বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দক্ষিণবঙ্গ
 

জল নিয়ে যেন সমস্যা না হয়, প্রশাসনের আধিকারিকদের নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর

নিজস্ব প্রতিনিধি, খাতড়া: সামনেই গ্রীষ্ম। লালমাটির জেলায় জলকষ্ট অন্যতম সমস্যা বাসিন্দাদের। বুধবার খাতড়ার খড়বন মাঠে প্রশাসনিক সভা থেকে জেলা প্রশাসনকে পানীয় জলের সমস্যা সমাধানের নির্দেশ দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, জল নিয়ে যেন সমস্যা না হয়। আমি ডিএমদের আগে থেকে তা দেখে রাখতে বলব। এই দু’-তিনমাস কষ্ট হলেও জল যাতে সবাই পায় দেখতে হবে। জল প্রকল্প তৈরিতে মুখ্যমন্ত্রী এদিন সভা থেকে রাজ্যের ভূমিকার কথা তুলে ধরেন। একইসঙ্গে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারকে আক্রমণ করেন।
তিনি বলেন, জল স্বপ্ন মানে ঘরে ঘরে জল দেওয়া। বাঁকুড়া জেলার জন্য সাত লক্ষ ৪১ হাজার বাড়িতে আমাদের লক্ষ্যমাত্রা ঠিক হয়েছে। বাড়ি বাড়ি জল পৌঁছে যাবে। তার মধ্যে চার লক্ষ বাড়িতে ইতিমধ্যেই আমরা জল পৌঁছে দিয়েছি। অথচ বিজেপির নেতারা বলে তারা নাকি করছে। মমতা বিজেপিকে প্রশ্ন ছুড়ে বলেন, কীভাবে করছেন? জল প্রকল্পের জন্য জমি কে দিয়েছে? আমি দিয়েছি। ৪০ শতাংশ টাকা আমরা দিচ্ছি। পাইপ আমরা দিচ্ছি। রক্ষণাবেক্ষণ আমরা করছি। ওরা খালি ভাষণ দিচ্ছে। তিনি আরও বলেন, আমার জঙ্গলমহল আগে কাঁদত। এখন হাসছে। আমার জঙ্গলমহলকে সকলে ভালো রাখবেন। 
মুখ্যমন্ত্রী সভামঞ্চ থেকে বলেন, বাঁকুড়া, বিষ্ণুপুর, সোনামুখী পুরসভায় ১৬৪ কোটি টাকা খরচে তিনটি পানীয় জল প্রকল্প গড়ে তোলা হয়েছে। ১ হাজার ১১ কোটি টাকার বেশি খরচ করে বাঁকুড়া-১, বাঁকুড়া-২, বড়জোড়া, শালতোড়া, ছাতনা, খাতড়া, হীড়বাঁধ, রানিবাঁধ, ওন্দা, ইন্দাস, সিমলাপাল, সারেঙ্গা, বিষ্ণুপুর ব্লকে গড়ে তোলা হয়েছে বড় বড় পানীয় জল প্রকল্প। ইতিমধ্যেই এর ফলে বহু মানুষ উপকৃত হয়েছেন। ১ হাজার ৭৮ কোটি টাকার বেশি খরচ করে ইন্দপুর, তালডাংরা, মেজিয়া এবং গঙ্গাজলঘাটিতে গড়ে তোলা হয়েছে বড় পানীয় জল প্রকল্প। এটা শেষ হয়ে গেলে এখানেও বহু মানুষ জল পাবেন।
উল্লেখ্য, বাঁকুড়ায় প্রতি বছর বাসিন্দাদের জল কষ্টে ভুগতে হয়। বাড়ির কুয়োর জল শুকিয়ে আসে। টিউবওয়েলগুলিও বিকল হয়ে পড়ে। এছাড়া বাড়ি বাড়ি জল সংযোগগুলিতেও সমস্যা দেখা দেয়। বিগত বছরে এনিয়ে প্রায়ই ক্ষোভ বিক্ষোভের ঘটনা ঘটেছে। বাঁকুড়ার জলের সমস্যার কথা ভেবে মুখ্যমন্ত্রী এদিন প্রশাসনকে বিশেষ নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি রাজ্যের সব জেলাশাসককেই জলের সমস্যা সমাধানের নির্দেশ দিয়েছেন।

29th     February,   2024
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ