বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দক্ষিণবঙ্গ
 

কাঁকসার তেলিপাড়ায় বসল নতুন ট্রান্সফর্মার, খুশি চাষিরা

সংবাদদাতা, মানকর: অবশেষে কাঁকসার তেলিপাড়ায় বসল নতুন ট্রান্সফর্মার। সমস্যার সমাধান হওয়ায় খুশি এলাকার চাষিরা। উল্লেখ্য, প্রায় ১০ দিন ধরে ট্রান্সফর্মারটি খারাপ হয়ে পড়েছিল। ফলে এলাকার ১৫০ বিঘা জমিতে ধান চাষ করে সমস্যায় পড়েছিলেন চাষিরা। সেচ করা যায়নি বলে মাঠের জমি ফাটতে শুরু করেছিল। ধানের শিসও সাদা হতে শুরু করেছিল। সেই সমস্যার খবর বর্তমান কাগজে প্রকাশিত হতেই নড়েচড়ে বসে প্রশাসন। দপ্তরের আধিকারিকদের উপস্থিতিতে লাগানো হল ৬৫ কেবি ট্রান্সফর্মার। সাবমার্সিবল থেকে জল ওঠায় খুশি চাষিরা।    
এলাকার চাষি পার্থ গঙ্গোপাধ্যায় বলেন, প্রায় ১৫০ বিঘা জমিতে ধান চাষ হচ্ছে। সাবমার্সিবলের উপর নির্ভর করেই চাষ হয়। তিনটি সাবমার্সিবলের সমস্ত বিল মেটানো আছে। তারপরেও এমন সমস্যা হচ্ছিল। তবে সমস্যার সমাধান হয়েছে। তেলিপাড়ায় তিনটি সাবমার্সিবলের উপর নির্ভর করে স্থানীয় চাষিরা ধান চাষ করেছেন। তিনটি সাবমার্সিবল চলে একটি ট্রান্সফর্মারে। দিন বারো আগে আচমকা ট্রান্সফর্মারটি খারাপ হয়ে যায়। এরপর পানাগড়ে বিদ্যুৎ বন্টন দপ্তরের অফিসে যোগাযোগ করা হয়। কিন্তু অভিযোগ, দপ্তরে আবেদন জানিয়েও সমস্যার সমাধান হয়নি। এলাকার চাষিদের বক্তব্য ছিল, চাষের গুরুত্বপূর্ণ সময়ে জল পাওয়া যায়নি। ফলে ধান পুষ্ট হবে না। মাটিও ফেটে গিয়েছে। ধানের ফলনে প্রভাব পড়বে। তবে নতুন ট্রান্সফর্মার পেয়ে খুশি এলাকার চাষিরা। যদিও চাষিদের একাংশের বক্তব্য, ট্রান্সফর্মার ঠিক হলেও ফলনে আংশিক প্রভাব পড়বে। কাঁকসা পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি ভবানী ভট্টাচার্য বলেন, সমস্যার কথা জানতে পেরে আমরা দ্রুত ব্যবস্থা নিয়েছি। রাজ্যের পঞ্চায়েত ও গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রী প্রদীপ মজুমদারের সঙ্গে যোগাযোগ করে সমস্যার কথা জানাই। উনি দ্রুত সংশ্লিষ্ট দপ্তরের মন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলে সমস্যার সমাধান করেন।
 নিজস্ব চিত্র

22nd     April,   2024
 
 
অক্ষয় তৃতীয়া ১৪৩১
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ