বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দেশ
 

প্রধানমন্ত্রীকে আঘাত করার উদ্দেশ্য ছিল না, নিজের মন্তব্যে অটল প্রজ্ঞা

ভোপাল: ভাঙলেন, তবু মচকালেন না সাংসদ প্রজ্ঞা ঠাকুর। এবার আর তাঁকে প্রার্থী করেনি বিজেপি। তাঁর ভোপাল কেন্দ্র থেকে প্রার্থী করা হয়েছে অলক শর্মাকে। বারবার বিতর্কিত মন্তব্য করে বিজেপিকে অস্বস্তিতে ফেলেছেন প্রজ্ঞা। সে কারণেই এবার আর তাঁকে বিজেপি টিকিট দেয়নি বলে রাজনৈতিক মহলের মত। এ প্রসঙ্গে প্রজ্ঞা বলেন, ‘আমি কখনও বিতর্কিত মন্তব্য করিনি। সব সময় সত্য কথা বলেছি। রাজনীতিতে সত্যি কথা বলার অভ্যাস তৈরি করতে হবে। আমি একজন সন্ম্যাসিনী। মানুষ আমার মতামত গ্রহণ করেছে।’ একই সঙ্গে প্রজ্ঞা সাফ জানিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রীকে আঘাত দেওয়ার কোনও উদ্দেশ্য তাঁর ছিল না। 
২০১৯ সালে ভোপাল কেন্দ্র থেকে জয়ী হন প্রজ্ঞা। সে বছরই একটি অনুষ্ঠানে মহাত্মা গান্ধীর হত্যাকারী নাথুরাম গডসেকে ‘স্বাধীনতা সংগ্রামী’ বলে মন্তব্য করেন তিনি। সেই নিয়ে তীব্র বিতর্ক দেখা দেয়। পরে ক্ষমাও চান এই কট্টর হিন্দুত্ববাদী নেত্রী। তবে এরপরেও বিতর্ক থামেনি। বিতর্ক থামাতে স্বয়ং প্রধানমন্ত্রীকে বলতে হয়, ‘এই মন্তব্য সমাজের কাছে ভুল বার্তা দেবে। ওই মন্তব্যের জন্য প্রজ্ঞা ক্ষমা চেয়েছেন। তবে আমি ওঁকে কখনও ক্ষমা করব না।’ সেই মন্তব্যের কারণেই তাঁকে টিকিট দেওয়া হয়নি বলে এক বিজেপি নেতা জানিয়েছেন। তাঁর কথায়, ‘টিকিট না দিয়ে একটা বার্তাই স্পষ্ট করা হয়েছে— সকলকে নিয়ম মানতে হবে।’ পাঁচ বছর আগের মন্তব্য নিয়েও সোমবার মুখ খুলেছেন প্রজ্ঞা। তিনি বলেন, ‘আমার মন্তব্যে প্রধানমন্ত্রী আঘাত পেয়েছেন। তিনি কখনও আমাকে ক্ষমা করবেন না বলেও জানিয়েছেন। তবে আমার এ ধরনের কোনও উদ্দেশ্য ছিল না।’ প্রজ্ঞা বলেন, ‘আমি কখনও টিকিট চাইনি। দল আমাকে যে কাজে ব্যবহার করবে, আমি তাই পালন করব।’ ভোপাল কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী অলক শর্মাকে সমর্থন করবেন বলেও তিনি জানিয়েছেন। 

5th     March,   2024
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ