বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
কলকাতা
 

নাম শুনলেই ফুঁসছে মুছাকের গ্রাম, বাকিবুর ঘুরত নিজস্ব বাহিনী নিয়েই

নিজস্ব প্রতিনিধি, দক্ষিণ ২৪ পরগনা: গোসাবায় তৃণমূলের বুথ সভাপতি মুছাক আলি মোল্লার খুনের ঘটনার পর কেটে গিয়েছে তিনদিন। এলাকা ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হচ্ছে। তবে এই খুনের ঘটনায় মূল অভিযুক্ত বাকিবুর মোল্লার নাম শুনলেই ফুঁসছে গোটা রাধানগর গ্রাম। মুখে মুখে ঘুরছে এই ঠিকাদারের কীর্তিকলাপ। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ঠিকাদারির কাজ করলেও, তার একটি নিজস্ব বাহিনী রয়েছে। কোথাও পেশিশক্তির প্রয়োজন হলে তাদের ডেকে নিত সে। পাঁচ-দশ হাজার টাকা খরচ করলেই হাজির হতো ওই বাহিনী। মৃতের পরিবারও একথা জানে। তাদের দাবি, এলাকার লোকজনকে রীতিমতো চমকে রাখত বাকিবুরের বাহিনী। এদিকে, বৃহস্পতিবার তৃণমূল কংগ্রেসের এক প্রতিনিধিদল মৃত তৃণমূল নেতার বাড়িতে গিয়ে পরিবারের পাশে থাকার আশ্বাস দিয়েছে।  
স্থানীয়দের দাবি, ঠিকাদারি কাজ নিয়ে যদি প্রশ্ন ওঠার অবকাশ থাAকে, তাহলে সেইসব জায়গায় এই বাহিনীকে সঙ্গে নিয়ে যায় বাকিবুর। তার কার্যকলাপ নিয়ে সকলেই কার্যত বিরক্ত। এদিকে, তৃণমূলের অন্দরের খবর, বিজেপিতে যোগদানের আগে ঘাসফুল শিবিরেই ছিল বাকিবুর। তখন থেকেই তাঁর কাজকর্ম নিয়ে অসন্তুষ্ট ছিলেন তৎকালীন বিধায়ক জয়ন্ত নস্কর। তাঁর চাপেই কয়েক বছর আগে এলাকাছাড়া হয় এই ঠিকাদার। সেই সময় জীবনতলায় এসে বসবাস শুরু করে বাকিবুর। শুরু করে ইমারতি সামগ্রীর ব্যবসা। ২০২১ সালের বিধানসভা ভোটের আগে এলাকায় ফিরে বিজেপিতে যোগদান করে এই ঠিকাদার। এলাকায় প্রভাব বাড়াতে সব রকম চেষ্টাই করেছে সে। উপনির্বাচনের পর অবশ্য বিজেপি ছেড়ে ফের তৃণমূলে ফিরে আসে বাকিবুর।
এদিন মৃত তৃণমূল নেতা মুছাক আলির স্ত্রীর হাতে আর্থিক সাহায্য হিসেবে তিন লক্ষ টাকা তুলে দেয় তৃণমূল নেতৃত্ব। এই প্রতিনিধিদলে ছিলেন পরিবহণ দপ্তরের রাষ্ট্রমন্ত্রী দিলীপ মণ্ডল এবং ক্যানিং পূর্বের বিধায়ক শওকত মোল্লা। স্থানীয় বিধায়ক সুব্রত মণ্ডল গত তিনদিনের মধ্যে মৃতের বাড়িতে যাওয়ার সময় না পেলেও এদিন নেতৃত্বের সঙ্গে গিয়েছিলেন। তাঁর সঙ্গে ছিলেন জেলা পরিষদের উপাধ্যক্ষ অনিমেষ মণ্ডলও। 
তৃণমূল নেতৃত্বকে কাছে পেয়ে দোষীদের গ্রেপ্তারের দাবি জানান মুছাক আলির পরিবারের সদস্যরা। ওই ঘটনার পর থেকেই বিধায়কের বিরুদ্ধে সরব হয়েছিলেন মৃত তৃণমূল নেতার স্ত্রী। প্রকাশ্যে তাঁর বিরুদ্ধে যাতে তিনি কোনও মন্তব্য না করেন, সেই পরামর্শ দিয়েছেন তৃণমূলের প্রতিনিধিরা। ঘটনার পর থেকেই বাকিবুরের পরিবার এলাকাছাড়া হয়ে গিয়েছে। সূত্রের খবর, বুধবার মাঝরাতে তাঁর জীবনতলার বাড়িতেও অভিযান চালিয়েছিল পুলিস। কিন্তু পুলিস এখনও বাকিবুরকে ধরতে পারেনি। 

1st     December,   2023
 
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ