Bartaman Patrika
বিশেষ নিবন্ধ
 

করোনাকে মওকা ধরেই তৎপর জঙ্গি গোষ্ঠীগুলো
হারাধন চৌধুরী

৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলের পর থেকে পাক সীমান্তে ভারতের নজরদারি অনেক বেড়েছে এবং কঠোর হয়েছে। এটা আরও করতে হয়েছে পাকিস্তান ও চীনের ঘনিষ্ঠতা অভূতপূর্ব হয়ে ওঠার কারণে। কিন্তু পাকিস্তান তো হাল ছেড়ে দেওয়ার বান্দা নয়। চীন তো পাশেই আছে। অতএব পাকিস্তান চীনা প্রযুক্তিকে হাতিয়ার করেই ভারতের ক্ষতি করার অ্যাজেন্ডা অব্যাহত রেখেছে। করোনার ধাক্কায় সারা পৃথিবী টলোমলো। তাই ভাবা গিয়েছিল যে এবার অন্তত, কিছুদিনের জন্য হলেও, পাকিস্তান সংযত
হবে এবং সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপে একটা বিরতি আসবে। কিন্তু তা হয়নি। উল্টে সীমান্তে সংঘর্ষ বাড়িয়ে দিয়েছে পাকিস্তান। সম্প্রতি রাজ্যসভায় তথ্য পেশ করেছেন প্রতিরক্ষা রাষ্ট্রমন্ত্রী শ্রীপদ নায়েক: গত ৭ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত চলতি বছরে পাকিস্তান ৩,১৮৬ বার সংঘর্ষ বিরতি লঙ্ঘন করেছে। ১৭ বছরের মধ্যে সর্বাধিক। গত আগস্ট পর্যন্ত এবছর ২৪২ বার গোলাগুলি চালিয়েছে তারা, জম্মু লাগোয়া আন্তর্জাতিক সীমান্তে। তাতে ৮ ভারতীয় জওয়ান শহিদ হয়েছেন এবং দু’জন জখম হয়েছেন। মহিলা ও শিশুসহ অনেক নিরীহ গ্রামবাসীও হতাহত হয়েছেন। এখানেই থামেনি পাকিস্তান। রকমারি জঙ্গি গোষ্ঠীর মাধ্যমে ছায়াযুদ্ধটাও অব্যাহত রেখেছে।   
মার্চের গোড়ার দিকে ‘হু’ কোভিড-১৯ প্যানডেমিক ঘোষণার পরই নড়েচড়ে বসে আইসিস। তাদের সাপ্তাহিক নিউজ লেটার ‘আল-নবা’ মারফত তারা শরি’ই নির্দেশ পাঠায় যে, ‘করোনা হইতে সাবধান’। আল্লাহর উপর ভরসা রাখার পাশাপাশি মাস্ক পরা-সহ স্ট্যান্ডার্ড স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে মেনে চলতেই বলা হয়। হুঁশিয়ার করা হয়, কোনওভাবেই সংক্রামিত হওয়া চলবে না। মহামারী ছড়িয়ে পড়া এলাকাতে কেউ ঢুকবে না। 
এটা থেকেই নিশ্চয় কেউ কেউ বিভ্রান্ত ও আশাবাদী হয়ে উঠেছিলেন। কিন্তু ভুল ভাঙতে খুব দেরি হয়নি। আফ্রিকা, আফগানিস্তান-সহ নানা জায়গায় ছোট বড় জঙ্গি নাশকতা ঘটিয়েই তারা এই ভুল ভাঙিয়ে দেয়। জর্জ ওয়াশিংটন ইউনিভার্সিটিতে সন্ত্রাসবাদী কাজকর্মের উপর গবেষণা বিভাগের ডিরেক্টর আলেকজান্দার মালেয়াগ্রৌ-হিচেনস সম্প্রতি ওয়াশিংটন টাইমস-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে দাবি করেছেন, তারা বরং জিহাদিদের উদ্দেশে এই বার্তা রটিয়ে দিয়েছে যে,
শত্রু এবং নাস্তিকদের শায়েস্তা করার জন্য করোনা আসলে ঈশ্বর প্রেরিত একটা সুযোগ। এটাকে কাজে লাগাতে হবে। আমেরিকার ফাউন্ডেশন ফর ডিফেন্স অফ ডেমোক্রেসিজ-এর বিশিষ্ট ডিফেন্স অ্যানালিস্ট বিল রোজিও বলেন, তালিবান এবং আল কায়েদার মতো কিছু সন্ত্রাসবাদী সংগঠন প্রচার করছে যে,
করোনা হল অধঃপাতে যাওয়া পশ্চিমি সংস্কৃতির বিরুদ্ধে ঈশ্বরের এক চরম আঘাত। তারা মনে করে, আমেরিকা, ভারত এবং আফ্রিকা ও ইউরোপের কিছু দেশে হামলা করার এটাই সুবর্ণ সুযোগ। এই সময় আঘাত হানতে পারলে সবচেয়ে বেশি ক্ষতি করা যাবে। কারণ, এই দেশগুলোর সরকার, এবং আর্মিও করোনা মোকাবিলা নিয়ে এখন ব্যতিব্যস্ত।
সম্প্রতি ইউরেশিয়ান টাইমস এক রিপোর্টে জানিয়েছে, এই মুহূর্তে আল কায়েদার প্রধান লক্ষ্য ভারতের উপর আঘাত হানা—বিশেষভাবে কাশ্মীর অঞ্চলে। অযোধ্যায় রাম জন্মভূমিতে মন্দিরের শিলান্যাসের দিন (৫ আগস্ট) পাক মদতপুষ্ট জঙ্গিরা হামলার হামলার ব্লু প্রিন্ট সাজিয়ে ফেলেছিল বলে ভারতের গোয়েন্দা সংস্থা ‘র’-এর কাছে খবর ছিল। তাদের কাছে আরও খবর ছিল, এজন্য খান পাঁচেক জঙ্গি টিমকে আফগানিস্তানে ট্রেনিং দিয়ে রেডি করা হয়েছিল। লস্কর এবং জইশের ছেলেদের ওই ট্রেনিং দিয়েছিল পাকিস্তানের আইএসআই এক্সপার্টরা। উল্লেখ্য, গত বছর ৫ আগস্ট তারিখেই কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা বাতিল করা হয়েছিল। তাই একই দিনে কাশ্মীর এবং দিল্লিতেও হামলার প্ল্যান করেছিল পাকিস্তান। সৌভাগ্য যে ভারতের তৎপরতায় পুরোটাই বানচাল হয়ে গিয়েছে।    
বছর খানেক ধরে একটা ট্রেন্ড লক্ষ করা যাচ্ছে, জঙ্গি ও বিচ্ছিন্নতাবাদীদের হাতে অস্ত্র পৌঁছে দিতে পাকিস্তান এখন ড্রোনের উপরেই ভরসা রেখেছে। ড্রোনে চেপে সীমান্ত পেরিয়ে কাশ্মীর উপত্যকার গ্রামে গ্রামে ছড়িয়ে পড়ছে একে-৪৭, প্রচুর কার্তুজ, অ্যাসল্ট রাইফেল, পিস্তল সহ নানা ধরনের আগ্নেয়াস্ত্র। গত ২২ সেপ্টেম্বর রাতে আখনুরের জাদ-সোহাল গ্রামে স্থানীয় পুলিস এরকম কিছু অস্ত্রশস্ত্র বাজেয়াপ্ত করেছে। এসে পৌঁছেছে মোট দু’টো কনসাইনমেন্টে। এই নষ্টামিতে কুখ্যাত জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মহম্মদের যোগ রয়েছে। প্রমাণ পেয়েছে পুলিস। উল্লেখ্য, হাড় হিম করা পুলওয়ামা হামলা এই সংগঠনেরই কুকীর্তি। তবে শুধু কাশ্মীর নয়, ফের পাঞ্জাবকেও টার্গেট করেছে পাকিস্তান। গত অক্টোবরে পাক সীমান্ত লাগোয়া পাঞ্জাবের গ্রামেও পাওয়া যায় একে-৪৭ রাইফেল, গ্রেনেড এবং স্যাটেলাইট ফোন। বিএসএফ নিশ্চিত যে পাকিস্তানি ড্রোনের মাধ্যমেই ওগুলো এদেশে এনে ফেলা হয়েছিল। ফের সক্রিয় হয়ে উঠেছে নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন ‘খালিস্তান জিন্দাবাদ ফোর্স’ (কেজেডএফ)। ভারতের স্বাধীনতা দিবসের প্রাক্কালে গত ১৪ আগস্ট পাঞ্জাবের মোগা জেলায় রাজ্য সরকারি অফিসের মাথায় দুষ্কৃতীরা ‘খালিস্তানি পতাকা’ তোলে। সেই অভিযোগে দিল্লি পুলিসের স্পেশাল সেল দুই যুবককে গ্রেপ্তার করেছে।
পুলিসের দাবি, ধৃতরা কেজেডএফ-এর সক্রিয়
সদস্য। আমেরিকা ভিত্তিক বিচ্ছিন্নতাবাদী সংগঠন ‘শিখস ফর জাস্টিস’(এসএফজে)-এর সঙ্গেও
তারা যুক্ত। এসএফজে পাঞ্জাব রাজ্যকে ভারতের থেকে বিচ্ছিন্ন করতে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ।
খালিস্তানি উগ্রপন্থী সন্দেহে ১৫ সেপ্টেম্বর পাঞ্জাব পুলিস দু’জনকে ইউএপিএ-তে গ্রেপ্তার করেছে। আরও পাঁচ খালিস্তানি জঙ্গির সঙ্গে এরা এক গভীর ষড়যন্ত্রে যুক্ত বলে দাবি করেছেন পাঞ্জাব পুলিসের ডিজি দীনকর গুপ্ত। তাঁর আরও দাবি, ওই পাঁচজনের মধ্যে রয়েছে অমৃতসর জেলে বন্দি কেজেডএফ সদস্য শুবদীপ সিং। এরা সকলেই পাকিস্তানের মদতপুষ্ট খালিস্তানি জঙ্গি মডিউলের অংশ। এদের হেফাজত থেকে বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে অনকেগুলো ভয়ানক অস্ত্রশস্ত্র ও ইলেক্ট্রনিক সরঞ্জাম। চীনের তৈরি একটা ড্রোন উদ্ধারের সূত্রে ২০১৯-এর সেপ্টেম্বরে শুবদীপকে গ্রেপ্তার করা হয়। তখন এনআইএ-র কাছে খবর ছিল যে কেজেডএফ প্রধান রণজিৎ সিং পাকিস্তান থেকে আগ্নেয়াস্ত্র, বিস্ফোরক এবং জাল নোট ড্রোনের মাধ্যমে ভারতে ঢোকাচ্ছে। সেই থেকেই বিশেষভাবে সতর্ক রয়েছে জম্মু ও কাশ্মীর, পাঞ্জাব, হরিয়ানা এবং দিল্লি পুলিস। তাদের মিলিত গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতেই গত ১৫ সেপ্টেম্বর অমৃতসরের কাছ থেকে হরজিৎ সিং এবং শমশের সিং নামে দু’জনকে পাকড়াও করা হয়। পাঞ্জাব পুলিসের দাবি, এই সাকসেসফুল অপারেশনের দৌলতে একটা বড় ধরনের জঙ্গি হামলার ঘটনা রুখে দেওয়া গেল। 
সম্প্রতি কেরল এবং মুর্শিদাবাদে এনআইএ-র হাতে ন’জন সন্দেহভাজন জঙ্গি পাকড়াও হওয়ার ঘটনাকেও একটা বড় সাফল্য হিসেবে দেখতে হবে। কারণ, বিশ্বজুড়ে শান্তি বিঘ্নিত করার যে চক্রান্ত জারি রয়েছে, এরা তারই অংশ হতে পারে। অবশ্য এটা নিয়ে, বিশেষ করে বাংলায় যে রাজনৈতিক তরজা চলছে তা অনভিপ্রেত। বুঝতে অসুবিধা হয় না, এই তরজার লক্ষ্য মে, ২০২১। একের পর এক জঙ্গি কার্যকলাপ এটাই বুঝিয়ে দিচ্ছে যে, করোনা মোকাবিলার পাশাপাশি জঙ্গি মোকাবিলার সমস্ত ধরনের কর্মসূচিও অব্যাহত রাখতে হবে। বরং জঙ্গি মোকাবিলায় গুরুত্ব বাড়ানো জরুরি। মনে রাখতে হবে, এজন্য ধর্মীয় বিদ্বেষ বা ভেদাভেদ একেবারেই ভুল পথ, ভুল পদক্ষেপ। একটি শ্রেণীকে অকারণ শত্রুভাবাপন্ন করে তুললে কাজটা বরং জটিল ও কঠিন হয়ে যাবে। এসময় ভেদাভেদ দূর করার উপরেই বেশি গুরুত্ব দিতে হবে। এই কাজে মোদি সরকার আন্তরিক হলে বিশ্বাসযোগ্য করে তুলতে হবে প্রধানমন্ত্রীর ‘সবকা সাথ সবকা বিশ্বাস’-এর ঘোষণাটাকে। এই প্রসঙ্গে সম্প্রতি কেন্দ্রের তরফে নেওয়া কাশ্মীর প্যাকেজের উল্লেখ করা যায়: জম্মু ও কাশ্মীরের ব্যবসায়ীদের জন্য ১,৩৫০ কোটি টাকার আর্থিক প্যাকেজ নেওয়া হয়েছে। জায়গা বিশেষে এই ধরনের পদক্ষেপ আরও বাড়ানো উচিত। তেলেঙ্গানা, অন্ধ্রপ্রদেশ, ছত্তিশগড়, ওড়িশা, ঝাড়খণ্ড, পশ্চিমবঙ্গ প্রভৃতি রাজ্যে মাওবাদী কার্যকলাপের ধারভার নষ্ট করতেও এই ধরনের প্যাকেজ একটা ভালো পথ। সতর্ক থাকতে হবে উত্তর-পূর্বাঞ্চলের জঙ্গি গোষ্ঠীগুলো সম্পর্কেও। কারণ, ইসলামি, শিখ, মাওবাদী এবং অন্য ধারার বিচ্ছিন্নতাবাদীরাও এই মওকায় ঘনিষ্ঠ হতে চাইবেই। আরও বেশি করে পাশে রাখা দরকার বন্ধু প্রতিবেশী বাংলাদেশ, মায়ানমার, ভুটান ও নেপালকে। 
24th  September, 2020
ইতিহাস কি আবার
তালিবানের পক্ষে?
মৃণালকান্তি দাস

প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে আফগান শান্তি আলোচনায় একধাপ এগনো দরকার। যা ট্রাম্পকে নির্বাচনী যুদ্ধের প্রচারে এগিয়ে রাখবে। ট্রাম্প দেখাতে চাইছেন, দেশকে ১৯ বছরের যুদ্ধ থেকে মুক্তি দিচ্ছেন তিনি। এর জন্য ওই অঞ্চলের সব খেলোয়াড়কে তারা ‘শান্তি প্রক্রিয়া’য় শামিল করতে চায়। বিশদ

স্বাবলম্বী শরীর কোভিড রুখতে সক্ষম
মৃন্ময় চন্দ 

সারা পৃথিবী আশঙ্কিত। অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিনটির তৃতীয় পর্যায়ের মানব শরীরে পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলাকালীন হঠাৎই এক স্বেচ্ছাসেবক গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। গোটা পৃথিবীর বিশ্বাস অক্সফোর্ডের ‘কোভিশিল্ডেই’ মিলবে করোনার হাত থেকে নিষ্কৃতি।  
বিশদ

23rd  September, 2020
বারবার তাঁর হাতে দেখি মৃত্যুর পরোয়ানা 
সন্দীপন বিশ্বাস

আমাদের স্কুলের এক শিক্ষক বলতেন, যে একবার ভুল করে, সে অজ্ঞতা থেকে করে। তিনবার পর্যন্ত ভুল অজ্ঞতা থেকে হতে পারে। কিন্তু কেউ যদি বারবার ভুল করতে থাকে, তবে বুঝতে হবে, সে ইচ্ছে করেই ভুল করছে এবং তার পিছনে কোনও দুরভিসন্ধি আছে। প্রতিটি ক্ষেত্রে মোদিমশাইয়ের বারবার ভুল করা দেখে সেই শিক্ষকের কথা মনে পড়ে গেল। 
বিশদ

23rd  September, 2020
কৃষি সংস্কার: দেখনদারির
মোড়কে আশঙ্কার মেঘ
শান্তনু দত্তগুপ্ত 

ভূতনাথ পাল। কেতুগ্রামের বিল্বেশ্বর এলাকায় বাড়ি ছিল তাঁর। অনেক কষ্টে ধারদেনায় ডুবে আলুচাষ করেছিলেন। ভেবেছিলেন, এখন আলুর বাজারটা ভালো যাচ্ছে। ক’টা দিন তো কষ্ট... তারপরই সুদিন আসবে। সুদিন মানে, দু’বেলা দু’মুঠো...। 
বিশদ

22nd  September, 2020
এবার মহালয়ার ৩৫ দিন পর
দুর্গাপুজো কেন, কী বলছে শাস্ত্র?
জয়ন্ত কুশারী
 

এবার মহালয়ার ৩৫ দিন পর দুর্গাপুজো কেন, কী বলছে শাস্ত্র?
‘মা বুঝি চইলাছে কোয়ারেন্টিনে...’ বরেণ্য লোকগীতি শিল্পী অমর পাল জীবিত থাকলে বুঝি এমনটাই গাইতেন। যদিও তিনি গেয়েছিলেন, ‘মা বুঝি কৈলাসে চইলাছে...’ 
মহালয়া থেকে সপ্তমী, দিন পঁয়ত্রিশের এই ব্যবধান পাল্টে দিল এমন একটি গানের লাইন। আসলে মানুষের মুখে মুখে এখন যে ফিরছে এই কথাটি। 
বিশদ

21st  September, 2020
কেন্দ্রের কথার খেলাপ, রাজ্যগুলোর অর্থাভাব
পি চিদম্বরম

কর ব্যবস্থার ক্ষেত্রে পণ্য ও পরিষেবা কর (জিএসটি) একটা ভয়ানক লড়াই হয়ে উঠেছে। যে অর্থনীতিতে পূর্বাহ্নেই দ্রুত পতনের সূচনা হয়েছিল, সেটা যখন মহামারীতে আরও বিধ্বস্ত হল তখন কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে বিরাট বিচক্ষণতার পরিচয় দেওয়া উচিত ছিল। 
বিশদ

21st  September, 2020
অর্থনীতিই নয়, ভয়াবহ বিপর্যয় বিদেশনীতিরও
হিমাংশু সিংহ

২০১৪ থেকে ২০২০। মাঝে মাত্র ৬ বছর। দুর্বল না হয়ে দেশের প্রধানমন্ত্রী শক্তিশালী একনায়ক হলে রাষ্ট্রের বিপদ কী কী? এই ক’বছরেই তার মোক্ষম উত্তর পেয়ে গিয়েছে দেশ। এমনকী পরিস্থিতি আজ এমন জায়গায় দাঁড়িয়েছে যে, এক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী সরকারি অনুষ্ঠানে দাঁড়িয়ে নরেন্দ্র দামোদরদাস মোদির সঙ্গে নরেন্দ্রনাথ দত্তের তুলনা টানছেন বুক ফুলিয়ে।  
বিশদ

20th  September, 2020
কুকথায় হাততালি জুটলেও
দূরে সরে যায় মানুষ 
তন্ময় মল্লিক

রুটি সেঁকার জন্য তাওয়া গরম করতে হয়। আবার সেই তাওয়া বেশি তেতে গেলে রুটি যায় পুড়ে। তখন খাবারের থালার বদলে রুটির জায়গা হয় ডাস্টবিনে। রাজনীতিতেও তেমনটাই। কর্মীদের চাঙ্গা করার জন্য নেতারা গরম গরম ভাষণ দেন। কিন্তু তা মাত্রা ছাড়ালে মানুষ মুখ ফিরিয়ে নেয়।  
বিশদ

19th  September, 2020
বাংলার সমাজ ও
রাজনৈতিক সন্ধিক্ষণ
সমৃদ্ধ দত্ত

সেদিন বিকেলে তাঁকে ভেন্টিলেটরে নিয়ে যাওয়া হবে। কারণ, প্রবল শ্বাসকষ্ট। অক্সিজেন দিলেও কাজ হচ্ছে না তেমন। এইমস ডাক্তাররা বুঝলেন পরিস্থিতি ভালো নয়। অনেকদিন হয়ে গেল কোভিডে আক্রান্ত হয়েছিলেন।   বিশদ

18th  September, 2020
‘এক ভারত, শ্রেষ্ঠ ভারত’-এর
রূপকার নরেন্দ্র মোদি
যোগী আদিত্যনাথ

রাজা কালস্য কারণম্‌। মহাভারতের ‘শান্তিপর্ব’-এ যুধিষ্ঠিরকে উপদেশ দিতে গিয়ে পিতামহ ভীষ্ম এই কালজয়ী কথাটি বলেছিলেন। কথাটি পিতামহ নিজের লোকদের বলেছিলেন বলে মনে হতে পারে। কিন্তু এর ভিতরে এই ভারতের সবার জন্যই একটি জোরালো বার্তা তিনি রেখে গিয়েছেন।  বিশদ

17th  September, 2020
কাজ দাও, মুলতুবি রাখো
গ্রেট গেরুয়া সার্কাস
হারাধন চৌধুরী

দু’দশক যাবৎ ভারতীয় মিডিয়ায় সার্কাসের এলিজি বা শোকগাথা লেখা হচ্ছে। বেশিরভাগ লেখা ভারী হয়ে উঠছে জোকারদের জন্য সহমর্মিতায়। জোকারের জীবন কঠিন। কেউ শখ করে জোকার হয় না। কারও কারও জীবনখাতায় এই ভবিতব্যই লেখা থাকে।  বিশদ

17th  September, 2020
 কোনও প্রশ্ন নয়, নো কোয়েশ্চেনস!
সন্দীপন বিশ্বাস

 মোদি, অমিত শাহ তথা বিজেপি নেমে পড়েছে বিহার জয়ে। সেখানে অবশ্য নীতীশের হাত ধরে বিজেপিকে ভোট বৈতরণী পার হতে হবে। সেখানে রাজপুত ভোট আর ক্ষত্রিয় ভোট নিজেদের বাক্সে আনতে বিজেপিকে খেলতে হল দু’টি খেলা। একজনকে ডাইনি বানানো হল, অন্যজনকে দেবী বানানো হল।
বিশদ

16th  September, 2020
একনজরে
 করোনার দ্বিতীয় দফার সংক্রমণ শুরু হয়েছে ব্রিটেনে। সংক্রমণ রুখতে স্থানীয় স্তরে বিভিন্ন জায়গায় লকডাউন জারির অনুমতি দিয়েছে কেন্দ্রীয় প্রশাসন। তবে এইভাবে লকডাউনের সাফল্য নিয়ে সংশয় প্রকাশ করে ব্রিটিশ সরকারকে চিঠি দিলেন অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা। ...

 বর্ধমান থানার মির্জাপুরে বাসের ধাক্কায় এক স্কুল ছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। মৃতের নাম জয়দীপ সুবুধি (১৫)। সে বর্ধমান শহরের মিউনিসিপ্যাল বয়েজ হাইস্কুলে পড়ত। ...

 দুই ইঞ্জিনিয়ারিং ছাত্র সহ মালদহের ১১জনকে হন্যে হয়ে খুঁজছে এনআইএ। তাদের ধরার জন্য বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশিও চালিয়েছে তারা। ওই দুই ইঞ্জিনিয়ারিং ছাত্র ডোমকল থেকে ধৃত ...

১০০ দিনের কাজ প্রকল্পে রায়দিঘির মথুরাপুর ২ ব্লকে পাতিলেবু ও আনারসের গ্রাম গড়ে তোলার পরিকল্পনা নিয়েছে প্রশাসন। স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মেয়েদেরও এই কাজে নামানো হবে। বিডিও ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

প্রেম-প্রণয়ে কিছু নতুনত্ব থাকবে যা বিশেষভাবে মনকে নাড়া দেবে। কোনও কিছু অতিরিক্ত আশা না করাই ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

বিশ্ব ফার্মাসিস্ট দিবস
১৯৩৯- অভিনেতা ফিরোজ খানের জন্ম
১৯৪৬- ক্রিকেটার বিষেণ সিং বেদির জন্ম
১৯৬৯ - বিখ্যাত বাঙালি চিত্রপরিচালক, অভিনেতা এবং নাট্যব্যক্তিত্ব মধু বসু ওরফে নাম সুকুমার বসুর মৃত্যু
১৯৯০- রাজনীতিবিদ,স্বাধীনতা সংগ্রামী গান্ধীবাদি নেতা তথা পশ্চিমবঙ্গের তৃতীয় মুখ্যমন্ত্রী প্রফুল্লচন্দ্র সেনের মৃত্যু



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭২.৯৯ টাকা ৭৪.৭০ টাকা
পাউন্ড ৯২.১৯ টাকা ৯৫.৪৭ টাকা
ইউরো ৮৪.৫২ টাকা ৮৭.৬২ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৫০,৪৫০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৪৭,৮৬০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪৮,৫৮০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৫৭,১৮০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৫৭,২৮০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৯ আশ্বিন ১৪২৭, শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, নবমী ৩৩/৬ রাত্রি ৬/৪৪। পূর্বাষাঢ়ানক্ষত্র ৩২/৩৩ রাত্রি ৬/৩১। সূর্যোদয় ৫/২৯/৪৮, সূর্যাস্ত ৫/২৬/৫৬। অমৃতযোগ দিবা ৬/১৬ মধ্যে পুনঃ ৭/৪ গতে ৯/২৯ মধ্যে পুনঃ ১১/৫৪ গতে ৩/৫ মধ্যে পুনঃ ৩/৫৩ গতে অস্তাবধি। রাত্রি ৬/১৭ গতে ৯/২৯ মধ্যে পুনঃ ১১/৫৩ গতে ৩/৫ মধ্যে পুনঃ ৩/৫২ গতে উদয়াবধি। বারবেলা ৮/২৯ গতে ১১/২৮ মধ্যে। কালরাত্রি ৮/২৮ গতে ৯/৫৮ মধ্যে।
৮ আশ্বিন ১৪২৭, শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, নবমী রাত্রি ১০/৩১। পূর্বাষাঢ়ানক্ষত্র রাত্রি ১১/৬। অমৃতযোগ দিবা ৬/২২ মধ্যে ও ৭/৮ গতে ৯/২৭ মধ্যে ও ১১/৪৬ গতে ২/৫১ মধ্যে ও ৩/৩৭ গতে ৫/২৯ মধ্যে এবং রাত্রি ৫/৫৯ গতে ৯/১৮ মধ্যে ও ১১/৪৮ গতে ৩/৭ মধ্যে ও ৩/৫৭ গতে ৫/৩০ মধ্যে। বারবেলা ৮/২৯ গতে ১১/২৯ মধ্যে। কালরাত্রি ৮/২৯ গতে ৯/৫৯ মধ্যে।
৭ শফর।

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
আপনার আজকের দিনটি
মেষ: প্রেম-প্রণয়ে কিছু নতুনত্ব থাকবে যা বিশেষভাবে মনকে নাড়া দেবে। বৃষ: ...বিশদ

04:29:40 PM

ইতিহাসে আজকের দিন
বিশ্ব ফার্মাসিস্ট দিবস১৯৩৯- অভিনেতা ফিরোজ খানের জন্ম১৯৪৬- ক্রিকেটার বিষেণ সিং ...বিশদ

04:28:18 PM

 আইপিএল: চেন্নাই সুপার কিংসকে ৪৪ রানে হারাল দিল্লি ক্যাপিটাল

11:13:05 PM

আইপিএল: চেন্নাই ১০১/৪ (১৬ ওভার) 

10:49:48 PM

আইপিএল: চেন্নাই ৪৭/৩ (১০ ওভার) 

10:14:56 PM

 আইপিএল: চেন্নাই ২৬/১ (৫ ওভার)

09:51:00 PM