বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
দক্ষিণবঙ্গ
 

মাঠে পড়ে কাটা আমন ধান, বৃষ্টির আশঙ্কায় চিন্তিত কাটোয়ার চাষিরা

সংবাদদাতা, কাটোয়া: ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে মঙ্গলবার সকাল থেকেই মেঘলা আকাশ। কাটোয়ার বিভিন্ন জায়গায় কয়েক ফোঁটা বৃষ্টিও পড়েছে। মহকুমাজুড়ে এখনও মাঠেই পড়ে রয়েছে কাটা ধান। মাঠ থেকে সেগুলি প্রতিদিনই খামারে নিয়ে আসা হচ্ছে। তবুও বৃষ্টির আশঙ্কায় শঙ্কিত চাষিরা। এমনিতেই এবার পোকায় বহু ধান নষ্ট করেছে। তার উপরে খেতে খামারে পড়ে রয়েছে আমন ধান, তাতেই আশঙ্কা চাষিদের।
মহকুমা কৃষিদপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, কাটোয়া মহকুমায় এবার ৭৪ হাজার ৮৮৫ হেক্টর বিঘা জমিতে আমন চাষ হয়েছে। যারমধ্যে কাটোয়া-১ ব্লকে ১১ হাজার ৬০৫ হেক্টর, কাটোয়া-২ ব্লকে ১১ হাজার ৮৯০ হেক্টর, কেতুগ্রাম-১ ব্লকে ১৩ হাজার ৪০০ হেক্টর, কেতুগ্রাম-২ ব্লকে ১১ হাজার ৪৩০ হেক্টর ও মঙ্গলকোট ব্লকে ২৬ হাজার ৫৬০ হেক্টর জমিতে আমন চাষ হয়েছে। এবার মাজরা পোকার আক্রমণে সব ব্লকেই বহু জমিতে ফসল নষ্ট হয়েছে। ফলন খুব একটা ভালো হয়নি মহকুমায়। এখন প্রায় ৭৫ শতাংশ জমিতেই ধান কাটা হয়ে গিয়েছে। মাঠ থেকে ধান বাড়িতে নিয়ে আসার প্রক্রিয়াও শুরু হয়েছে। তার উপরে বৃষ্টি পড়লে সব ধান ভিজে যাওয়ার আশঙ্কা করছেন চাষিরা। 
কাটোয়ার বাঁদরা গ্রামের চাষি ব্রজগোপাল ঘোষ বলেন, এবার পাঁচ বিঘা জমিতে আমন ধান চাষ করেছি। মাজরা পোকা অনেক ধান নষ্ট করেছে। এখনও সব ধান গোলায় তুলতে পারিনি। তার উপরে বৃষ্টি হলে শ্রমিকের মজুরি উঠবে না। কেতুগ্রামের চাষি মিনহাজউদ্দিন শেখ বলেন, আমরা এবার দুই ভাই মিলিয়ে প্রায় ৮ বিঘা জমিতে চাষ করেছিলাম। তারমধ্যে মাত্র দু’বিঘা জমির ধান গোলায় তুলতে পেরেছি। কিন্তু শুনছি বৃষ্টি হতে পারে। তাহলে বাকি ধান মাঠেই ভিজবে। আরেক চাষি বলেন, সারের যা দাম, তার উপরে সাড়ে চারশো টাকা মজুরিতে শ্রমিক এসেছে। ধান পোকায় নষ্ট করেছে। তাই খরচ উঠবে কি না, তাই নিয়ে চিন্তা হচ্ছে। এদিকে কৃষিদপ্তর জানিয়েছে, বৃষ্টি সেভাবে হওয়ার আশঙ্কা নেই। চাষিদের দুশ্চিন্তারও কোনও কারণ নেই। 

6th     December,   2023
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ