বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
কলকাতা
 

দল ছাড়লেন তাপস, ইস্তফা বিধায়ক পদে

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: দূত পাঠিয়েও মন গলানো গেল না! সিদ্ধান্তে অনড় থাকলেন বরানগরের বিধায়ক তাপস রায়। দলের পাশাপাশি বিধায়ক পদ থেকেও ইস্তফা দিলেন তিনি। সব মিলিয়ে আরও জোরালো হল আগামী দিনে তাঁর বিজেপিতে যোগদানের জল্পনা। 
তাপসবাবু যে তৃণমূলে আর থাকবেন না, রবিবারই তা স্পষ্ট হয়ে গিয়েছিল। সোমবার তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে দলের সঙ্গে যাবতীয় সম্পর্ক ছিন্ন করেন। এদিন বিধানসভায় গিয়ে অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাতে পদত্যাগ পত্র তুলে দেন। ২০১১ সাল থেকে তিনি বরানগরের তৃণমূল বিধায়ক। বর্তমান বিধানসভায় তিনি সরকার পক্ষের উপ মুখ্য সচেতক ছিলেন। তাঁর ইস্তফাপত্র গৃহীত হওয়ার বিষয়টি এখনও বিবেচনাধীন বলে জানিয়েছেন অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়। তৃণমূলের সাধারণ সদস্য পদ ছেড়ে দেওয়ার সঙ্গেই তিনি দমদম-বারাকপুর সাংগঠনিক জেলার দলীয় সভাপতি পদ থেকেও ইস্তফা দিয়েছেন। ১ মার্চই তিনি দল ছাড়ার চিঠি সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে পাঠিয়ে দিয়েছেন বলে জানান। 
সোমবার সকালে তাপসবাবুর মানভঞ্জনের জন্য তাঁর বউবাজারের বাড়িতে যান মন্ত্রী ব্রাত্য বসু ও তৃণমূল নেতা কুণাল ঘোষ। তাঁরা তাপসবাবুকে তৃণমূল না ছাড়ার অনুরোধ করেন। কিন্তু খালি হাতেই ফিরতে হয় তাঁদের। কিছুক্ষণ পর প্রকাশ্যে তৃণমূলের বিরুদ্ধে বিষোদ্গার শুরু করেন তাপস। তাঁর অভিযোগ, বাড়িতে ইডি হানার পর তিনি যখন মানসিকভাবে বিপর্যস্ত, সেই সময় দলের শীর্ষ নেতৃত্ব একবারের জন্যও যোগাযোগ করে পাশে থাকার ভরসা দেয়নি। তাছাড়া, দুর্নীতিতে ভরে গিয়েছে তৃণমূল। তবে দলের শীর্ষ নেতৃত্বের দাবি, তাপসবাবুর ফোন বাজেয়াপ্ত করেছিল ইডি। দু’দিন পর অন্য ফোনের ব্যবস্থা হলে তখন যোগাযোগের চেষ্টা করা হয়। মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম বলেন, ‘ইডি হানার পর আমিই তাপসবাবুকে ফোন করেছিলাম। তাঁকে জানিয়েছিলাম, বিজেপির এই ঘৃণ্য এজেন্সি রাজনীতির বিরুদ্ধে আমরা সবাই এক হয়ে লড়ব। কেন্দ্রীয় এজেন্সি তো আমার বাড়িতেও তল্লাশি চালিয়েছিল। দুঃখের বিষয়, সেই সময় তাপসদা আমার কোনও খোঁজ নেননি।’ তাঁর কটাক্ষ, ‘যাঁরা মমতাকে ছেড়ে অন্য দলে গিয়েছেন, তাঁরা ক্ষমা চেয়ে ফের তৃণমূলে ভিড়েছেন।’ তৃণমূল মুখপাত্র শান্তনু সেনের খোঁচা, ‘তাপসবাবুর কাছে অন্য দল থেকে বড় ডিলের অফার আসেনি তো!’ আর মান ভাঙাতে ব্যর্থ হয়ে ব্রাত্য-কুণালের পরামর্শ, ‘উনি কিছুদিন রাজনীতি থেকে বিশ্রাম নিন।’ 
ঘটনাচক্রে এদিন তাপসবাবুর বাড়িতে থাকাকালীন কুণালের কাছে হোয়াটসঅ্যাপে শোকজের চিঠি আসে। তবে তাঁর দিন শেষ হয়েছে সুদীপের বাড়িতে মিষ্টিমুখেই!

5th     March,   2024
 
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ