বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দেশ
 

ভেবে কাজ করুন, ডিএম ও এসপিদের হুমকি কমিশনের

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ‘ভেবে কাজ করুন। নিরপেক্ষতার প্রশ্নে কোনও আপস নয়। এমন কাজ করবেন না, যাতে আপনাদের সঙ্কটে পড়তে হয়।’ সোমবার রাজ্যের সব জেলাশাসক ও পুলিস সুপারকে ঠিক এমনই কড়া ভাষায় সতর্ক করে দিল জাতীয় নির্বাচন কমিশনের ফুল বেঞ্চ। 
এদিন শহরের একটি পাঁচতারা হোটেলে রাজ্যের ডিএম-এসপিদের সঙ্গে বৈঠক করে মুখ্য নির্বাচন কমিশনার রাজীব কুমারের ফুল বেঞ্চ। সেই বৈঠকে রাজ্যের প্রায় সব জেলার আধিকারিকদের কমিশনের কার্যত হুমকির মুখে পড়তে হয়েছে বলে খবর। পাশাপাশি ভোটের তারিখ ঘোষণার পর স্বরাষ্ট্র সচিব নন্দিনী চক্রবর্তী ও রাজ্য পুলিসের ডিজি রাজীব কুমারকে পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হতে পারে বলে সূত্র মারফত খবর পাওয়া যাচ্ছে। 
বৈঠকে রাজ্যের আইন-শৃঙ্খলা নিয়ে রীতিমতো বিরক্তি প্রকাশ করেছে কমিশন। জেলাশাসক ও পুলিস সুপারদের বেঞ্চ স্পষ্ট জানিয়েছে, কোনও অভিযোগ বরদাস্ত করা হবে না। যে কোনও মূল্যে সব রাজনৈতিক দলের জন্য ‘লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড’(সকলকে সমান সুযোগ) তৈরি করতেই হবে। একাজে ব্যর্থ হলে ফল ভুগতে হবে। এখানেই শেষ নয়, অধীনস্থ আধিকারিকরাও যদি এই কাজে ব্যর্থ হয়, তার জন্য জেলাশাসক ও পুলিস সুপাররাই দায়ী থাকবেন বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছে কমিশন। রাজ্যের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে আক্ষরিক অর্থে কমিশনের ধমক খেতে হয়েছে দুই ২৪ পরগনা, হাওড়া, মালদহ, উত্তর দিনাজপুর ও কোচবিহারের মতো জেলাগুলিকে। 
এছাড়াও রাজ্যের ভোটার তালিকায় ভুয়ো নামের জন্য যে গুচ্ছ গুচ্ছ অভিযোগ জমা পড়েছে, তা তুলে ধরে প্রশাসনিক আধিকারিকদের একরকম তুলোধোনা করেছে কমিশনের বেঞ্চ। মূলত সীমান্তবর্তী জেলাগুলি থেকেই ভুয়ো ভোটারের অন্তর্ভুক্তির অভিযোগ জমা পড়েছিল কমিশনের কাছে। এদিন সেসব তথ্য তুলে জেলার আধিকারিকদের কাছে জানতে চাওয়া হয়েছে, এত নির্দেশিকার পরও কেন নির্ভুল ভোটার তালিকা প্রকাশ করা গেল না? যেসব জেলায় ভুয়ো ভোটার থাকার অভিযোগ রয়েছে, সেখানকার প্রশাসনিক কর্তাদের অবিলম্বে সবক’টি রাজনৈতিক দলের সঙ্গে বৈঠক করে অভিযোগ নিষ্পত্তির নির্দেশ দিয়েছে ফুল বেঞ্চ। জেলা কর্তাদের কমিশন বলেছে, বিষয়টি মোটেও তারা ভালো চোখে নিচ্ছে না। আগামী সাত দিনের মধ্যে সমস্ত অভিযোগ নিষ্পত্তির নির্দেশও দেওয়া হয়েছে বলে খবর। এখানেই শেষ নয়, জামিন অযোগ্য গ্রেপ্তারি পরোয়ানা কার্যকর করতে না পারায় প্রশাসনিক কর্তাদের বিরুদ্ধে রীতিমতো উষ্মা প্রকাশ করেছেন রাজীব কুমাররা। ফুল বেঞ্চ রাজ্যে আসার আগেই জামিন অযোগ্য গ্রেপ্তারি পরোয়ানা শূন্যে নামিয়ে আনার নির্দেশ দিয়েছিল কমিশন। কিন্তু দুই ২৪ পরগনা, মুর্শিদাবাদ, মালদহ, উত্তর দিনাজপুর, বীরভূমের মতো জেলাগুলিতে এখনও প্রচুর সংখ্যক গ্রেপ্তারি পরোয়ানা কার্যকর করা বাকি। সূত্রের খবর, এমন গ্রেপ্তারি পরোয়ানার সংখ্যা ৪৬ হাজার। আর এই বিপুল সংখ্যক জামিন অযোগ্য পরোয়ানা কার্যকর করার জন্য কমিশন সময় দিয়েছে দশ দিন। এছাড়াও সিভিক ভলান্টিয়ারদের কোনওভাবেই ভোটের কাজে ব্যবহার করা যাবে না বলে জানিয়ে গিয়েছে কমিশন। আজ, মঙ্গলবার মুখ্যসচিব, স্বরাষ্ট্রসচিব ও রাজ্য পুলিসের ডিজির সঙ্গে বৈঠক করবে ফুল বেঞ্চ। 

5th     March,   2024
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ