বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দক্ষিণবঙ্গ
 

পুরুলিয়া তৃণমূলের জেলা সভাপতির নির্দেশ ঘিরে পার্টির অন্দরেই বিতর্ক

সংবাদদাতা, পুরুলিয়া: জেলা পরিষদে প্রকল্প জমা দিতে হলে নিতে হবে দলের জেলা সভাপতি ও জেলা নেতৃত্বের অনুমোদন। দলের অনুমোদন ছাড়া কোনও প্রকল্পই কার্যত জমা দেওয়া যাবে না জেলা পরিষদে। তৃণমূল কংগ্রেসের পুরুলিয়া জেলা নেতৃত্বে এরকম ফরমানে বিতর্ক শুরু হয়েছে জেলা পরিষদের অন্দরে। দলের সঙ্গে সামঞ্জস্য বজায় রাখতেই আলোচনা করে প্রকল্প জমা দেওয়ার কথা বলা হয়েছে বলে দাবি তৃণমূল কংগ্রেসের পুরুলিয়া জেলা সভাপতির।
তৃণমূল কংগ্রেসের পুরুলিয়া জেলা সভাপতি সৌমেন বেলথরিয়া বলেন, কোনও ফরমান জারি করা হয়নি। বিগত বোর্ডে অনেক সময় দলের সঙ্গে আলোচনা না করেই অনেক সদস্য প্রকল্প জমা দিয়েছিলেন। ফলে প্রয়োজন নেই, এমন জায়গার জন্যও প্রকল্প জমা পড়েছিল। কোথাও আবার দেখা গিয়েছে, যেখানে ওই প্রকল্পের প্রয়োজন, তার পরিবর্তে অন্যত্র তা জমা পড়েছে। এলাকার মানুষ এবং দলের সঙ্গে আলোচনা না করার জন্যই এরকমটা হয়েছে বলে মনে হয়। পুরুলিয়া জেলা পরিষদে এবার অনেক নতুন সদস্য রয়েছেন। তাই জেলা পরিষদের সদস্যদের বলা হয়েছে, প্রকল্পগুলি জমা দেওয়ার আগে দলের সঙ্গে আলোচনা করতে হবে। এতে বোঝা যাবে, ওই এলাকায় সেই প্রকল্পের প্রয়োজন আছে কি না। 
উল্লেখ্য, বিগত বোর্ডে সৌমেনবাবুও জেলা পরিষদের কর্মাধ্যক্ষ ছিলেন। এবিষয়ে জেলা পরিষদের সহ সভাধিপতি তথা প্রাক্তন সভাধিপতি সুজয় বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, বিগত পাঁচ বছরে বোর্ডে যদি এত ভুল হয়ে থাকে, তাহলে এবারের পঞ্চায়েত নির্বাচনে এত ভালো ফল হল কী করে? তাছাড়া বর্তমান জেলা সভাপতি বিগত বোর্ডে কর্মাধ্যক্ষ থাকাকালীন তৎকালীন জেলা সভাপতিকে সবকিছু জানাননি কেন? প্রায় দেড় বছর তো নিজেও কর্মাধ্যক্ষ থাকাকালীন জেলা সভাপতি ছিলেন। তাহলে সে সময় এরকম ফরমান জারি করেননি কেন? এই ফরমানের উদ্দেশ্য, নিজের একাধিপত্য কায়েম করা। এ ধরনের ফরমান মানতে পারব না। 
এবিষয়ে পুরুলিয়া জেলা পরিষদের সভাধিপতি নিবেদিতা মাহাত বলেন, দলের কাছে প্রকল্প জমা দেওয়ার বিষয়টি বাধ্যতামূলক নয়। দলের পক্ষ থেকে সব স্তরে আলোচনা করে প্রকল্প জমা দেওয়ার কথা বলা হয়েছে, একথা ঠিক। জেলা পরিষদে এবার অনেক নতুন সদস্য রয়েছেন।  অনেকে ঠিকমতো প্রকল্প জমা দিতে পারছেন না। কোথাও কম ফান্ড থাকলে বেশি টাকার প্রকল্প জমা দিয়ে ফেলছেন। আবার উল্টোটাও হচ্ছে। এ ধরনের সমস্যা যাতে না হয়, তার জন্যই দলের সঙ্গে আলোচনা করে প্রকল্প জমা দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। এই সমস্ত প্রকল্পের ক্ষেত্রেও দলের মতামত অবশ্যই অগ্রাধিকার পাবে। এতে বিতর্কের কিছু নেই।  সৌমেন বেলথরিয়া।

6th     December,   2023
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ