বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দেশ
 

মজবুত হচ্ছে ইন্ডিয়া, সমাজবাদীর পর আপের সঙ্গেও কং-সমঝোতা

সন্দীপ স্বর্ণকার, নয়াদিল্লি: ‘আব কি বার, ৪০০  পার’— স্লোগান তুলেছেন স্বয়ং নরেন্দ্র মোদি। সংসদে দাঁড়িয়ে দাবি করেছেন, ‘অ্যালায়েন্স (ইন্ডিয়া) কা অ্যালাইনমেন্ট হি বিগড় গ্যায়া।’ প্রধানমন্ত্রীর এহেন আস্ফালনের মাত্র ১৬-১৭ দিনের মধ্যে বদলে গেল পরিস্থিতি। ধীরে ধীরে মজবুত হতে শুরু করল বিরোধী মহাজোট। সমাজবাদী পার্টির (সপা) সঙ্গে বুধবার আসন সমঝোতা পাকা করে ফেলেছে কংগ্রেস। তারপর ২৪ ঘণ্টা কাটতে না কাটতে আম আদমি পার্টির (আপ) সঙ্গেও তাদের কথাবার্তা পৌঁছে গেল প্রায় চূড়ান্ত পর্যায়ে। দু’-একদিনের মধ্যে হতে চলেছে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা। শুধু দিল্লি নয়, চব্বিশে মোদি হটানোর অঙ্গীকারে অসম, হরিয়ানা, গুজরাত এবং চণ্ডীগড়েও ‘ইন্ডিয়া’ জোটে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়বে আপ-কংগ্রেস।
একইভাবে বাংলায় তৃণমূলের সঙ্গে আসন রফার আশা ছাড়ছে না রাহুল গান্ধীর দল। কংগ্রেসের বিশ্বাস, মোদি হটানোর বৃহত্তর স্বার্থে রাজ্য রাজনীতির অহি-নকুল সম্পর্ক আপাতত শিকেয় তুলে রাখবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর কাছ থেকে বাংলার ৪২টি আসনের মধ্যে অন্তত পাঁচটি আদায়ের ব্যাপারে চেষ্টা চালানো হচ্ছে। গান্ধী পরিবার-ঘনিষ্ঠ এআইসিসির এক শীর্ষস্থানীয় নেতা বৃহস্পতিবার বলেছেন, ‘আমরা তৃণমূলের সঙ্গে আসন সমঝোতার ব্যাপারে আশাবাদী।’ সূত্রের খবর, শারদ পাওয়ার এবং অখিলেশ যাদব নাকি তৃণমূলকে বোঝানোর উদ্যোগ নেবেন। এপ্রসঙ্গে জানতে চাওয়া হলে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীররঞ্জন চৌধুরী বলেন, ‘লোকসভায় আমাদের লক্ষ্য বিজেপিকে হটানো। তার জন্য হাইকমান্ডই আসন সমঝোতার যাবতীয় স্ট্র্যাটেজি নেবে। আমরা তা পালন করব।’ 
দেড় মাস ধরে টানাপোড়েন চলার পর অবশেষে কংগ্রেস-সপা আসন রফার ঘোষণা হয়েছে। উত্তরপ্রদেশ আর মধ্যপ্রদেশে একসঙ্গে লড়বে তারা। একইভাবে দিল্লির সাত লোকসভা আসনের মধ্যে আপ প্রার্থী দেবে চারটিতে। বাকি তিনটিতে লড়বে কংগ্রেস। চণ্ডীগড়ের মেয়র নির্বাচনে কেজরিওয়ালের দলকে সমর্থন দিয়েছে তারা। ঠিক সেভাবে ওই কেন্দ্রে লোকসভা ভোটে কংগ্রেসের প্রার্থীকে ভোট দেবে আপ। এছাড়া ১০ আসনের হরিয়ানা, ১৪ আসনের অসমে তারা লড়বে একটি  করে আসনে। গুজরাতে মোট লোকসভা কেন্দ্র ২৬টি। তার মধ্যে ইন্ডিয়া জোটের অংশ হিসেবে কংগ্রেসের সঙ্গে হাত মিলিয়ে আপ প্রার্থী দেবে দু’টি আসনে। বদলে গোয়ার দু’টি আসনই রাহুল গান্ধীকে ছেড়ে দিচ্ছেন কেজরিওয়াল।
রাজনৈতিক সূত্রে খবর, কেজরিওয়াল চাইছেন দিল্লিতে ছাপ ফেলতে। রাজধানীর বিধানসভা তাঁর দখলে। অথচ লোকসভায় আসন শূন্য। বিষয়টি প্রেস্টিজ ফাইটে পরিণত হয়েছে। তাই দিল্লিতে প্রদেশস্তরে আপ-কংগ্রেস আদায়-কাঁচকলায় হলেও লোকসভায় হাত মেলাতে কারও আপত্তি নেই। তবে পাঞ্জাবে উভয়ে আলাদাই লড়বে বলে জানিয়ে দিয়েছেন কেজরিওয়াল। তিনি বলেন, কংগ্রেসের সঙ্গে আলোচনা করেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এতে জোটের লাভ হবে। তাঁকে সমর্থন করেছেন কংগ্রেস সভাপতি মল্লিকার্জুন খাড়্গে।  বলেছেন, রাজনীতিতে স্রেফ অঙ্কের হিসেব চলে না। রসায়নও দেখতে হয়। দলের মুখপাত্র জয়রাম রমেশের মন্তব্য, ‘রাজ্যস্তরের সম্পর্ক এখানে আলোচ্য নয়। আমাদের দৃঢ় বিশ্বাস, মোদিকে হটাবেই ইন্ডিয়া।’ 

23rd     February,   2024
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ