কলকাতা

মাহেশে প্রথমবার গজবেশে
স্নানযাত্রা জগৎপতির
বেলঘরিয়াতেও জোরকদমে রথের প্রস্তুতি

নিজস্ব প্রতিনিধি, চুঁচুড়া ও বারাসত: জ্বর এল। যে সে কারও নয়। স্বয়ং জগন্নাথদেবের। রবিবার মাহেশের জগন্নাথ মন্দিরের পাশে স্নানপিঁড়ি মাঠে জগন্নাথদেবের স্নানযাত্রা উৎসব হয়েছে। ২৮ ঘড়া গঙ্গাজল আর দেড় মণ দুধে স্নান করার পরেই জ্বর আসে প্রভু জগন্নাথের। গত ৬২৬ বছর ধরে এভাবেই মাহেশে জগন্নাথদেবের স্নানযাত্রা পালিত হয়ে আসছে। রবিবার তাই সকাল থেকে সেই পূণ্যতিথিকে পালন করতে ভিড় জমিয়েছিলেন ভক্তরা। জগন্নাথ, বলরাম, সুভদ্রার স্নানপর্ব চাক্ষুস করতে স্নানপিঁড়ির মাঠে উপচে পড়েছিল ভিড়। এবারই প্রথম জগন্নাথদেবকে গজবেশে সাজানো হয়েছিল। মন্দিরের সেবাইতদের দাবি, গজবেশ একটি বিশেষ রীতি। এবার সেই রীতি পালন করা হয়েছে মাহেশে। পুরাণ অনুসারে গণেশভক্ত গণপতি ভট্ট গিয়েছিলেন নীলাচলে। ইচ্ছা ছিল গণেশ দর্শন করতে পারবেন। কিন্তু তা হয়নি। শেষপর্যন্ত প্রভু জগন্নাথদেব তাঁকে বার্তা দেন স্নানবেদীতে যাওয়ার। সেখানে জগন্নাথদেব তাঁকে গজবেশে দর্শন দেন। সেই অনুসারে জগৎপতিকে গজবেশে সাজানোর রীতি আছে। প্রথা অনুসারে স্নানের পরেই প্রভু জগন্নাথের জ্বর আসে। তাই তাঁকে লেপমুড়ি দিয়ে রাখা হয়। ১৫ দিন মন্দিরের গর্ভগৃহে থাকেন তিনি। তারপর কবিরাজরা এসে পাচন দিলে সেই জ্বর ছাড়ে। তখন অঙ্গরাগ করা হয়। মন্দিরের সেবাইত পিয়াল অধিকারী বলেন, এবার ১৮ ও ১৯ জুন হবে নবকলেবর উৎসব। তারপর মাসির বাড়ি যাওয়ার জন্য রথযাত্রা করা হবে। ২০ জুন হবে রথযাত্রা। প্রসঙ্গত, মাহেশে জগন্নাথদেবের বিগ্রহ বদলানো হয় না। এবারের স্নানযাত্রাকে কেন্দ্র করে যেমন ভিড় হয়েছিল, তেমনই নিরাপত্তার আঁটোসাঁটো ব্যবস্থা ছিল।
এদিকে, বেলঘরিয়ার রথযাত্রাকে কেন্দ্র করেও এদিন স্নানযাত্রা উৎসব হয়েছে। সেখানে ওড়িশায় ট্রেন দুর্ঘটনায় মৃতদের জন্য বিশেষ পুজোপাঠ হয়েছে। স্নানযাত্রায় প্রচুর ভক্ত সমাগম হয়েছিল। ইতিমধ্যেই পুরী থেকে আসা কারিগরদের হাতে তৈরি হতে শুরু করেছে জগন্নাথদেবের রথ। রথযাত্রার আয়োজক সোমনাথ রায়চৌধুরী বলেন, এবার রথের উচ্চতা কিছুটা বাড়ছে।
12Months ago
রাজ্য
দেশ
বিদেশ
খেলা
বিনোদন
ব্ল্যাকবোর্ড
শরীর ও স্বাস্থ্য
বিশেষ নিবন্ধ
সিনেমা
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
আজকের দিনে
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
mesh

মাতুলের থেকে বিত্তলাভ হতে পারে। কোনও বিষয়ের মানসিক উদ্বেগ কমবে। বিদ্যাচর্চায় বিশেষ শুভ।...

বিশদ...

এখনকার দর
ক্রয়মূল্যবিক্রয়মূল্য
ডলার৮২.৬৬ টাকা৮৪.৪০ টাকা
পাউন্ড১০৩.৮৯ টাকা১০৭.৩৫ টাকা
ইউরো৮৭.৭৬ টাকা৯০.৮৮ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
*১০ লক্ষ টাকা কম লেনদেনের ক্ষেত্রে
25th     June,   2024
দিন পঞ্জিকা