছবি না শুধুই চমক? 

সকাল সাড়ে সাতটা নাগাদ ডাইনিং টেবিলে বসে সঞ্জয় গান্ধী মাকে বললেন, ‘সাউথ ইন্ডিয়ায় একটা সিনেমার পোস্টারে কী লেখা হয়েছে জানো?’ ইন্দিরা গান্ধী পেপার পড়ছিলেন। জিজ্ঞাসু চোখে তাকালেন।  
বিশদ

05th  January, 2019
প্রয়াত অভিনেতা কাদের খান 

মুম্বই, ১ জানুয়ারি: বছরের শুরুতেই ছন্দপতন। প্রয়াত হলেন বলিউড অভিনেতা কাদের খান (৮১)। দীর্ঘদিন ধরেই শ্বাসকষ্টজনিত কারণে ভুগছিলেন তিনি। গতকাল স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৬ নাগাদ কানাডার একটি হাসপাতালে অবস্থায় তাঁর মৃত্যু হয়। বাবার মৃত্যু সংবাদ জানিয়েছেন তাঁর ছেলে সরফরাজ।
বিশদ

01st  January, 2019
বাংলা উৎসব 

এপার-ওপার বাংলার মিলন রচিত হতে চলেছে বাংলা উৎসবে। চলবে ৪-৬ জানুয়ারি শহরের নজরুল মঞ্চে। দুই বাংলার একঝাঁক শিল্পী উপস্থিত থাকবেন এই উৎসবে। রবীন্দ্রসঙ্গীত, নজরুলগীতি, লোকসঙ্গীত, আধুনিক গান, তালবাদ্য থেকে চলচ্চিত্রের গান পর্যন্ত শোনা যাবে বাংলা উৎসবে।  
বিশদ

01st  January, 2019
একনজরে
 ইসলামাবাদ, ১১ জানুয়ারি (পিটিআই): প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট আসিফ আলি জারদারি, সিন্ধ প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী মুরাদ আলি শাহ সহ পাকিস্তান পিপলস পার্টি (পিপিপি)-এর একাধিক নেতার বিদেশ ভ্রমণের উপর নিষেধাজ্ঞা বহাল রাখল পাক সরকার। ...

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: জামিন অযোগ্য ‘গ্রেপ্তারি পরোয়ানা’ জারি হয়েছিল আগে। হুগলির পুরশুড়ায় এক বেআইনি অর্থলগ্নি সংস্থার সেই কর্তা শেখ সারাফাত আলিকে অবশেষে গ্রেপ্তার করল পুলিস। শুক্রবার ধৃতকে ব্যাঙ্কশালের সেবির বিশেষ আদালতে তোলা হয়। ...

সংবাদদাতা, বিষ্ণুপুর: দীর্ঘ ৮ বছর পর স্থায়ী পদে শিক্ষিকা পেয়ে বৈতল গার্লস হাইস্কুলে কার্যত উৎসবের আমেজ। ২০১১ সালে চালু হওয়া ওই হাইস্কুলে এতদিন কোনও স্থায়ী শিক্ষক ছিল না। অতিথি শিক্ষক দিয়ে স্কুল চলেছে।  ...

 সিডনি, ১১ জানুয়ারি: এশিয়ার প্রথম অধিনায়ক হিসেবে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে টেস্ট সিরিজ জয়ের মুকুট সদ্য তাঁর মাথায় উঠেছে। তবু অজিদের বিরুদ্ধে ওয়ান ডে সিরিজে খেলতে নামার আগে মন ভালো নেই বিরাট কোহলির। চোখে মুখে ধরা পড়েছে বিষণ্ণতার ছাপ। খানিক অপ্রস্তুতও বটে। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

বিতর্ক বিবাদ এড়িয়ে চলা প্রয়োজন। প্রেম পরিণয়ে মানসিক স্থিরতা নষ্ট। নানা উপায়ে অর্থ উপার্জনের সুযোগ। ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

জাতীয় যুব দিবস
১৮৬৩: স্বামী বিবেকানন্দের জন্ম
১৯৩৪: মাস্টারদা সূর্য সেনের ফাঁসি
১৯৫০: কলকাতায় চালু হল চিত্তরঞ্জন ক্যানসার হাসপাতাল  





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৯.৬০ টাকা ৭১.২৯ টাকা
পাউন্ড ৮৮.২২ টাকা ৯১.৪৩ টাকা
ইউরো ৭৯.৬৯ টাকা ৮২.৭০ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩২,৬৬৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩০,৯৯০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩১,৪৫৫ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৯,৩০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৯,৪০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

আজ স্বামী বিবেকানন্দের ১৫৭তম আবির্ভাব দিবস
২৭ পৌষ ১৪২৫, ১২ জানুয়ারি ২০১৯, শনিবার, ষষ্ঠী ৩৯/১৫ রাত্রি ১০/৫। নক্ষত্র- পূর্বভাদ্রপদ ৫/৫০ দিবা ৮/৪৩, সূ উ ৬/২২/৫৮, অ ৫/৬/৩০, অমৃতযোগ দিবা ঘ ৭/৬ মধ্যে পুনঃ ৭/৪৯ গতে ৯/৫৭ মধ্যে পুনঃ ১২/৬ গতে ২/৫৮ মধ্যে পুনঃ ৩/৪০ গতে অস্তাবধি। রাত্রি ১/৪ গতে ২/৫০। বারবেলা ঘ ৭/৪৩ মধ্যে পুনঃ ১/৪ গতে ২/২৪ মধ্যে পুনঃ ৩/৪৪ গতে অস্তাবধি, কালরাত্রি ঘ ৬/৪৫ মধ্যে পুনঃ ৪/৪৩ গতে উদয়াবধি।
আজ স্বামী বিবেকানন্দের ১৫৭তম আবির্ভাব দিবস
২৭ পৌষ ১৪২৫, ১২ জানুয়ারি ২০১৯, শনিবার, ষষ্ঠী রাত্রি ৫/৫১/২৯। উত্তরভাদ্রপদনক্ষত্র অহোরাত্র। সূ উ ৬/২৪/১, অ ৫/৪/৪২, অমৃতযোগ দিবা ঘ ৭/৬/৪৪ মধ্যে ও ঘ ৭/৪৯/২৮ থেকে ঘ ৯/৫৭/৩৮ মধ্যে ও ১২/৫/৪৮ থেকে ২/৫৬/৪২ মধ্যে ও ৩/৩৯/২৫ থেকে ৫/৪/৫২ মধ্যে এবং রাত্রি ১/৪/২২ থেকে ঘ ২/৫০/৫৫ মধ্যে। বারবেলা ১/৪/৩৩ থেকে ২/২৪/৩৯ মধ্যে, কালবেলা ৭/৪৪/৭ মধ্যে ও ঘ ৩/৪৪/৪৫ থেকে ৫/৪/৫২ মধ্যে, কালরাত্রি ৬/৪৪/৪৬ মধ্যে ও ঘ ৪/৪৪/১৬ থেকে ৬/২৪/১০ মধ্যে।
 
এই মুহূর্তে
ভর সন্ধ্যায় শ্যুটআউট পার্কসার্কাসে
ভর সন্ধ্যায় পার্কসার্কাস স্টেশন সংলগ্ন এলাকায় গুলি করে খুন করা ...বিশদ

09:59:38 PM

কলকাতায় চিতা বাঘের চামড়া সহ ধৃত ২

শনিবার বিকালে উত্তর কলকাতার একটি বাড়ি থেকে চিতা বাঘের চামড়া ...বিশদ

06:20:00 PM

আইলিগ: নেরোকাকে ১-০ গোলে হারাল মোহন বাগান 

04:09:04 PM

পথ দুর্ঘটনায় জখম উঃদিনাজপুরের জেলাশাসক
পথ দুর্ঘটনায় জখম হলেন উঃদিনাজপুরের জেলাশাসক অরবিন্দ কুমার মিনা। তবে ...বিশদ

04:05:22 PM

৩৪ রানে হারল ভারত 
ভারতের বিরুদ্ধে সিরিজের প্রথম একদিনের ম্যাচ ৩৪ রানে জিতল অস্ট্রেলিয়া  ...বিশদ

03:56:27 PM

 প্রথম ওয়ান ডে: ভারত ২১৪/৬ (৪৫ ওভার)

03:31:36 PM