বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
খেলা
 

বোলিং ভাবাচ্ছে ভারতকে

রায়পুর: গত ম্যাচে ২২২ রান তুলেও হারতে হয়েছে ভারতকে। ফলে বেড়েছে সিরিজ জয়ের অপেক্ষা। তবে তার চেয়েও বড় চিন্তার কারণ বোলারদের অনভিজ্ঞতা। অন্তিম ওভারে জয়ের জন্য অস্ট্রেলিয়ার প্রয়োজন ছিল ২১ রান। পেসার প্রসিদ্ধ কৃষ্ণা স্নায়ুর চাপ নিতে পারেননি। ম্যাক্সওয়েলের তাণ্ডবে তিনি খেই হারিয়ে ফেলেন। শেষ চার ডেলিভারিতে হজম করেন তিনটি চার ও একটি ছক্কা। এই জয় সিরিজে ঘুরে দাঁড়ানোর অক্সিজেন জুগিয়েছে অস্ট্রেলিয়াকে। তবে ভুল শুধরে শুক্রবার রায়পুরে সিরিজ পকেটে পুরে ফেলার লক্ষ্যে নামবে টিম ইন্ডিয়া। পাঁচ ম্যাচের লড়াইয়ের ফল আপাতত ২-১। 
আসলে অস্ট্রেলিয়া চাপে পড়লে ভালো খেলে। সদ্যসমাপ্ত বিশ্বকাপেও তা দেখা গিয়েছে। প্রথম দু’টি ম্যাচ হারলেও পরপর ন’টি ম্যাচ জিতে চ্যাম্পিয়ন হয় ডন ব্র্যাডম্যানের দেশ। ফাইনালে ট্রাভিস হেডদের সামনে কার্যত দাঁড়াতেই পারেননি রোহিত শর্মারা। তাই অতীতের তিক্ত অভিজ্ঞতা থেকে শিক্ষা নেওয়া উচিত সূর্যকুমার যাদবদের। কোনওভাবেই সিরিজ জয়ের জন্য অন্তিম ম্যাচ পর্যন্ত অপেক্ষা করা ঠিক হবে না। চতুর্থ ম্যাচে অস্ট্রেলিয়া বধে টি-২০ সিরিজ জয় নিশ্চিত করতে হবে। সেক্ষেত্রে ব্যাটসম্যানদের নিতে হবে বাড়তি দায়িত্ব। চলতি সিরিজে প্রায় প্রত্যেকেই রান করছেন। দুরন্ত ফর্মে আছেন যশস্বী জয়সওয়াল, ঋতুরাজ গায়কোয়াড়, ঈশান কিষান। অধিনায়ক সূর্যকুমারও প্রত্যাশা পূরণে সফল। মিডল অর্ডারে ভরসা জোগাচ্ছেন তিলক ভার্মা। বোলিং দুর্বলতা ঢেকে কার্যসিদ্ধির জন্য স্টিয়ারিং ধরতে হবে ব্যাটসম্যানদেরই। তার উপর যোগ দিচ্ছেন শ্রেয়স আয়ার। এই প্রসঙ্গে রবি বিষ্ণোই বলেন, ‘শ্রেয়স অভিজ্ঞ ক্রিকেটার। ও দলে ঢোকায় আমাদের ব্যাটিং আরও শক্তিশালী হবে।’ অধিনায়ক হিসেবে সূর্যকুমারের প্রশংসাও শোনা গিয়েছে বিষ্ণোইয়ের মুখে। 
গত ম্যাচে দলকে ডোবানোর পরেও শুক্রবার প্রসিদ্ধর খেলার সম্ভাবনা থেকেই যাচ্ছে। খেলতে পারেন পেসার অর্শদীপ সিং ও আভেশ খান। তবে বাঁ হাতি অর্শদীপ একেবারেই ছন্দে নেই। ভারতীয় বোলিংয়ের কঙ্কালসার চেহারা আরও প্রকট হতো যদি স্পিনার রবি বিষ্ণোই দুর্দান্ত পারফরম্যান্স মেলে না ধরতেন। অক্ষর প্যাটেলও ছন্দ হাতড়াচ্ছেন। তাই ওয়াশিংটন সুন্দরকে পরিবর্ত হিসেবে ভাবা যেতে পারে। 
অন্যদিকে, সিরিজে সমতা ফেরানোর সুযোগ সহজে হাতছাড়া করতে চাইবে না অস্ট্রেলিয়া। পর পর দু’টি ম্যাচ হেরে দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়িয়েছে ম্যাথু ওয়েডের দল। অজিরা আসলে খোঁচা খাওয়া বাঘের মতো। আসন্ন টি-২০ বিশ্বকাপের কথা মাথায় রেখে সব দলই তরুণ ক্রিকেটারদের দেখে নিতে চাইছে। কিন্তু গুয়াহাটিতে ম্যাক্সওয়েল ৪৮ বলে ১০৪ রানের অপরাজিত ইনিংসে দলকে জিতিয়ে বুঝিয়ে দিয়েছেন, অভিজ্ঞতার দাম অমূল্য। অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটিংয়ের শুরুতে রয়েছেন ট্রাভিস হেড, যিনি বিশ্বকাপ জয়ের নায়ক। জশ ইংলিশ প্রথম ম্যাচে সেঞ্চুরি উপহার দিয়েছিলেন। নজর থাকবে অ্যারন হার্ডির উপর। তাঁকে বলা হচ্ছে ওয়ার্নারের বিকল্প। মিডল অর্ডার খুবই শক্তিশালী। ম্যাক্সওয়েল ছাড়াও মার্কাস স্টোইনিস ও টিম ডেভিড একক দক্ষতায় ম্যাচ জেতানোর ক্ষমতা রাখেন। তুলনায় অস্ট্রেলিয়ার বোলিং বড়ই সাদামাটা। সেই সুযোগটাই ভারতের কাজে লাগানো উচিত।
খেলা শুরু সন্ধ্যা সাতটায়।
 স্পোর্টস ১৮-এ সরাসরি সম্প্রচার।

1st     December,   2023
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ