বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
বিদেশ
 

প্রধানমন্ত্রী হতে চাইলে ক্ষমা চান, হিংসা নিয়ে ইমরানকে শর্ত সেনার

ইসলামাবাদ: নির্বাচনে একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়নি কেউই। এই পরিস্থিতিতে পাকিস্তানে জোট সরকার গঠনের জন্য একত্রিত হয়েছে ছ’টি রাজনৈতিক দল। ইতিমধ্যে বিলাবল ভুট্টো জারদারির পিপিপির সঙ্গে হাত মিলিয়েছে নওয়াজ শরিফের পিএমএল-এন। প্রেসিডেন্ট, প্রধানমন্ত্রী সহ বিভিন্ন পদের জন্য একে অপরকে সমর্থনে রাজি হয়েছে এই দুই দল। এরইমধ্যে সরকার গঠন নিয়ে নিজের সুর নরম করলেন পিটিআই প্রধান ইমরান খান। বৃহস্পতিবার দলীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, পিপিপির সঙ্গে সরকার গঠন নিয়ে কথা বলতে রাজি ‘কাপ্তান’। আলোচনার জন্য গঠন করা হবে কমিটি। পিপিপির তথ্যসচিব ফয়জল করিম কুন্দি জানান, এখনও পর্যন্ত এবিষয়ে তাঁদের সঙ্গে যোগাযোগ করেনি পিটিআই। তাঁর কথায়, ‘এবিষয়ে পিটিআইয়ের কোনও প্রস্তাব থাকলে, তা আগে ছয় সদস্যের কো-অর্ডিনেশন কমিটিকে জানাতে হবে। তারপর বিষয়টি বিবেচনা করে দেখবে পিপিপির শীর্ষ নেতৃত্ব।’ মঙ্গলবার দেশের আর্থিক উন্নতির স্বার্থে পিটিআইয়ের সঙ্গে সমঝোতার ইচ্ছাপ্রকাশ করেছিলেন পিপিপি নেতা তথা বিলাবলের বাবা আসিফ আলি জারদারি। সেই প্রস্তাব অবশ্য নাকচ করে দিয়েছিল ইমরানের দল। এবার সেই অবস্থান থেকে সরে দাঁড়ালেন পাক ক্রিকেট দলের প্রাক্তন অধিনায়ক। সব মিলিয়ে ভোট পরবর্তী পাকিস্তানে সরকার গড়তে বিলাবল ভুট্টো জারদারির দলের হাত ধরতে মরিয়া পিএমএল-এন ও পিটিআই দু’পক্ষই। 
তবে এরই মধ্যে উঠে এসেছে আর একটি তথ্য। এতদিন শোনা গিয়েছিল নওয়াজকে সমর্থন করছে সেনা। এবার শোনা যাচ্ছে ইমরানকে সেনার তরফে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে যে, যদি তিনি ৯ মে হিংসার জন্য ক্ষমা চেয়ে নেন, তবে তাঁকেই প্রধানমন্ত্রী হিসেবে মেনে নেবে সেনা। প্রাক্তন প্রতিরক্ষা সচিব নঈম খালিদ লোধি এই তথ্য দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, সেনার সঙ্গে ইমরানের সরাসরি কথা হচ্ছে। সেনা বলেছে, ক্ষমা চেয়ে ইমরান প্রতিশ্রুতি দিক, ওই ধরনের হিংসার ঘটনার পুনরাবৃত্তি হবে না। কিন্তু ইমরান স্পষ্টই জানিয়েছেন, ওই হিংসায় অভিযুক্তদের সরিয়ে দেওয়া হবে। তবে হিংসায় তাঁর যোগ থাকার কথা তিনি মানতে অস্বীকার করেছেন। অর্থাৎ, সেনার শর্তকে কার্যত তিনি প্রত্যাখ্যানই করেছেন।
এদিকে, ২০২২ সালে ইমরান সরকারকে ক্ষমতাচ্যুত করার জন্য পাক সেনাকে দায়ী করলেন জেইউআই-এফ নেতা মৌলানা ফজলুর রহমান। তাঁর অভিযোগ, গোটা ঘটনার পিছনে ছিলেন প্রাক্তন পাক সেনাপ্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়া। রহমানের কথায়, ‘ইমরানের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব এনেছিল পিপিপি। বিষয়টি নিয়ে আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিলেন জেনারেল বাজওয়া ও ফৈয়জ হামিদ। প্রত্যেকটি দলকেই বিক্ষোভে শামিল হতে বলা হয়েছিল।’ 

17th     February,   2024
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ