বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
কলকাতা
 

টানা বৃষ্টিতে ধানজমি জলের তলায়, আত্মঘাতী খানাকুলের চাষি

নিজস্ব প্রতিনিধি, আরামবাগ: মিগজাউমের প্রভাবে টানা দু’দিনের বৃষ্টিতে আরামবাগ মহকুমার চাষিদের কার্যত দিশেহারা অবস্থা। বিঘার পর বিঘা জমির ফসল ডুবে গিয়েছে। ধান, আলু সহ সব্জি চাষে বিপুল ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা রয়েছে। এরইমধ্যে খানাকুলের এক ভাগচাষি আত্মঘাতী হওয়ার ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। ধার দেনা করে কয়েক বিঘা জমিতে ভাগচাষ করেছিলেন তরুণ পালুই(৩৬)। জমির ধান জলে ডুবে যাওয়ায় তিনি মানসিকভাবে ভেঙে পড়েন। শুক্রবার সকালে তাঁর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়।
গত বুধবার থেকে আরামবাগ মহকুমায় বৃষ্টি শুরু হয়। বৃহস্পতিবারও দিনভর বৃষ্টিপাত হয়। অনেক চাষি জমিতে রাখা কাটা ধান ঘরে তোলার সুযোগ পাননি। কেটে রাখা ধান জলে ডুবে গিয়েছে। যে জমিতে আবার আলু লাগানো হয়েছে, সেখানেও জল জমে যাওয়ায় আলুবীজ পচে যাওয়ার আশঙ্কা করছেন চাষিরা। ধান ও আলু চাষের জোড়া ক্ষতিতে মহকুমার চাষিরা চরম বিপদের মধ্যে পড়েছেন। মহকুমা কৃষিদপ্তরের আধিকারিকরাও বিপুল ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা করছেন। 
খানাকুলের পিলখাঁর ভাগচাষি তরুণবাবু ধারদেনা করে প্রায় আট বিঘা জমিতে ধান চাষ করেছিলেন। শুধু ঘরে ফসল তোলা বাকি ছিল। বৃষ্টির জল জমিতে দাঁড়িয়ে যাওয়ায় ফসল নষ্টের আশঙ্কায় তিনি মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েন। বৃহস্পতিবার রাতে স্ত্রীর সঙ্গে দেনা শোধ করতে না পারা নিয়ে অশান্তিও হয়। এরপরই শুক্রবার সকালে বাড়ি লাগোয়া চালা ঘরে তাঁর ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার হয়। পরিবারের সদস্যদের দাবি, বৃষ্টির জেরে চাষের ক্ষতিতেই তিনি আত্মঘাতী হয়েছেন।
মৃতের আত্মীয় সমর সর্দার বলেন, ধারদেনা করে তরুণ কয়েক বিঘা জমিতে আম্রপালি ধান লাগিয়েছিল। ধান কাটার পরেই বৃষ্টি শুরু হয়। সব ধান জলে ডুবে যায়। ব্যাপক ক্ষতির আশঙ্কায় এদিন ও আত্মঘাতী হয়েছে বলে মনে হচ্ছে। বৃষ্টির জলে এলাকার বহু চাষি ক্ষতির মুখে পড়েছেন।
গোঘাটের কুমুড়শা এলাকার চাষি মুক্তরাম মণ্ডল বলেন, আমাদের এখানে ধান উঠে গিয়েছে। আলু লাগানোর কাজ চলছিল। জমিতে জল জমে গিয়েছে। আলুবীজ নষ্ট হয়ে যাবে। সরকার পাশে না দাঁড়ালে চাষিরা বিপুল ক্ষতির মুখে পড়বেন।
খানাকুলের চাষি অমর প্রধান বলেন, যে ভয় করছিলাম সেটাই হল। মেঘ দেখে জমির ধান ঘরে তোলার তোড়জোড় শুরু হয়েছিল। ধান কাটার জেরেই বেশি বিপদে পড়লাম।
মহকুমা সহ কৃষি অধিকর্তা বিকাশ দে বলেন, টানা বৃষ্টিতে ধানের পাশাপাশি আলু চাষিরাও ক্ষতির মুখে পড়েছেন। সদ্য লাগানো আলুবীজের বেশিরভাগটাই নষ্ট হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। ক্ষয়ক্ষতির রিপোর্ট তৈরি করা হচ্ছে। তা জেলায় পাঠানো হবে।

9th     December,   2023
 
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ