বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দক্ষিণবঙ্গ
 

আলু খেত পাহাড়া দিতে গিয়ে বিপত্তি, শালবনীতে হাতির হানায় জোড়া মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিনিধি, মেদিনীপুর ও সংবাদদাতা, ঝাড়গ্রাম: জমিতে রয়েছে আলু। ফসল ঘরে তোলার জন্য দিন গুণছেন চাষিরা। সেই ফসল রক্ষা করতে গিয়েই হাতির হানায় মৃত্যু হল শালবনীর দুই চাষির। মাত্র কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে দুই চাষির মৃত্যু ঘিরে ব্যাপক আতঙ্ক তৈরি হয়েছে। এনিয়ে চাষিদের মধ্যে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। বনদপ্তর জানিয়েছে, মৃতদের পরিবারকে নিয়ম মেনে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে।
বনদপ্তর ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, বুধবার সন্ধ্যায় হাতির হানায় শালবনীর ভাদুতলা রেঞ্জের কালীবাসা এলাকায় টুকেশ্বর মাণ্ডির(৫৫) মৃত্যু হয়। রাতে কালীবাসা থেকে মাত্র এক কিলোমিটার দূরেই নোনাশোলে হাতির হানায় মৃত্যু হয় ভাস্কর কিস্কুর(৪১)। দু’জনেরই হাতির হানার হাত থেকে ফসল বাঁচাতে গিয়ে মৃত্যু হয়েছে। বনদপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, বুধবার সন্ধ্যা হতেই কালীবাসা এলাকায় প্রায় আট থেকে ১০টি হাতি আলু জমিতে নেমে পড়ে। বাড়ির কাছেই সামান্য কিছু জমিতে আলু চাষ করেছিলেন টুকেশ্বরবাবু। ফসল তোলার মুখে হাতির হানার খবরেই শঙ্কিত হয়ে পড়েছিলেন। ফসল রক্ষা করতে হাতি তাড়াতে ছুটে ছিলেন। মাঠে যাওয়ার পথে তিনি হাতির মুখে পড়ে যান। হাতির আক্রমণে তিনি গুরুতর জখম হন। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাঁকে উদ্ধার করে মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সময় পথেই তাঁর মৃত্যু হয়।
এই ঘটনার কিছুক্ষণ পরেই হাতির আক্রমণের মুখে পড়েন ভাস্কর কিস্কু। ভাস্করবাবুর বাড়ি কালীবাসার পাশের গ্রাম নোনাশোলে। তিনি আলু তুলে জমিতে জড়ো করে রেখেছিলেন। রাতে তিনি এক সঙ্গীকে নিয়ে জমি পাহারা দিচ্ছিলেন। হঠাৎ তাঁদের দিকে একটি দাঁতাল তেড়ে আসে। হাতির আক্রমণে ভাস্করবাবুর মৃত্যু হয়। অল্পের জন্য তাঁর সঙ্গী রক্ষা পান। 
একই রাতে হাতির হানায় জোড়া মৃত্যুর ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। তড়িঘড়ি হাতিগুলিকে চাঁদড়ার দিকে তাড়ানোর চেষ্টা করে বনদপ্তরের হুলা পার্টি। ভোররাতে হাতিগুলিকে কংসাবতী পার করে ঝাড়গ্রামে পাঠাতে সক্ষম হয় বনদপ্তর। 
ভাদুতলার রেঞ্জার শুভাশিস চৌধুরী বলেন, বুধবার হাতির হানায় দু’জনের মৃত্যু হয়েছে। দুই পরিবারকেই ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে। আমরা জানি, মৃত্যুর ক্ষতিপূরণ টাকা দিয়ে করা যায় না। তবে, আমরা ক্ষতিগ্রস্ত দুই পরিবারের পাশে রয়েছি।
প্রসঙ্গত, গত সোমবারই হাতির আক্রমণে চন্দ্রকোণার ধামকুড়িয়া গ্রামের বাসিন্দা প্রদীপ ঘোষের(৪৮)  মৃত্যু হয়েছিল। বুধবার তাঁর পরিবারকে পাঁচ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়া হয়। 
দু’জনের মৃত্যু ছাড়াও বুধবার গোয়ালতোড়ের পাটাশোল বিট এলাকায় হাতির হামলায় কয়েকটি ঘরবাড়ি ভেঙেছে। ঝাড়গ্রামের জামবনী রেঞ্জের চিচিড়াবিটের বিভিন্ন এলাকায় বুধবার সন্ধ্যা থেকে তাণ্ডব চালায় সাতটি হাতি। আইড়াধরা, শাবলমারা এলাকায় জমির ধান ও সব্জি চাষের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। পড়শুলি গ্রামের অনুপ মাহাত, শাবলমারার ভবেশ মাহাত বলেন, বিঘার পর বিঘা জমির ধান ও সব্জি খেয়ে, পায়ে মাড়িয়ে নষ্ট করেছে হাতির দল। তাঁদের অভিযোগ, এলাকায়  হুলা পার্টি মোতায়েন ছিল না। বনদপ্তর আগে সতর্ক হলে চাষিদের এই ক্ষতি হতো না।

23rd     February,   2024
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ