কলকাতা

মির্জা গালিব স্ট্রিটে যুবককে গুলি, গ্রেপ্তার ৩

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: সামান্য কারণে বচসা। উত্তপ্ত বাক্য বিনিময়। কিন্তু পরিণতি হল ভয়াবহ! বাড়ির নীচে বাইক রাখা নিয়ে দু’পক্ষের ঝামেলায় ফের গুলি চলল খাস কলকাতায়। শুক্রবার রাত ১২টা নাগাদ পার্ক স্ট্রিট থানা এলাকার মির্জা গালিব স্ট্রিটে বছর উনত্রিশের যুবককে লক্ষ্য করে গুলি চালায় এক দুষ্কৃতী। দু’টি গুলি লক্ষ্যভ্রষ্ট হলেও একটি গুলি যুবকের পায়ে লাগে। প্রাণে রক্ষা পেলেও গুরুতর জখম হন তিনি। পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে, জখম যুবকের নাম এখলাস বেগ। তাঁকে উদ্ধার করে চিত্তরঞ্জন ন্যাশনাল মেডিক্যালে ভর্তি করানো হয়। এরপরেই অভিযুক্ত দুষ্কৃতী সোনা ওরফে সোনু দলবল সহ পালিয়ে যায়। শনিবার সন্ধ্যায় এই ঘটনায় তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিস। যদিও পলাতক মূল অভিযুক্ত। সে ঝাড়খন্ডে চম্পট দিয়েছে বলে সূত্রের খবর। সেখানে তার সঙ্গে আগ্নেয়াস্ত্র কারবারিদের যোগাযোগ রয়েছে।  সোনুর বিরুদ্ধে তোলাবাজির একাধিক অভিযোগ রয়েছে। তিলজলা-তপসিয়া এলাকায়ও একাধিক অপরাধে নাম জড়িয়েছে সোনার। সে তালতলা এলাকার কুখ্যাত দুষ্কৃতী গব্বরের শ্যালকও বটে। প্রাথমিক তদন্তের পর পুলিস জানিয়েছে, এখলাসের বাড়ির নীচে বাইক রাখত সোনা। আগে-পরে বাইক রাখা নিয়ে দু’পক্ষের বিবাদের জেরেই গুলি চালানোর ঘটনা ঘটে। 
১৪, তালতলা লেনের বাসিন্দা এখলাস। একটি কল সেন্টার চালান তিনি। তাঁর বাড়ির নীচে গত মাস চারেক বাইক পার্ক করছিল অভিযুক্ত। এখলাসের বাবা সিকান্দার বেগ জানিয়েছেন, শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪টে নাগাদ বাইক রেখে বাড়িতে ঢুকতে যান এখলাস। বাইক রাখার নির্দিষ্ট জায়গায় গিয়ে তিনি দেখেন, সেখানে আগে থেকেই সোনার বাইক রাখা। পাশেই বসেছিল সোনা। তাকে তার বাইক সরাতে বললে সে বলে, ‘না সরালে কী করবি?’ এনিয়ে শুরু হয়ে যায় দু’পক্ষের তুমুল বচসা। কিছুক্ষণ পর তা মিটেও যায়। রাতে তালতলা লেনের ওই বাড়িতে দলবল নিয়ে হাজির হয় সোনা। বাড়ির বাইরে ডাকা হয় এখলাসকে।  সিকান্দারসাহেবের দাবি, ‘আমার ছেলেকে বাড়ি থেকে ডেকে মির্জা গালিব স্ট্রিটে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই ওকে গুলি করা হয়। ছেলেকে মেরে ফেলার পরিকল্পনা ছিল ওদের।’ কলকাতা পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে, পিস্তল থেকে গুলি চালানো হয়েছে। তিন রাউন্ড গুলি চলে। প্রথম দু’টি গুলি লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। তৃতীয় গুলিটি যুবকের ডান পায়ের কাফ পেশিতে লাগে। সেখানেই রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে যান তিনি। ‘বাঁচাও বাঁচাও’ বলে চিৎকার জুড়ে দেন। বেগতিক বুঝে বাইকে চেপে চম্পট দেয় সোনা ও তার দলবল। পার্ক স্ট্রিট থানার পুলিস এসে যুবককে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়। সেখানে তাঁর বয়ান রেকর্ড করেন তদন্তকারী অফিসার। তার ভিত্তিতে খুনের চেষ্টার মামলা রুজু করেছে পার্ক স্ট্রিট থানা। সেই সঙ্গে  সোনা ও তার দলবলের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনেও মামলা করা হয়েছে। প্রসঙ্গত, ভোটপর্ব মিটতেই গুলি চলেছিল কসবায়। আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে দাপাদাপির একের পর এক ঘটনায় শহরের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। 
1Month ago
রাজ্য
দেশ
বিদেশ
খেলা
বিনোদন
ব্ল্যাকবোর্ড
শরীর ও স্বাস্থ্য
বিশেষ নিবন্ধ
সিনেমা
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
আজকের দিনে
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
mesh

বিকল্প উপার্জনের নতুন পথের সন্ধান লাভ। কর্মে উন্নতি ও আয় বৃদ্ধি। মনে অস্থিরতা।...

বিশদ...

এখনকার দর
ক্রয়মূল্যবিক্রয়মূল্য
ডলার৮৩.২৩ টাকা৮৪.৩২ টাকা
পাউন্ড১০৬.৮৮ টাকা১০৯.৫৬ টাকা
ইউরো৯০.০২ টাকা৯২.৪৯ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
*১০ লক্ষ টাকা কম লেনদেনের ক্ষেত্রে
21st     July,   2024
দিন পঞ্জিকা