বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
অমৃতকথা
 

শক্তি

মানুষ চায় শক্তি ও শান্তি। রিপুদমন ও ইন্দ্রিয়সংযম দ্বারা এই শক্তি ও শান্তি লাভ হয়, রিপুদমন ও ইন্দ্রিয়সংযম দ্বারাই এই দেহ সবল, সুস্থ ও বলিষ্ঠ হইয়া থাকে। স্নেহ-মায়া-মমতা-ভালবাসা ও বাসনাই মানুষের সবল, সুস্থ, শান্ত দেহ-মনকে দুর্ব্বল, অসুস্থ ও অশান্ত করিয়া তোলে। স্নেহ-মায়া-মমতা ও ভালবাসা হইতে অনেক রকম বাসনার অঙ্কুর উদগত হয়। তাহারই ফলে মানুষের বিবেক-বৈরাগ্য বীর্য্যবত্তা একেবারে তিরোহিত হইয়া যায়। তখন শত সহস্র রকমের কামনা-বাসনা আসিয়া চতুর্দ্দিক হইতে আক্রমণ করিয়া মানুষের ব্যক্তিত্ব, বৈশিষ্ট্য, এমন কি অস্তিত্ব পর্য্যন্ত লোপ করিয়া ফেলে। তখন মানুষ কেবল হতাশা-নিরাশা, দুঃখ-দৈন্য-দুর্ব্বলতা লইয়া বসবাস করিতে থাকে।
সব রকম বাসনার নাশ যেখানে, প্রকৃত মুক্তি সেখানে;—এই সিদ্ধান্তই সব সময় স্মরণ রাখিয়া চলিতে হয়। মানুষের সব রকম বীর্য্য-বিক্রম-পরাক্রমের বিলোপ সাধন করে—একমাত্র এই বাসনা। সুতরাং, বিবেক-বিচারদ্বারা এই বাসনার মূলকে একেবারে উৎপাটন করিয়া ফেলিতে হইবে। নিত্যনিয়ত জন্ম-জরা-মৃত্যু-ব্যাধির চিন্তা লইয়া থাকিলে ও চলিলে কোন মায়া-মোহ, বিভ্রম-বিভ্রান্তি-বিস্মৃতি মানুষকে ধরিতে ছুঁইতে, স্পর্শ করিতে পারে না। দীর্ঘকাল এইরূপ চিন্তা-ভাবনা লইয়া চলিতে পারিলে মায়ামোহের জাল ছিন্নবিচ্ছিন্ন হইয়া যায়, বিভ্রম-বিভ্রান্তি ও বিস্মৃতির ঘোর একেবারে কাটিয়া যায়। তখনই প্রকৃত শান্তি ও শক্তি মানুষের ভিতরে আসিয়া পড়ে। তখন আর জ্বালামালা, দুঃখকষ্ট, দুর্ব্বলতা আসিয়া মনকে অসুস্থ ও অশান্ত করিয়া তুলিতে পারে না।
কোনও বিবেক-বৈরাগ্যবান্‌ ব্যক্তি যদি কখনও ভ্রান্তির বশে কোনও বালক বালিকা পালন বা মৃগ, ময়ূর প্রভৃতি জীবজন্তু পোষণ করে ও ইহাদের সহিত কোনও সংশ্রব রাখে তাহা হইলে তাহার ধর্ম্মজীবন একেবারে ধ্বংস হইয়া যাইবে। মানুষ সাধনা ও তপস্যার দ্বারা যতই বিবেক-বৈরাগ্য লাভ করুক না কেন, যদি একবার তাহার ভিতরে স্নেহ-মায়া-মমতা-ভালবাসা স্থান পায় তবে তাহার সমস্ত তপঃশক্তি তপোবল নিমেষের মধ্যে নষ্ট হইয়া যাইতে পারে। কেননা, বহু বিবেক বৈরাগ্যবান্‌ ব্যক্তির তপঃশক্তি-তপোবল অনেক সময় এই স্নেহ-মায়া-মমতাকে অবলম্বন করিয়া চলার ফলেই সম্পূর্ণ নষ্ট হইয়াছে। সুতরাং প্রকৃত বিবেক-বৈরাগ্যবান্‌ ব্যক্তিকে সর্ব্বদা এই স্নেহ-মায়া-মমতা-ভালবাসা হইতে সাবধানে দূরে থাকিতে হইবে। অনবরত প্রতিনিয়ত বিবেক বৈরাগ্য, জন্ম-জরা-মৃত্যু-ব্যাধির চিন্তা লইয়া থাকিলে ও চলিলে মানুষকে আর কোন সময়ে কোন রকম দুঃখ-দুর্ব্বলতা, দুশ্চিন্তা-দুর্ভাবনা আসিয়া অভিভূত করিতে পারিবে না।
‘শ্রীশ্রী সঙ্ঘ-গীতা’ (২য় খণ্ড) ভারত সেবাশ্রম সঙ্ঘ থেকে

8th     November,   2023
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ