বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দেশ
 

ফলপ্রকাশের আগে ভিড় উধাও বিজেপি-কংগ্রেসের সদর দপ্তরে

দিব্যেন্দু বিশ্বাস, নয়াদিল্লি: চার রাজ্যে ভোটের ফল আজ। যুযুধান দুই প্রধান শিবিরের সদর দপ্তরের ছবিতে অবশ্য তার কোনও ছাপ নেই। নয়াদিল্লিতে বিজেপির কেন্দ্রীয় কার্যালয় হোক বা কংগ্রেসের সদর দপ্তর—ফলপ্রকাশের আগের দিন জমে ওঠা ভিড়ের ছবি উধাও দুই শিবিরেই। শেষ কবে এমন দৃশ্য দেখা গিয়েছে, তা মনে করতে পারছেন না রাজনৈতিক মহলের অনেকেই।
যে কোনও নির্বাচনের ফলের একদিন আগে সাধারণত একটা চাপা উত্তেজনার আবহ থাকে নয়াদিল্লির দীনদয়াল উপাধ্যায় মার্গে, বিজেপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে। সর্বক্ষণই যেন কিছু একটা তদারকি চলছে। রাত পোহালেই হবে অপেক্ষার অবসান। আসবে শুভ মুহূর্ত। তারই শেষ পর্বের প্রস্তুতিতে ব্যস্ত থাকেন নেতা-কর্মীরা। এবার ফলপ্রকাশের ২৪ ঘণ্টা আগে বরাবরের সেই চেনা ছবি উধাও বিজেপি অফিসে। নাম-কা-ওয়াস্তে কিছু কাজকর্ম অবশ্য চলছে। তৈরি হচ্ছে অস্থায়ী মিডিয়া সেন্টার। বাধা হচ্ছে মধ্যাহ্নভোজের তাঁবু। কিন্তু উৎসব পালনের আগাম কোনও প্রস্ততি এদিন চোখে পড়েনি। দেওয়া হয়নি লাড্ডুর আগাম অর্ডারও। এমনকী, দেখা মেলেনি গেরুয়া শিবিরের কোনও শীর্ষ নেতারও।
রবিবার চার রাজ্যের বিধানসভা ভোটের ফল। অঙ্কের বিচারে এই নির্বাচন লোকসভা ভোটের সেমিফাইনাল। এক্সিট পোলের বিচারে কিছুটা এগিয়ে থাকলেও তার কোনও ছাপ পড়েনি দিল্লিতে কংগ্রেসের সদর কার্যালয় ২৪, আকবর রোডে। যেন কিছুটা মেপে পা ফেলতে চাইছে হাইকমান্ড। ভিড় হোক বা না হোক দুই পার্টি অফিসেই অবশ্য থাকছে কড়া নিরাপত্তার বন্দোবস্ত।
এআইসিসি কার্যালয় সূত্রে অবশ্য দাবি, শেষ হাসি হাসবে তারাই। সেইমতো সংশ্লিষ্ট রাজ্যগুলির পার্টি অফিসে ফলপ্রকাশের পর উদযাপনের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। প্রায় একই দাবি বিজেপি নেতা-কর্মীদের। তাদের কথায়, এটা বিধানসভা নির্বাচন। তাই ফলপ্রকাশকে কেন্দ্র করে উৎসব পালনের প্রস্তুতি সংশ্লিষ্ট রাজ্য পার্টি অফিসগুলিতেই বড় করে নেওয়া হচ্ছে। শীর্ষ নেতারাও ভোট-রাজ্যগুলিতেই আছেন। শনিবার বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডা মধ্যপ্রদেশের গোয়ালিয়র এবং মোরেনায় দলের যাবতীয় প্রস্তুতি খতিয়ে দেখেছেন। রবিবার, ফলপ্রকাশের দিন রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব থাকবেন ভোপালে। 
রবিবার অবশ্য ছবিটা বদলে যাবে বলে বিশ্বাস দুর্গাপ্রসাদ, ব্রিজলালদের। বিগত বেশ কয়েক বছর ধরে ২৪ নম্বর আকবর রোডের বাইরে কংগ্রেসের পতাকা, নেহরু টুপি, ব্যাজ, উত্তরীয়, গান্ধী পরিবারের ছবির মতো পসরা সাজিয়ে বিক্রি করছেন মোরাদাবাদ ও মথুরার দুই বাসিন্দা। তাঁদের আশা, যতই রাজ্যে রাজ্যে সেলিব্রেশন হোক না কেন, ফল বেরোলেই হাজির হবেন কর্মী-সমর্থকরা। বাড়বে বিক্রিও। আজ কি একইভাবে গেরুয়া-পসরা নিয়ে বিজেপি কার্যালয়ের বাইরেও ভিড় জমাবেন বিক্রেতারা? বাড়ছে কৌতূহল।
দিল্লিতে শনিবার বিজেপি দপ্তরে তৈরি হচ্ছে মিডিয়া সেন্টার (বঁাদিকে)। শুনশান কংগ্রেস কার্যালয় (ডানদিকে)। -নিজস্ব চিত্র। 

3rd     December,   2023
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ