বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দক্ষিণবঙ্গ
 

পানাগড়ে মদের কারখানার দুর্গন্ধে অতিষ্ঠ বাসিন্দারা, পরিদর্শনে দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদ

সংবাদদাতা, মানকর: পানাগড় শিল্পতালুকে মদের কারখানার দুর্গন্ধে নাভিশ্বাস উঠেছিল এলাকার বাসিন্দাদের। প্রশাসনকে বেশ কয়েকবার ডেপুটেশনও জমা দেওয়া হয়েছিল। তারপর‌ই অভিযোগ খতিয়ে দেখতে বুধবার দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদ, কাঁকসা ব্লক প্রশাসন ও পুলিস আধিকারিকরা এলাকা পরিদর্শনে আসেন।
স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, কারখানার দুর্গন্ধ ছড়িয়ে পড়ছে। ফলে কারখানা লাগোয়া এলাকা ছাড়াও পানাগড়ের ডাকবাংলো মোড়, বাজার, ত্রিলোকচন্দ্রপুর, দোমরা সহ একাধিক এলাকার বাসিন্দাদের সমস্যা হচ্ছে। দুর্গন্ধে অতিষ্ঠ স্থানীয় অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্র হয়ে বন্ধ হয়ে যেতে বসেছে। প্রাথমিক স্কুলের পড়ুয়ারাও আসতে চাইছে না। এলাকার ঝিনুকগড় প্রাথমিক স্কুলের এক পড়ুয়া বলে, ভীষণ গন্ধ আসে, বমি পায়। মিড ডে মিল খেতে বসেও খাওয়া যায় না। স্কুলের শিক্ষক বিকাশ মেটে বলেন, কারখানার প্রাচীরের ধারেই স্কুল। ফলে দুর্গন্ধে পড়ুয়া ও আমরা থাকতে পারি না। দুর্গন্ধে পড়ুয়াদের শরীরে ক্ষতি হচ্ছে। মিড ডে মিল খেতে পারছে না পড়ুয়ারা। অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রের কর্মী সুমি মাড্ডি বলেন, দুর্গন্ধে থাকা যায় না। কারখানার আওয়াজ আর দুর্গন্ধে বাচ্চারা কান্নাকাটি শুরু করে। আমরাও থাকতে পারি না। বাচ্চাদের খাবার দেওয়া হলেও খেতে পারে না। এলাকার বাসিন্দারা জানান, দুর্গন্ধে অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্র প্রায় বন্ধ হতে বসেছে। স্থানীয় বাসিন্দা লক্ষ্মী হাঁসদা বলেন, কারখানার দূষণের জেরে জমিতে চাষ হচ্ছে না। অবিলম্বে কারখানার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হোক। চিকিৎসক মানিকলাল সেন বলেন, এই দুর্গন্ধ অত্যন্ত অস্বাস্থ্যকর। দুর্গন্ধে বাসিন্দাদের সমস্যা হচ্ছে। প্রাকৃতিক জীববৈচিত্র্য নষ্ট হচ্ছে। অবিলম্বে দূষণ বন্ধ হওয়া উচিত। এই ধরনের কারখানা লোকালয় থেকে দূরে হওয়া উচিত।
বিজেপি নেতা রমন শর্মা বলেন, দীর্ঘদিন ধরে সাধারণ মানুষের অসুবিধা হচ্ছে। দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদ পরিস্থিতি দেখেছে। এরপরও পরিস্থিতি পরিবর্তন না হলে দিল্লির গ্রিন ট্রাইব্যুনালে অভিযোগ দায়ের করব। তৃণমূলের ব্লক সভাপতি নবকুমার সামন্ত বলেন, রাজ্য সরকার কারখানা গড়ে রাজ্যের উন্নতি করতে চাইছে। তবে সাধারণ মানুষের অসুবিধা হলে নিশ্চয়ই সরকার ব্যবস্থা নেবে। কারখানা কর্তৃপক্ষের তরফে নভদীপ থাপার বলেন, দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদ সহ বিভিন্ন দপ্তরের আধিকারিকরা এসেছিলেন। কারখানা পরিদর্শন করে তাঁরা সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। রাজ্য দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদের দুর্গাপুর শাখার আধিকারিক চিরঞ্জিত দাঁ বলেন, কারখানা সহ এলাকা পরিদর্শন হয়েছে। দ্রুত রিপোর্ট পেশ করা হবে।

29th     February,   2024
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ