বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দক্ষিণবঙ্গ
 

বিজেপি নেত্রীর কপালে আগ্নেয়াস্ত্র ঠেকিয়ে হুমকি, ধৃত দলেরই নেতা

শ্রীকান্ত পড়্যা, তমলুক: সহবাস ও প্রাণে মারার চেষ্টার অভিযোগকারী সেই বিজেপি নেত্রীর কপালে আগ্নেয়াস্ত্র ঠেকিয়ে হুমকি দেওয়া হয়। সেই অভিযোগে বিজেপিরই এক নেতাকে গ্রেপ্তার করল পুলিস। ধৃতের নাম সুরজিৎ বেরা। তিনি তমলুক নগর মণ্ডল কমিটির সাধারণ সম্পাদক। শনিবার তাঁকে তমলুক সিজেএম আদালতে তোলা হলে বিচারক চারদিন পুলিসি হেফাজতের নির্দেশ দেন। ২৫ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যা নাগাদ সুরজিৎ সাঙ্গপাঙ্গ নিয়ে ওই বিজেপি নেত্রীকে রাস্তায় আটকে মামলা তোলার চাপ দেন বলে অভিযোগ। বাবা-মায়ের সঙ্গে নিগৃহীত ওই বিজেপি নেত্রী সেই সময় ডাক্তার দেখাতে যাচ্ছিলেন। মামলা তুলতে রাজি না হওয়ায় কপালে আগ্নেয়াস্ত্র ঠেকিয়ে ভয় দেখানো হয় বলে অভিযোগ। রাতেই তমলুক থানায় এফআইআর করেন বিজেপি নেত্রী। শুক্রবার রাতে অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করা হয়। ঘটনার পর অভিযোগকারী বিজেপি নেত্রীকে দু’জন নিরাপত্তারক্ষী দিয়েছে পূর্ব মেদিনীপুর জেলা পুলিস।
বিজেপির তমলুক নগর মণ্ডল সভাপতি সুকান্ত চৌধুরী বলেন, সুরজিতের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ আনা হয়েছে। রাজনৈতিক প্রতিহিংসা থেকে এসব করা হচ্ছে। তমলুক থানার আইসি সুভাষচন্দ্র ঘোষ বলেন, আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে ভয় দেখানোর অভিযোগে সুরজিৎ বেরাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।
উল্লেখ্য, কোলাঘাট থানা এলাকার ওই বিজেপি নেত্রীর অভিযোগ, দলে লোভনীয় পদ ও বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন দলের নেতা দেবকমল দাস। ওই প্রতিশ্রুতি দিয়ে এক বছর তাঁর সঙ্গে সহবাস করেন। দু’জনের মধ্যে সম্পর্ক থাকার বিষয়টি দলের অনেকের জানা ছিল। গত ১৪ফেব্রুয়ারি ভ্যালেন্টাইন ডে’তে দু’জনে ডায়মন্ডহারবার বেড়াতে যান। দেবকমল বিবাহিত। ওই নেত্রীর দাবি, স্ত্রীর সঙ্গে ঠিকমতো বনিবনা হয় না, একথা বলে  বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। ১৪তারিখ সন্ধ্যায় তমলুক শহরের নিমতলা মোড়ে ওই নেত্রীর মোবাইল কেড়ে দু’জনের সম্পর্কের যাবতীয় ছবি ও ভিডিও ডিলিট করা হয় বলে তিনি পুলিসকে জানিয়েছেন। তারপর দেবকমল সহ তাঁর ঘনিষ্ঠ নেতারা বেধড়ক পিটিয়ে বিয়ে করার বায়না থেকে সরে দাঁড়ানোর ফতোয়া দেন।
গত ১৯ফেব্রুয়ারি বিজেপির জেলা মহিলা শাখার ওই সদস্যা তমলুক থানায় সহবাস ও মারধরের অভিযোগ দায়ের করেন। সেখানে দেবকমলের বিরুদ্ধে সহবাসের অভিযোগ আনা হয়। দেবকমল ছাড়া আরও ছ’জনের বিরুদ্ধে প্রাণে মারার চেষ্টার অভিযোগ দায়ের হয়েছে। অভিযুক্তরা সকলেই বেপাত্তা। মূল অভিযুক্ত দেবকমল পার্টির জেলা সাধারণ সম্পাদক পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছেন। অভিযুক্ত চারজন আগাম জামিনের আবেদন জানিয়েছেন। ওই মামলায় বিজেপি নেতা গ্রেপ্তারের ঘটনায় নেতৃত্ব চূড়ান্ত অস্বস্তিতে পড়েছে। মামলা প্রত্যাহারের জন্য ২৪ফেব্রুয়ারি ধৃত সুরজিৎ লোকজন নিয়ে ওই নেত্রীকে মোটা টাকার অফার করেন বলে অভিযোগ। কিন্তু, তিনি সেই প্রস্তাব খারিজ করে দেন। পরদিন তাঁকে রাস্তায় ঘিরে আগ্নেয়াস্ত্র দেখিয়ে হুমকি দেওয়া হয়। পার্টির আদি গোষ্ঠীর পরামর্শে থানায় গিয়ে অভিযোগ দায়ের করেন। এই মুহূর্তে পার্টির আদি শিবির নিগৃহীত নেত্রীর পাশে দাঁড়িয়েছে। অভিযুক্তরা প্রায় সকলে নব্য গোষ্ঠীর নেতা। 

3rd     March,   2024
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ