বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
কলকাতা
 

যন্ত্রের কাছে মুখ আনলেই ‘প্রেজেন্ট স্যর’, প্রাথমিক স্কুলে কর্পোরেট ধাঁচে হাজিরা

সৌম্যজিৎ সাহা, দক্ষিণ ২৪ পরগনা: ক্লাসে ক্লাসে রোল কলের পাঠ শেষ হতে চলেছে। ছাত্রছাত্রীদের মুখে আর শোনা যাবে না ‘ইয়েস স্যর’ বা ‘প্রেজেন্ট স্যর’। কারণ, ফলতা এফপি বিদ্যালয়ে এবারে কর্পোরেট ধাঁচে ছাত্রছাত্রীদের হাজিরা নেওয়ার ব্যবস্থা চালু করা হচ্ছে। এর জন্য স্কুলে বসানো হয়েছে ফেস রেকগনিশন অ্যাটেনডেন্স সিস্টেম। এর সামনে একজন পড়ুয়া দাঁড়ালেই তার হাজিরা নথিভুক্ত হয়ে যাবে। সরস্বতী পুজোর দিন এই প্রযুক্তির উদ্বোধন হওয়ার কথা রয়েছে ওই স্কুলে। 
প্রধান শিক্ষক তিলক নস্কর বলেন, ‘রেজিস্টার খাতা খুলে জনে জনে রোল কল করতে অনেক সময় চলে যায়। তাই এমন ব্যবস্থা করা হচ্ছে, যার মাধ্যমে ছেলেমেয়েরা স্কুলে ঢুকে নিজেরাই হাজিরা দিয়ে দিতে পারবে। মেশিনের সামনে দাঁড়ালেই  উপস্থিতি নথিভুক্ত হয়ে যাবে। শুধু তাই নয়, কে কখন স্কুলে ঢুকছে এবং বেরচ্ছে, স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতিতে সেই মেসেজ চলে যাবে অভিভাবকদের মোবাইলে। 
ইদানিং বহু স্কুল ডিজিটাল আইডি কার্ড চালু করেছে। সেটি যন্ত্রে ছোঁয়ালেই অ্যাটেনডেন্স নথিভুক্ত হয়ে যায়। কিন্তু ফলতার এই প্রাথমিক স্কুল এক কদম এগিয়ে পড়ুয়াদের জন্য নয়া হাজিরা ব্যবস্থা শুরু করতে চলেছে। স্কুলের দুই জায়গায় এই মেশিন বসানো থাকবে বলে জানিয়েছেন প্রধান শিক্ষক। এই ব্যবস্থা শুরুর আগে প্রত্যেক পড়ুয়ার মুখের ছবি এই যন্ত্রে আপলোড করে দেওয়া হয়েছে। স্কুল শুরুর আগে যখনই একজন ছাত্র বা ছাত্রী এটির সামনে এসে দাঁড়াবে, তার মুখের সঙ্গে আপলোড হয়ে থাকা ছবি মিলিয়ে নেবে এই যন্ত্র। তারপরই বিশেষ সঙ্কেত দিয়ে জানিয়ে দেবে সে স্কুলে হাজির। কলকাতার বুকে বড় বড় বেসরকারি কিংবা পুরনো নামজাদা সরকারি স্কুলে হাজিরা নিয়ে এমন কর্পোরেট ব্যবস্থা নেই। সেখানে ফলতার গঙ্গার ধারের এই প্রাথমিক স্কুল রীতিমতো দৃষ্টান্ত স্থাপন করল বলেই মনে করছেন শিক্ষকরা।

13th     February,   2024
 
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ