বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
কলকাতা
 

‘দীপিকা’, ‘আলিয়া’দের সঙ্গে ডেট! প্রতারণার জালে শহরবাসী

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: স্বর একেবারে অবিকল। ঠিক যেন দীপিকা পাডুকোন। কখনও আবার স্বর হয়ে যেত আলিয়া ভাট কিংবা কৃতি শ্যাননের মতো। মুম্বই তারকাদের গলার স্বর এভাবে নকল করে বন্ধুত্বের টোপ যেত শহরবাসীর কাছে। তাতে পা দিলেই কেল্লাফতে! আর্থিক প্রতারণার শিকার হয়ে যেতেন তাঁরা। অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নেমে বড়সড় প্রতারণা চক্র ফাঁস করল কলকাতা পুলিস। 
টালিগঞ্জের অশোকনগরের একটি ফ্ল্যাটে হানা দিয়ে ভুয়ো কলসেন্টারের হদিশ পেলেন তদন্তকারীরা। বন্ধুত্বের টোপ দিয়ে আর্থিক প্রতারণার অভিযোগে পাঁচ মহিলা সহ মোট সাতজনকে গ্রেপ্তার করল কলকাতা পুলিসের গোয়েন্দা বিভাগের ব্যাঙ্ক জালিয়তি শাখা। প্রতারণা চক্রের মূল পান্ডা এখনও পলাতক বলে পুলিস সূত্রে খবর। রবিবার অভিযুক্তদের ব্যাঙ্কশাল আদালতে পেশ করা হয়। তাঁদের পুলিস হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক। ধৃতদের থেকে উদ্ধার হয়েছে তিনটি ডায়েরি ও ১৫টি মোবাইল ফোন। 
তদন্তকারীরা জানিয়েছেন, ওই মোবাইলগুলি থেকে বেশ কিছু তথ্য পাওয়া গিয়েছে। সম্ভাব্য ‘শিকার’-কে ওই সমস্ত ফোন থেকে হোয়াটসঅ্যাপে মেসেজ পাঠানো হতো। প্রাথমিকভাবে অভিনেত্রীর আপ্তসহায়ক বলে পরিচয় দেওয়া হতো। সম্পর্ক গভীর হলে অভিনেত্রীদের সঙ্গে কথা বলার টোপ দেওয়া হতো ‘শিকার’কে। হোয়াটসঅ্যাপ কলে কথা বলতেন মহিলারা। হুবহু দীপিকা, আলিয়া কিংবা কৃতির কণ্ঠস্বরে মোহগ্রস্ত করা দেওয়া হতো ‘শিকার’দের। এরপরেই যেত ডেট করার প্রস্তাব। পাঁচতারা হোটেলে ঠিক হতো অ্যাপয়ন্টমেন্ট। টাকা দিতে রাজি করানোর দায়িত্বে ছিলেন ৩২ থেকে ৫০ বছর বয়সি তিন মহিলা। ‘শিকার’ পিছু ১০ থেকে ১৫ হাজার। টাকা পেয়ে গেলে কোনওরকম পরিষেবা প্রদান করা হতো না।
কাজের জন্য রীতিমতো মাসপ্রতি মাইনে পেতেন পাঁচজন মহিলা। পুলিস জানতে পেরেছে, প্রায় ৮-১০ হাজার টাকা মাইনে পেতেন মহিলারা। তাঁদের ভাড়া করতেন কল সেন্টারের দুই ‘ম্যানেজার’। তাঁদের নাম স্বপন দে (৩৩) ও শিবশঙ্কর মাহাতো (৩৪)। ধৃত দুই যুবককে জেরা করে গোয়েন্দারা জেনেছেন, তাঁদের কাজ ছিল মহিলা ‘টেলি-কলার’ জোগাড় করা, যাঁরা গলা নকল করতে পারেন। প্রতারিত ব্যক্তির টাকা ব্যাঙ্ক থেকে তোলা ছিল তাঁদের দায়িত্ব। সেই টাকা থেকে মহিলা কর্মচারীদের মাইনেও যেত।  
পাশাপাশি, উদ্ধার হওয়া ডায়েরি থেকে চাঞ্চল্যকর তথ্য পেয়েছেন তদন্তকারীরা। লালবাজার সূত্রে খবর, সেখানে পাতার পর পাতায় লেখা রয়েছে বহু মোবাইল নম্বর। একটিতে লেখা, শিকার হয়ে গিয়েছে এমন মানুষের ফোন নম্বর। অন্যটিতে ছিল ভবিষ্যতের টার্গেট। এত ফোন নম্বর অভিযুক্তরা কোথা থেকে সংগ্রহ করতেন, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

26th     February,   2024
 
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ