বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দেশ
 

ইরান হরমুজ প্রণালী বন্ধ করলে দাম বাড়বে জ্বালানি তেল ও এলএনজির

নয়াদিল্লি: ইরান ও ইজরায়েলের মধ্যে সংঘর্ষের প্রভাব পড়তে শুরু করেছে আন্তর্জাতিক বাণিজ্যে। যুদ্ধ শুরুর পর থেকে অপরিশোধিত খনিজ তেলের দাম ব্যারেল পিছু ৯০ ডলার বেড়েছে। সংঘর্ষ বন্ধ করতে এখনই ব্যবস্থা না নিলে পরিস্থিতি আরও খারাপ হবে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। মতিলাল ওসওয়াল ফিনান্সিয়াল সার্ভিসেসের (এমওএফএস) পক্ষে বলা হয়েছে, ইজরায়েলকে সবক শেখাতে ইরান আংশিক বা সম্পূর্ণভাবে হরমুজ প্রণালী বন্ধ করে দিতে পারে। তখন জ্বালানি তেল এবং এলএনজির দাম আরও বাড়বে। আন্তর্জাতিক স্তরে জ্বালানি তেলের অধিকাংশ বাণিজ্যটাই হয়ে থাকে এই প্রণালী দিয়ে।
ওমান ও ইরানের মধ্যে রয়েছে ৪০ কিলোমিটার চওড়া হরমুজ প্রণালী। এরমধ্যে ২ কিমি চওড়া অংশ দিয়ে জাহাজ চলাচল করে। এই পথ দিয়েই সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরশাহি, কুয়েত, কাতার, ইরাক ও ইরান অপরিশোধিত খনিজ তেল রপ্তানি করে থাকে। মোট রপ্তানির পরিমাণ ২১ মিলিয়ন বিপিডি। ২০২২ সালে এই রুট দিয়েই বিশ্বের মোট ২১ শতাংশ তেল রপ্তানি হয়েছিল। পাশাপাশি ২০ শতাংশ এলএনজি (তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস) রপ্তানি হয়েছিল এই পথ ধরেই। কাতার ও সংযুক্ত আরব আমিরশাহির পুরো এলএনজি ব্যবসাটাই হয় হরমুজ প্রণালীর মধ্যে দিয়ে। হরমুজ প্রণালীর উপর বিশেষভাবে নির্ভরশীল ভারত। সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরশাহি ও ইরাক থেকে অপরিশোধিত তেল এবং কাতার থেকে এলএনজি ভারতে আসে এই প্রণালী দিয়ে। প্রায় ৮৫ শতাংশ তেল ও এলএনজি আমদানি করে ভারত। এই প্রণালী এড়িয়ে তেল ও এলএনজি আনতে গেলে দাম অনেকটাই বাড়বে বলে বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন। তাছাড়া বিকল্প পথে মাত্র এক-তৃতীয়াংশই তেল সরবরাহ সম্ভব। ৭ থেকে ৮ মিলিয়ন বিপিডি দিয়ে চাহিদার সামান্য অংশই মেটানো যাবে। 

22nd     April,   2024
 
 
অক্ষয় তৃতীয়া ১৪৩১
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ