বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
কলকাতা
 

খানাকুলে দলীয় বিধায়কের কর্মকাণ্ডে অস্বস্তিতে বিজেপি

নিজস্ব প্রতিনিধি, আরামবাগ: ভোটের মুখে খানাকুলের বিজেপি বিধায়কের কর্মকাণ্ডে চরম অস্বস্তিতে গেরুয়া শিবির। বুধবার সন্ধ্যায় পিএইচই-র এক পাম্প অপারেটর ও তাঁর দাদাকে মারধরের অভিযোগ ওঠে বিজেপি বিধায়ক সুশান্ত ঘোষের বিরুদ্ধে। এনিয়ে বিধায়ক ও তাঁর দলবলের ১৪ জনের নামে থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে। শুক্রবার বিজেপি বিধায়কের গ্রেপ্তারির দাবিতে অবস্থান বিক্ষোভ করে তৃণমূল কংগ্রেস। তদন্তের দাবি জানিয়েছে কংগ্রেস ও সিপিএম। নির্বাচনের সময় এই ঘটনায় কিছুটা হলেও ব্যাকফুটে বিজেপি। বিষয়টি নিয়ে দলের অন্দরে আলোচনা হবে বলে বিজেপি নেতৃত্বের তরফে জানানো হয়েছে।
প্রসঙ্গত, একটি মেশিন খারাপ হয়ে যাওয়ায় খানাকুল-২ ব্লকের রাজহাটি এলাকার পিএইচর পাম্প স্টেশনে জলাধার ভর্তি হতে দীর্ঘ সময় লাগছিল। জলের চাপ না থাকায় রাজহাটি, মমকপুর, মধ্যারঙ্গ ও সেনহাটের সব এলাকায় পর্যাপ্ত জল পৌঁছচ্ছিল না। বাসিন্দারা চরম সমস্যায় পড়েন। জল সরবরাহ কেন ঠিকঠাকভাবে করা হচ্ছে না, তা জানতেই বুধবার সন্ধ্যায় বিজেপি বিধায়ক দলবল নিয়ে ওই পাম্প স্টেশনে যান। সেখানে পাম্প অপারেটরকে ধাক্কাধাক্কি ও তাঁর দাদাকে চড়, ঘুসি মারা হয় বলে অভিযোগ। বিধায়কের মারধরের ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতেই রাজনৈতিক মহলে শোরগোল পড়ে যায়। বিধায়ক নিজের হাতে আইন তুলে নেওয়ায় তৃণমূল, সিপিএম ও কংগ্রেসের তরফে প্রতিবাদ জানানো হয়েছে। তৃণমূল কংগ্রেস নেতৃত্ব বিজেপি বিধায়ককে গ্ৰেপ্তারের দাবিতে সরব হয়েছে। শুক্রবার খানাকুল থানার সামনে সাংগঠনিক জেলা তৃণমূলের তরফে অবস্থান বিক্ষোভ করা হয়। ঘটনার তীব্র নিন্দা করা হয়। উপস্থিত ছিলেন আরামবাগ সাংগঠনিক জেলা তৃণমূলের চেয়ারম্যান স্বপন নন্দী, শেখ হায়দার আলি, দীপেন মাইতি সহ অন্যান্য নেতারা। 
স্বপনবাবু বলেন, খানাকুল-২ ব্লকের রাজহাটি এলাকায় যে ঘটনাটি ঘটেছে অত্যন্ত নিন্দনীয়। বিজেপি বিধায়ক মস্তানি শুরু করেছেন। পিএইচর এক পাম্প অপারেটরকে ধাক্কা দেন। তাঁরা দাদাকে মারধর করা হয়। ঘটনার ধিক্কার জানাচ্ছি। ওই ঘটনায় থানায় অভিযোগ হয়েছে। অবিলম্বে বিধায়ককে গ্ৰেপ্তারের দাবি জানাচ্ছি। সেই দাবিতেই এদিন অবস্থান বিক্ষোভ করা হয়।
সিপিএম ও কংগ্ৰেসের তরফেও ঘটনার তদন্তের দাবি জানানো হয়েছে। সিপিএমের হুগলি জেলা সম্পাদক মণ্ডলীর সদস্য পূর্ণেন্দু চট্টোপাধ্যায় বলেন, পিএইচইর জল সরবরাহ নিয়ে কোনও সমস্যা থাকলে বিধায়ক বিধানসভায় সেই প্রসঙ্গ তুলতে পারতেন। দপ্তরের আধিকারিকদের জানাতে পারতেন। তা না করে উনি শ্রমজীবী চুক্তিভিত্তিক ঠিকা কর্মীকে হেনস্তা করেছেন। তাঁর দাদাকে মারধর করা হয়েছে। উদ্দেশ্য একটাই, বিধায়ক ভয়ের পরিবেশ তৈরি করতে চাইছেন। আমরা চাইছি এই ঘটনার তদন্ত হোক। 
প্রদেশ কংগ্রেসের সদস্য নাজির হোসেন চৌধুরী বলেন, বিজেপি বিধায়ক খানাকুলে দাদাগিরি করে বেড়াচ্ছেন। মারধরের ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। আমরা ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্ত চাইছি। 
আরামবাগ সাংগঠনিক জেলা বিজেপির সভাপতি বিমান ঘোষ বলেন, এলাকার মানুষ জল পাচ্ছিলেন না। সাধারণ মানুষ প্রতিবাদ করেন। ঘটনাটি নিয়ে দলের অন্দরে আলোচনা হবে।

13th     April,   2024
 
 
অক্ষয় তৃতীয়া ১৪৩১
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ