বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
কলকাতা
 

পড়ল পোস্টার, আজ জাঁকজমকের সঙ্গে রামনবমী উদযাপন তৃণমূলের

নিজস্ব প্রতিনিধি, হাওড়া: আর তেত্রিশ দিন বাদে হাওড়ায় লোকসভা ভোট। তার আগে আজ, বুধবার বিজেপির হাত থেকে রামনবমীর রং শুষে নিতে কোমর বেঁধে নামছে রাজ্যের শাসকদল। এবার তারা রামের আরাধনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ঘাসফুল শিবির রীতিমতো ঢাকঢোল পিটিয়েই রামনবমীর আয়োজন করেছে ডোমজুড় বিধানসভা কেন্দ্রের সলপে। শুধু রামপুজো নয়, সঙ্গে শোভাযাত্রারও ব্যবস্থা করবে তারা। সোশ্যাল মিডিয়ায় ইতিমধ্যেই এ সংক্রান্ত পোস্টার ঘুরপাক খাচ্ছে।
বিভিন্ন হিন্দুত্ববাদী সংগঠন প্রতি বছরই রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় জাঁকজমকের সঙ্গে রামনবমী উদযাপন করে। হাওড়া তার ব্যতিক্রম নয়। তবে গত দু’বছর যমজ নগরীতে এই দিনের অভিজ্ঞতা মোটেও সুখকর ছিল না। শিবপুরের কাজিপাড়া মোড় থেকে হাওড়া ময়দান পর্যন্ত রামনবমীর পদযাত্রাকে কেন্দ্র করে ধুন্ধুমার কাণ্ড ঘটেছিল। দুই গোষ্ঠীর সংঘর্ষে পরিস্থিতি রণক্ষেত্র হয়ে উঠেছিল। পরে ওই ঘটনার তদন্তভার তুলে দেওয়া হয়েছিল এনআইএ’র হাতে। এ বছর আদালতের অনুমতি নিয়ে এই একই রুটে রামনবমীর পদযাত্রার আয়োজন করেছে অঞ্জনি পুত্র সেনা এবং বিশ্ব হিন্দু পরিষদ।  ভোটের মুখে এই মিছিল থেকে রাজনৈতিক ফায়দা তুলতে চাইবে বিজেপি। এই পরিস্থিতিতে তাদের পাল্টা চ্যালেঞ্জ জানাতেই শহরের পশ্চিম প্রান্তে রামনবমী পালনের কর্মসূচি রেখেছে তৃণমূল কংগ্রেস। 
রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বিজেপি হিন্দুত্বের তাস খেলে রাজনীতিতে ধর্মীয় রং লাগাতে তৎপর। তৃণমূল হিন্দুত্বের রাজনীতিতে বিশ্বাস করে না। তবে এই উৎসব যাতে পুরোপুরি গেরুয়াকরণ হয়ে না যায়, তাই তারাও বিকল্প উপায়ে রাম বন্দনায় শামিল হতে চলেছে। একইসঙ্গে তৃণমূল এটাই প্রমাণ করতে চায় যে, শুধু সংখ্যালঘু মানুষ নয়, হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের পাশেও তারা রয়েছে। এর থেকেই ধর্মনিরপেক্ষতার বার্তা দিতে চাইছে তারা। সলপে শোভাযাত্রার যে পোস্টার পড়েছে, তাতে দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়, শ্রীরামপুরের সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় ও ডোমজুড়ের বিধায়ক কল্যাণ ঘোষের ছবি রয়েছে।
রামনবমী উদযাপনের মধ্যে দিয়ে তৃণমূল হিন্দু ভোটে থাবা বসাতে চাইছে, এই অভিযোগ মানতে চায় না শাসকদল। দলের হাওড়া জেলা সদরের সভাপতি কল্যাণ ঘোষ বলেন, রাম নিয়ে বরাবর বাঙালির আবেগ রয়েছে। রামরাজাতলায় বিজেপির জন্মের বহু যুগ আগে রামমন্দির তৈরি হয়েছছে। এটি হাওড়ার অন্যতম তীর্থস্থানও বটে। রাম বিজয়ার দিন তো রীতিমতো উৎসবমুখর হয়ে ওঠে হাওড়া। বিরাট শোভাযাত্রা হয়। 
কল্যাণ ঘোষ বলেন, বিজেপি যে হিন্দুত্বের কথা বলে, বাঙালি সেই পথে হাঁটে না। আমাদের হিন্দুত্ব রামকৃষ্ণ, বিবেকানন্দের থেকে শেখা। এটা বিজেপি শেখায় না। তারা বিভেদ তৈরি করে মানুষকে ভুল পথে চালিত করছে। আমরা বাঙালির আবেগকে সম্মান জানিয়ে রামনবমী উদযাপন করব। এতে ধর্মীয় কোনও উস্কানি থাকবে না। 

17th     April,   2024
 
 
অক্ষয় তৃতীয়া ১৪৩১
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ