বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দক্ষিণবঙ্গ
 

সারি আর সারনা ধর্মের স্বীকৃতি আদায়ে আন্দোলন চান মমতা

নিজস্ব প্রতিনিধি, বাঁকুড়া: জঙ্গলমহলে ভোটে ফ্যাক্টর আদিবাসী ভোট। তাদের দীর্ঘদিনের দাবি সারি আর সারনা ধর্ম। কিন্তু, কেন্দ্রীয় সরকার দেয়নি সেই স্বীকৃতি। বুধবার খাতড়ার খড়বন মাঠে প্রশাসনিক সভা থেকে এনিয়ে বৃহত্তর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুধু তাই নয়, একইসঙ্গে সাঁওতালি ভাষায় কথা, ধামসা বাজানো ও মহিলাদের সঙ্গে তাল মিলিয়ে নেচেও জনতার মন জয় করলেন তিনি। 
এদিনের সভায় কেন্দ্রের বঞ্চনা নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন রণংদেহি। আদিবাসীদের বঞ্চনা নিয়েও তিনি সরব হন। সারি আর সারনা ধর্মের স্বীকৃতি যে কেন্দ্রীয় সরকার দিচ্ছে না তা এদিন মুখ্যমন্ত্রী তুলে ধরেন। এনিয়ে বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে বলে তিনি জানান। পাশাপাশি এদিন সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে মমতা সাঁওতালি ভাষায় কথা বলেন। এতে করতালির ঝড় বয়ে যায়। তবে এখানেই শেষ নয়, সভার শেষের দিকে হঠাৎই তিনি মঞ্চে ডেকে নেন আদিবাসী শিল্পীদের। মুখ্যমন্ত্রীর ডাক শুনে কিছুক্ষণের মধ্যেই হাজির হন আদিবাসী শিল্পীরা। মন্ত্রী ইন্দ্রনীল সেনের সঙ্গে গানের তাল মিলিয়ে মমতা কাঠি নিয়ে ধামসা বাজান। কিছু সময় পর মহিলা আদিবাসী শিল্পীদের সঙ্গে নৃত্যও করেন। তাঁদের সঙ্গে যোগ দেন রাজ্যের আর এক প্রতিমন্ত্রী জ্যোৎস্না মাণ্ডি। কয়েক মিনিট ধরে চলা মুখ্যমন্ত্রীর এই অনুষ্ঠানে হাততালি দিয়ে সঙ্গত দেন জনতাও।
মুখ্যমন্ত্রী খাতড়ার সভা থেকে বলেন, বিজেপি শাসিত রাজ্যে আদিবাসীদের উপর অত্যাচার হয়। কিন্তু, আমরা আদিবাসীদের জন্য বিশেষ আইন করেছি। আমরা আদিবাসীদের জমি দখল করতে দেব না। কারণ, আদিবাসীদের জমি তাঁদের নিজস্ব। তাঁদের অধিকার। 
জঙ্গল তাঁদের অধিকার। আমরা ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় সরকারকে বলেছি সারি ও সারনা ধর্মকে দ্রুত স্বীকৃতি দাও। আর যদি স্বীকৃতি না দেয় আগামী দিনে বড় আন্দোলন গড়ে তুলব। সারি ও সারনা ধর্মকে স্বীকৃতি দিতেই হবে। এছাড়া কোথায় কোথায় আমার কুড়মি সম্প্রদায়ের ভাই-বোনেরা বাস করেন, একটা জিওগ্রাফিক্যাল সার্ভে করছি। 
তিনি আদিবাসীদের আরও বলেন, আদিবাসী ভাই-বোনেদের শংসাপত্র নিয়ে যাতে কোনও ধরনের অভিযোগ না থাকে দুয়ারে সরকার শিবির যখন হবে তখন আপনারা অভিযোগ জানাবেন। আমরা তা সার্টিফাই করব। 
তিনি আরও বলেন, যে ল্যাম্পসগুলির মেয়াদ ফুরিয়েছে, সেখানে বিডিওর সঙ্গে আরও চার পাঁচজনকে রাখতে হবে। আদিবাসী ও তফসিলি এলাকার কাজগুলি তারা করতে পারবে। মনে রাখবেন আমি যেটা বলি সেটা করি।
বাঁকুড়ার আদিবাসী একতা মঞ্চের সম্পাদক দিলেশ্বর মাণ্ডি বলেন, সারি ও সারনা ধর্মকে স্বীকৃতি দেওয়ার জন্য মুখ্যমন্ত্রী যদি কেন্দ্র সরকারকে চিঠি দিয়ে থাকেন, তার জন্য ধন্যবাদ জানাচ্ছি। কিন্তু, রাজ্যে জাতিগত শংসাপত্র এখন জাল হচ্ছে। এছাড়াও অযোধ্যা, দেউচা পাঁচামি প্রভৃতি প্রকল্প নিয়ে আমাদের আন্দোলনের ব্যাপারেও রাজ্যের সদর্থক ভূমিকা নেওয়া প্রয়োজন।  নিজস্ব চিত্র

29th     February,   2024
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ