বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
কলকাতা
 

দমদমের ছাতাকলে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড, পুড়ে ছাই ‘প্লাস্টিক বস্তির’ শতাধিক ঘর

নিজস্ব প্রতিনিধি, বারাকপুর: চৈত্র সংক্রান্তির দিনে দমদমের ছাতাকলের মেলাবাগান বস্তিতে বিধ্বংসী আগুন লাগে। কিছুক্ষণের মধ্যে সেই আগুনের লেলিহান গ্রাসে পুরো বস্তি ছাই হয়ে যায়। বহু বছর ধরে সেখানে শতাধিক ঝুপড়িতে পাঁচশোর বেশি মানুষ বসবাস করতেন। এই ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে কোনও মানুষের প্রাণহানি না হলেও কমপক্ষে ৪০টি গবাদি পশুর মৃত্যু হয়েছে বলে স্থানীয় মানুষ জানিয়েছেন। মেলাবাগানে চারটি খাটাল রয়েছে। যেখানে দুশোর বেশি গবাদি পশু ছিল। প্রশ্ন উঠেছে, শহরের মধ্যে এখনও খাটাল কী করে চলছে? ঘরবাড়ি পুড়ে গিয়ে অসহায় নিঃস্ব মানুষের ঠিকানা হয়েছে সুরের মাঠের রবীন্দ্র ভবনে। সেখানে গৃহহীনদের জন্য অস্থায়ী ত্রাণশিবির খোলা হয়েছে। জেলাশাসকের পক্ষ থেকে বিপর্যয় মোকাবিলার জন্য একটি করে ‘কিট’ দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে খাবার, শাড়ি, লুঙ্গি, বাচ্চাদের পোশাক রয়েছে।
তবে কী কারণে এই ভয়াবহ আগুন লাগল, তা শনিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত পরিষ্কার নয়। হনুমান মন্দিরের সামনে বাগজোলা খালের ধারের ওই বস্তিটি মানুষের মুখে মুখে ‘প্লাস্টিক বস্তি’ নামে পরিচিত। সেখানে প্লাস্টিক, পিচ, চট সহ দাহ্য পদার্থ ভর্তি ছিল। স্থানীয় বাসিন্দা জাহাঙ্গীর সানা বলেন, কিছুক্ষণের মধ্যে আগুন দাউ দাউ করে ছড়িয়ে পড়ে। আমি কাউন্সিলার অমিত পোদ্দারকে খবর দিই। তাঁর কাছ থেকে খবর পেয়ে দমকলের গাড়ি আসে। কিন্তু বাগজোলা খালের উপরে নতুন তৈরি হওয়া ব্রিজের জন্য রাস্তা সংকীর্ণ হওয়ায় দমকলের গাড়ি ঢুকতে অসুবিধা হয়। ব্রিজের উপরে গাড়িগুলি রেখে তার পাইপ জোড়া করে ঘটনাস্থলে নিয়ে যাওয়া হয়।
খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসেন দমকল মন্ত্রী সুজিত বসু। তিনি বলেন, ১০টি ইঞ্জিন কাজ করছে। ঘিঞ্জি এলাকা হওয়ায় দমকলের গাড়ি ঢুকতে অসুবিধা হয়েছে। আগুন লাগার কারণ জানতে তদন্ত হবে। কিছুক্ষণের মধ্যেই ঘটনাস্থলে আসেন তৃণমূল প্রার্থী সৌগত রায়, সিপিএম প্রার্থী সুজন চক্রবর্তী, বিজেপি প্রার্থী শীলভদ্র দত্ত। অসহায় মানুষের সমস্ত দায়িত্ব নেন জেলাশাসক ও তাঁর দপ্তরের অফিসাররা। আসেন বারাকপুরের পুলিস কমিশনার অলক রাজোরিয়া। তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে জানান, মারা যাওয়ার কোনও খবর নেই। আগুনের কারণ খতিয়ে দেখা হচ্ছে। বারাকপুরের মহকুমা শাসক সৌরভ বারিক বলেন, নিরাশ্রয় মানুষকে প্রশাসনিক ভাবে সবরকম সাহায্য করা হচ্ছে। এর জন্য নির্বাচন কমিশনের কাছে অনুমতি চাওয়া হবে।
খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসেন রাজারহাট গোপালপুরের বিধায়ক অদিতি মুন্সী। অদিতির কাছে দমদমের অগ্নিকাণ্ড সম্পর্কে খোঁজ নেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে সবরকমভাবে সাহায্য করার নির্দেশ দিয়েছেন দলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। নিরাশ্রয় মানুষের তালিকা তৈরি করে তাঁদের প্রশাসনের পক্ষ থেকে বাড়ি তৈরি করে দেওয়া হবে বলে জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে। এর জন্য প্রত্যেককে ৩৫ হাজার টাকা করে দেওয়া হবে বলে প্রশাসনিক সূত্রে জানা গিয়েছে।

14th     April,   2024
 
 
অক্ষয় তৃতীয়া ১৪৩১
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ