বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দেশ
 

মূল্যহ্রাসের দাবি করেও সুদের হার একই রাখল রিজার্ভ ব্যাঙ্ক

নিজস্ব প্রতিনিধি, নয়াদিল্লি: জিডিপির বৃদ্ধির হারের সম্ভাবনা প্রত্যাশার চেয়েও বেশি। আগে বলা হয়েছিল চলতি আর্থিক বছরের শেষে জিডিপি বৃদ্ধির হার হবে সাড়ে ৬ শতাংশ। কিন্তু শুক্রবার বলা হল, এই হার হবে ৭ শতাংশ। পাশাপাশি বলা হল, মূল্যবৃদ্ধির হার কমছে। সাড়ে ৫ শতাংশের ম঩ধ্যে থাকবে  খুচরো মূল্যবৃদ্ধির হার। এতসব ইতিবাচক সংবাদ থাকা সত্ত্বেও আমজনতার সুরাহার ব্যবস্থা করতে নারাজ রিজার্ভ ব্যাঙ্ক। শুক্রবার রিজার্ভ ব্যাঙ্কের নীতি নির্ধারণ কমিটির বৈঠকের পর গভর্নর শক্তিকান্ত দাস ঘোষণা করেছেন যে, রেপো রেট কমছে না। একই থাকছে। অর্থাৎ, সেই সাড়ে ৬ শতাংশ। উচ্চহারের এই রেপো রেট থেকে যাওয়ার অর্থ চলতি আর্থিক বছরে আর বাড়ি, গাড়ির ঋণের উপর ইএমআই কমার সম্ভাবনা নেই। 
মূল্যবৃদ্ধি বেশি হলে সেটা নিয়ন্ত্রণ করতে সচরাচর রেপো রেট বাড়ানো হয়।  ২০২২ সাল থেকে ওই ঘোষণা করে রেপো রেট ক্রমাগত বাড়িয়ে যাওয়া হয়েছিল। ২৫০ বেসিস পয়েন্ট বাড়িয়ে রেপো রেট স্পর্শ করেছিল সাড়ে ৬ শতাংশ। এবার রিজার্ভ ব্যাঙ্ক নি‌঩জেই দাবি করছে যে মূল্যবৃদ্ধির হার কমছে। অর্থনীতির অন্য সেক্টরও ইতিবাচক। তাহলে এই সুসময়ের কোনও প্রতিফলন কেন আমজনতা দেখতে পাচ্ছে না? প্রশ্ন ওঠার কারণ, রেপো রেট একই রাখা। বাড়ি ও গাড়ির ঋণ বাবদ আমজনতার থেকে বেশি করে টাকা আদায় করে ব্যাঙ্কগুলির মুনাফা আকাশ স্পর্শ করছে। ২০২২ সাল থেকে বাড়তে শুরু করেছে সুদের হার। আর তারপর থেকেই বাড়ছে ব্যাঙ্কের মুনাফা। বৃহস্পতিবারই অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন বলেছিলেন, ব্যাঙ্কগুলির আর্থিক স্বাস্থ্য এখন অনেক উন্নত। সর্বকালীন রেকর্ড স্পর্শ করেছে মুনাফা। 
ব্যাঙ্কের মুনাফা যত বাড়বে, ততই বেশি লভ্যাংশ পাবে সরকার। অর্থাৎ, ঘুরিয়ে সরকারের রাজকোষও পূর্ণ হচ্ছে। মানুষের থেকে চড়া সুদ আদায় করে রাজকোষ পূর্ণ করার সহজ পথ থেকে তাই রিজার্ভ ব্যাঙ্ক সরছে না। পক্ষান্তরে সরকারের পক্ষে বৃহত্তর লাভের রাস্তা প্রশস্ত হচ্ছে। সেটি হল, লাভজনক সংস্থাকে বিক্রি করা সহজ। দাম বেশি পাওয়া যাবে। বাণিজ্যের এই সহজ ফর্মুলা অনুযায়ী সরকারি ব্যাঙ্ক আগামী দিনে বিক্রি করা সহজ হবে। মোট ১২টি সরকারি ব্যাঙ্কের মধ্যে অন্তত ৮টি বিক্রি করার পরিকল্পনা আছে সরকারের। তাই প্রশ্ন উঠছে, মূল্যবৃদ্ধির হার কমা সত্ত্বেও রেপো রেট উচ্চহারে রেখে দেওয়ার আসল কারণ কি তাহলে এগুলিই? ব্যাঙ্ককে লাভজনক সংস্থায় পরিণত করা এবং সহজে রাজকোষ পূরণ করা। রিজার্ভ ব্যাঙ্ক এদিন আরও যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে সেটি হল, কিছু কিছু আপৎকালীন ক্ষেত্রে ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ইউপিআই পেমেন্ট করা যাবে। আগে এর ঊর্ধ্বসীমা ছিল ১ লক্ষ টাকা।

9th     December,   2023
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ