বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
খেলা
 

পাঞ্জাব ম্যাচের আগে চনমনে ইস্ট বেঙ্গল

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বল জালে আছড়ে পড়লেই আকাশছোঁয়া চিৎকার, ‘গোওওল’। হাত ধরাধরি করে তৈরি মানবচক্রের মধ্যে বল চুরির খেলা। মিসপাসের শাস্তি পাঁচটা পুশ-আপ। অনুশীলনের ফাঁকে একে অপরের সঙ্গে খুনসুটি। বৃহস্পতিবার সন্ধায় যুবভারতীতে যথেষ্ট ফুরফুরে মেজাজে টিম ইস্ট বেঙ্গল। আসলে গত শনিবার যুবভারতীতে নর্থ-ইস্টের বিরুদ্ধে পাঁচ গোলে জয়ই মুছে দিয়েছে গুমোট ভাব। অনুশীলন শেষে সেই কথাই বললেন ইস্ট বেঙ্গলের কোচ কার্লেস কুয়াদ্রাত। তাঁর বক্তব্য, ‘জানতাম, একটা জয় আত্মবিশ্বাস ফেরাবে। দেখেছেন? ফুটবলাররা কতটা চনমনে। এটাই দরকার ছিল। এবার ছন্দ ধরে রাখার দায়িত্ব প্রত্যেকের।’ সেই সঙ্গে ইতিহাসের পাতা উল্টে তিনি যোগ করেন, ‘শুনেছি, চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী মোহন বাগানকেও পাঁচ গোল দিয়েছিল আমার ক্লাব। নর্থ-ইস্ট ম্যাচের পর সেই পরিসংখ্যানই ভেসে বেড়াচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। সমর্থকদের এমন আবেগ আমাদের বাড়তি উদ্দীপনা জোগাবে।’
শনিবার ঘরের মাঠে প্রতিপক্ষ পাঞ্জাব এফ সি। তার ৪৮ ঘণ্টা আগে যুবভারতীর প্রাকটিস গ্রাউন্ডে বৃষ্টি মাথায় নিয়ে প্রস্তুতি সারল লাল-হলুদ। নির্ধারিত সময়ের ৪৫ মিনিট পর মাঠে নামলেন ফুটবলাররা। খোঁজ নিয়ে জানা গেল, ড্রেসিং-রুমে ছেলেদের ভুলত্রুটি শুধরে দিতে ব্যস্ত কোচ কুয়াদ্রাত। সঙ্গে চলছে পাঞ্জাবের খেলার ভিডিও বিশ্লেষণ। এই মুহূর্তে আট ম্যাচে চার পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ টেবিলে ১১ নম্বরে পাঞ্জাবের দলটি। নিজেদের মাঠে এমন দলের বিরুদ্ধে তিন পয়েন্টই একমাত্র লক্ষ্য অভিজ্ঞ স্প্যানিশ কোচের। তাই প্রস্তুতিতে বিন্দুমাত্র খামতি রাখতে নারাজ তিনি। 
বৃহস্পতিবার মূলত জোর দেওয়া হল সিচুয়েশন প্রাকটিসেই। শেষদিকে বৃষ্টির মধ্যেই প্রায় আধ ঘণ্টা চললো উইং প্লে অনুশীলন। বাড়তি তাগিদ দেখা গেল সিভেরিও ও বোরহার মধ্যে। শেষ পাঁচটি মুভে পাঁচটি গোল চেয়েছিলেন কোচ কার্লেস। চার গোল করে লেটার মার্ক নিয়ে প্রি-টেস্টে পাস করলেন শৌভিক, নাওরেমরা। এর পর গত ম্যাচের ফুটবলারদের ডেকে আলাদা করে কথা বললেন কোচ। ইঙ্গিত স্পষ্ট। পাঞ্জাবের বিরুদ্ধে দলে বিশেষ পরিবর্তনের পথে হাঁটতে চান না তিনি। তবে হরমনজ্যোৎ সিং খাবরা যে খেলবেন না তা জানিয়ে দিয়েছে টিম ম্যানেজমেন্ট। তাঁর চোটের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে ধোঁয়াশা এদিনও জিইয়ে রইল। তবে কে নেই, সে কথা না ভেবে, জয়ের ছন্দ ধরে রাখাই এখন মূল লক্ষ্য ক্লেটনদের। গত ম্যাচের নায়কের মন্তব্য, ‘এখন আমরা অনেকটাই রিল্যাক্স। অনুশীলনের প্রতিটি মুহূর্ত উপভোগ করছি। আশা করছি জয়ের ছন্দ ধরে রাখতে পারব।’ 

8th     December,   2023
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ