বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
কলকাতা
 

হিন্দমোটরে মায়ের মৃতদেহ আগলে তিনদিন বসে ছেলে

নিজস্ব প্রতিনিধি, চুঁচুড়া: প্রায় তিনদিন ধরে মায়ের মৃতদেহ আগলে বসে রইলেন মানসিক অবসাদগ্রস্ত ছেলে। শনিবার দু’দিন পরে কাজে এসেছিলেন বাড়ির পরিচারিকা। তিনিই প্রথম বিষয়টি জানতে পারেন। তারপরে এলাকায় হইচই পড়ে যায়। ঘটনাটি উত্তরপাড়া থানার হিন্দমোটরের। পুলিস এদিনই মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে। পাশাপাশি, মৃতার ছেলেকে হাসপাতালে ভর্তি করিয়েছে। পুলিস জানিয়েছে, মৃতার নাম কল্যাণী হাজরা (৬৫)। তিনি অবসরপ্রাপ্ত ব্যাঙ্ককর্মী ছিলেন। উত্তরপাড়ার ১ নম্বর বিএন দাস রোডের একটি আবাসনে তিনি ছেলেকে নিয়ে থাকতেন। ছেলের বয়স প্রায় ৩৫ বছর। কল্যাণীদেবী দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ ছিলেন। গত তিনদিন ধরে মা ও ছেলেকে বাড়ির বাইরে দেখা যায়নি। এমনকী ফ্ল্যাটের দরজাও খোলা হয়নি।
স্থানীয় ও পুলিস সূত্রে জানা গিয়েছে, শনিবার প্রায় তিনদিন পড়ে বাড়ির পরিচারিকা গীতা দাস কাজে এসেছিলেন। তাঁকে দরজা খুলে দেন কল্যাণীদেবীর ছেলে শুভ্রনীল। তিনি ঘরে ঢুকতেই পচা গন্ধ পান। তারপরেই দেখেন, কল্যাণীদেবী নিথর হয়ে পড়ে আছেন আর সেখান থেকেই দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে। গীতাদেবী বলেন, এনিয়ে আমি প্রশ্ন করতেই শুভ্রনীলবাবু বলেন, মা ঘুমিয়ে আছে। ওই যুবক মানসিক ভারসাম্যহীন এবং অবসাদগ্রস্ত। তাই আমি লোকজন ডাকতে বাড়ির বাইরে বের হওয়ার চেষ্টা করি। তখন ওই যুবক আমাকে আটকে দেন। আমি কোনওরকমে ছুটে পালিয়ে যাই। পরে পুলিসকে খবর দেওয়া হয়। ততক্ষণে ফের ওই যুবক ফ্ল্যাটের দরজা আটকে দিয়েছিলেন। উত্তরপাড়া থানার পুলিস জানিয়েছে, দরজা ভেঙে ওই মহিলার দেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তাঁর ছেলেকে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে। ঘটনার তদন্ত করা হচ্ছে।

3rd     December,   2023
 
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ