বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
বিদেশ
 

বাইডেনের সক্রিয়তায় যুদ্ধবিরতি

ওয়াশিংটন: ছ’সপ্তাহের রক্তাক্ষয়ী যুদ্ধে সাময়িক দাড়ি টানল ইজরায়েল। যুদ্ধবিরতি চুক্তিতে সম্মত হয়েছে নেতানিয়াহু সরকার। তথ্যাভিজ্ঞ মহলের মতে, এই সিদ্ধান্ত রাতারাতি হয়নি। কূটনৈতিক জটিলতা কাটাতে যুদ্ধ শুরুর পর থেকেই চলছে সলতে পাকানো কাজ। মুখ্য ভূমিকায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডো বাইডেন।  জানা গিয়েছে, ৭ অক্টোবর যুদ্ধ শুরু পরই এর ভয়াবহতা আঁচ করতে পেরে হোয়াইট হাউসের সঙ্গে যোগাযোগ করে কাতার। আলোচ্য বিষয় ছিল, অপহৃত-বন্দিদের মুক্তি। ছোট্ট একটি দল বা সেল গঠনের আর্জি জানায় কাতার। যারা এব্যাপারে দু’পক্ষের কথাবার্তা বলে সমস্যা মেটানোর চেষ্টা করবে। তড়িঘড়ি এই ইস্যুতে সক্রিয় হয়ে ওঠেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। বন্দি প্রত্যার্পণ নিয়ে জট কাটাতে কাতারের আমির ও ইজরায়েলের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বেশ কয়েক দফা কথা বলেন তিনি। মার্কিন বিদেশ সচিব অ্যান্তোনি ব্লিঙ্কেন, গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএর ডিরেক্টর বিল বার্নস, জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জ্যাক সুলিভান, তাঁর সহকারী জোন ফিনার, পশ্চিম এশিয়ায় মার্কিন দূত ব্র্যাট ম্যাকগুর্ক সহ একাধিক শীর্ষস্থানীয় আধিকারিককে দায়িত্ব বুঝিয়ে দেন বাইডেন। কাতারের অনুরোধে সাড়া দিয়ে ছোট্ট একটি ‘টিম’ গঠনের নির্দেশ দেন সুলিভান। দায়িত্ব দেওয়া হয় অভিজ্ঞ কূটনীতিক ম্যাকগুর্ক ও জাতীয় নিরাপত্তা কাউন্সিলের আর এক আধিকারিক জোশ গেটজারকে। তাঁরা কাতারের প্রধানমন্ত্রী সহ বিভিন্ন মহলের সঙ্গে কথাবার্তা শুরু করেন। গোটা প্রক্রিয়ায় তুমুল গোপনীয়তা রক্ষা করা হয়েছিল। এরমধ্যে ১৩ অক্টোবর বন্দি মার্কিন নাগরিকদের পরিবারের সঙ্গে কথা বলেন বাইডেন। পাঁচদিন পর তেল আভিভে উড়ে গিয়ে এই বিষয়ে আলোচনা করেন ইজরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুর সঙ্গে। ছ’দিনের মাথায় দুই মার্কিন নাগরিকদের মুক্ত করতে সমর্থ হয় আমেরিকা। তাতেই বন্দিমুক্তির ব্যাপারে আত্মবিশ্বাস বেড়ে যায় মধ্যস্থতাকারীদের। এরমধ্যে ২৪ অক্টোবর সড়ক পথে গাজায় আক্রমণ করেন ইজরায়েল। অন্যদিকে,ততদিনে বন্দি প্রত্যার্পণ নিয়ে হামাসের সঙ্গে কথাবার্তা অনেকটাই এগিয়ে গিয়েছে। এই আবহে ইজরায়েলকে আক্রমণ বন্ধ রাখতে আর্জি জানায় আমেরিকা। কিন্তু, তাতে সাড়া দেয়নি তেল আভিভ। এরপর তিন সপ্তাহ ধরে বন্দি-আটক-অপহৃতদের মুক্তি নিশ্চিত করতে বিভিন্ন মহলে বিস্তারিতভাবে কথা বলেন বাইডেন। হামাসের কাছে অপহৃতদের তথ্য চাওয়া হয়। দোহা ও কায়রোর মাধ্যমে কথাবার্তা এগতে থাকে। হামাস জানায়, তারা প্রথম দফায় ৫০ জনকে মুক্তি দিতে রাজি। এরমধ্যে নতুন করে সমস্যা দেখা দেয়। কোথায়, কে কত মানুষকে আটকে রেখেছে, তা নিয়ে স্পষ্ট করে কিছু জানাতে পারছিল না হামাস। এরপর কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানির সঙ্গে কথা বলে ৫০ জনের বিস্তারিত তথ্য চেয়ে পাঠান বাইডেন। তাতে কাজ হয়। হামাসের তরফে সবুজ সঙ্কেত পেয়ে চুক্তির ব্যাপারে নেতানিয়াহুর সঙ্গে কথা বলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। ইজরায়েলের প্রধানমন্ত্রীকে রাজি করান তিনি।

23rd     November,   2023
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ