বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দক্ষিণবঙ্গ
 

মেদিনীপুরে দু’হাজার কোটি টাকার বেশি মূল্যের প্রকল্পের উদ্বোধন ও শিলান্যাস করবেন মুখ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিনিধি, মেদিনীপুর: লোকসভা নির্বাচনের আগে কল্পতরু হয়ে উঠেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। আজ মঙ্গলবার মেদিনীপুর শহরের কলেজ-কলিজিয়েট মাঠে প্রশাসনিক সভা করবেন তিনি। ওই সভামঞ্চ থেকেই জনগণকে বিভিন্ন প্রকল্পের সুবিধা প্রদান কর্মসূচির পাশাপাশি একগুচ্ছ প্রকল্পের উদ্বোধন ও শিলান্যাস করারও কথা রয়েছে তাঁর। 
জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, সবমিলিয়ে প্রায় দু’হাজার ২৭৬ কোটি টাকা মূল্যের প্রকল্পের উদ্বোধন ও শিলান্যাস করার কথা মমতার। এরমধ্যে প্রায় ৩৭৪টি প্রকল্পের উদ্বোধন করতে পারেন তিনি। প্রকল্পগুলি রূপায়ন করতে খরচ হয়েছ প্রায় ৩৫৫ কোটি ১৩ লক্ষ টাকা। অন্যদিকে ১১৯৩টি প্রকল্পের শিলান্যাস করার কথা রয়েছে তাঁর। এরজন্য ব্যয় হতে পারে প্রায় ১৯২১ কোটি টাকা। এদিন মুখ্যমন্ত্রীর সভা থেকেই কয়েকশ’ গ্রামীণ রাস্তা, জলপ্রকল্প সহ বিভিন্ন কাজের সূচনা হতে পারে। গত ২০২২ সালের মে মাসে প্রশাসনিক সভায় এসে মেদিনীপুর শহরের বিভিন্ন রাস্তার সম্প্রসারণ, সৌন্দর্যায়ন ও ফুটপাত নির্মাণের পরামর্শ দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। সেই প্রকল্পেরও উদ্বোধন হতে পারে আজ। 
এদিন মুখ্যমন্ত্রীর হাত ধরে উদ্বোধন হতে পারে ১৬টি সুস্বাস্থ্য কেন্দ্রের। খড়গপুর হাসপাতালে কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত ১০০ শয্যা বিশিষ্ট কোভিড ওয়ার্ডের উদ্বোধন করতে পারেন মুখ্যমন্ত্রী। অন্যদিকে, মেদিনীপুর মেডিক্যালে ৪৭ কোটি টাকার বিভিন্ন প্রকল্পের শিলান্যাস করার কথা রয়েছেন তাঁর। এছাড়াও পাঁচ কোটি টাকা ব্যয়ে সবংয়ের রুইনানের মাদুর হাবেরও উদ্বোধন হবে আজ। মোহনপুর ও নারায়াণগড়ে পাম্প হাউস, ভিন্ন ধারণ ক্ষমতাসম্পন্ন  ওভারহেড রিজার্ভারের শিল্যান্যাস করবেন মুখ্যমন্ত্রী। এর জন্য খরচ হবে যথাক্রমে ৫৫ ও ১০০ কোটি টাকা। অন্যদিকে, আজকের সভামঞ্চে কন্যাশ্রী, রূপশ্রী, স্টুডেন্ট ক্রেডিট কার্ড, সবুজসাথীর মতো মোট ৩০টিরও বেশি প্রকল্পের সুবিধা প্রদান করবেন মুখ্যমন্ত্রী। এরজন্য প্রায় ৬০ জন উপভোক্তাকে তিনি মঞ্চে ডেকে নিতে পারেন। এছাড়াও সভা থেকে একাধিক আদিবাসী সাংস্কৃতিক দলকে ধামসা-মাদল দেওয়া হতে পারে। গত বছর ফেব্রুয়ারিতে জেলায় এসে প্রায় ৭৫৫ কোটি টাকার প্রকল্পের উদ্বোধন ও শিলান্যাস করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু এবছর আগের সমস্ত রেকর্ড ছাপিয়ে যাচ্ছে। মন্ত্রী মানস ভুঁইয়া বলেন, জেলা তথা রাজ্যজুড়ে যেভাবে উন্নয়নের কর্মযজ্ঞ চালিয়ে যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী, এরজন্য আগামী একশ বছর বাংলার মানুষ তাঁর কাছে কৃতজ্ঞ থাকবে। সোমবার দুপুরে মুখ্যমন্ত্রীর হেলিকপ্টার এসে পৌঁছয় মেদিনীপুরে। তারপর সোজা সার্কিট হাউসের দিকে রওনা দেন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁকে একঝলক দেখার জন্য রাস্তার দু’ধারে অপেক্ষায় ছিলেন তৃণমূল কর্মী সমর্থকরা। তাঁদের বাঁধভাঙা উচ্ছ্বাস ছিল চোখে পড়ার মতো। এদিকে মুখ্যমন্ত্রীর সভা উপলক্ষ্যে বুধবার থেকেই সাজো সাজো রব শহরজুড়ে। শহরের বিভিন্ন মোড়ে মাইকে বাজছে গান। সভামঞ্চ তৈরির কাজও সম্পূর্ণ। প্রশাসনিক সভা হলেও সভায় প্রায় ৫০ হাজার মানুষের ভিড় জমতে পারে বলে আশাবাদী স্থানীয় নেতৃত্ব। সেইমতো প্রস্তুত থাকছে পুলিস প্রশাসনও। মুখ্যমন্ত্রী আসায় শহরের নিরাপত্তা আঁটোসাঁটো করা হয়েছে। মঙ্গলবার সভা সেরেই ফের কলকাতার উদ্দেশে উড়ে যাবেন মুখ্যমন্ত্রী।  সোমবার মেদিনীপুরের রাস্তায় মুখ্যমন্ত্রীকে দেখতে ভিড়।-নিজস্ব চিত্র

5th     March,   2024
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ