বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
কলকাতা
 

‘মাকে মেরে ফেলল’, চিৎকার শুনেও আমল দেননি পড়শিরা, থমথমে খড়দহের সেই আবাসন

নিজস্ব প্রতিনিধি, বারাকপুর: বৃন্দাবন কর্মকার ও তাঁর পরিবারের সদস্যদের শেষ দেখা গিয়েছিল বৃহস্পতিবার। শুক্রবার সকাল থেকে তাঁদের ঘরের বাইরে বেরতে দেখেননি প্রতিবেশী ও স্থানীয়রা। তবে শুক্রবার রাতে করবী আবাসনের দোতলার ফ্ল্যাট থেকে শোনা গিয়েছিল নারীকণ্ঠের আর্তনাদ। ‘মাকে মেরে ফেলল, বাঁচাও’—এরকম চিৎকার কানে এলেও প্রতিবেশীরা খুব একটা পাত্তা দেননি। কারণ, সম্প্রতি বৃন্দাবনবাবুদের ফ্ল্যাটে মাঝেমধ্যেই অশান্তি, বাগবিতণ্ডা চলত। প্রতিবেশীরা ভেবেছিলেন, সেরকমই কোনও পারিবারিক সমস্যা চলছে। ‘ব্যক্তিগত’ বিষয় ভেবে বিষয়টি এড়িয়ে যান তাঁরা। কিন্তু তাঁরা কেউ ঘূণাক্ষরেও টের পাননি, সত্যিই ভয়ানক ঘটনা ঘটে চলেছে সেখানে। রবিবার দুপুরে বলরাম হাসপাতালের উল্টোদিকের ওই আবাসন থেকে চারটি মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিস। তখন থেকেই থমথমে হয়ে রয়েছে গোটা এলাকা। সোমবার সেই আবাসনে গিয়ে বৃন্দাবনবাবুর কয়েকজন প্রতিবেশীর সঙ্গে কথা বলে এই তথ্য মেলে। 
এদিকে, চারটি মৃত্যুর রহস্য স্পষ্ট হয়নি এখনও। উদ্ধার হওয়া সুইসাইড নোটে মৃত ব্যবসায়ী বৃন্দাবন কর্মকার যাবতীয় ঘটনার জন্য স্ত্রীর বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ককে দায়ী করেছেন। তার ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিস। চারটি দেহের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। প্রাথমিক রিপোর্ট অনুযায়ী, বৃন্দাবনবাবুর স্ত্রীর মৃত্যু হয়েছে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে। শ্বাসরোধে মৃত্যু হয়েছে তাঁর ছেলে ও মেয়ের। গলায় দড়ি দিয়ে আত্মঘাতী হয়েছেন বৃন্দাবনবাবু। এ ব্যাপারে নিশ্চিত হতে ফরেন্সিক বিশেষজ্ঞদের ডেকেছে পুলিস। সেই সঙ্গে সুইসাইড নোটের হাতের লেখা বৃন্দাবনবাবুরই কি না, তা জানতে হস্তাক্ষর বিশারদদের পরামর্শ নেওয়া হচ্ছে। সুইসাইড নোটে উল্লিখিত বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের বিষয়টিও যাচাই করছে পুলিস। সূত্রের খবর, খড়দহের আদর্শপল্লির এক যুবক সম্পর্কে খোঁজখবর নিচ্ছেন তদন্তকারীরা। ওই আবাসনের প্রতিবেশীদের সঙ্গে কথা বলে আরও জানা যায়, গত ছ’মাস ধরে বৃন্দাবনবাবুর স্ত্রী দেবশ্রী কর্মকার ফেসবুক ব্যবহার করেননি। স্ত্রীর পরকীয়া সম্পর্ক নিয়ে স্বামীর মনে সন্দেহ বেড়ে যাওয়াতেই তাঁকে ফেসবুক করতে নিষেধ করেছিলেন বৃন্দাবনবাবু। সম্প্রতি তাঁর এই সন্দেহ ও একে কেন্দ্র করে সংসারে অশান্তি বেড়েছিল। তবে বছর দু’য়েক আগে যখন তাঁরা এই আবাসনে ফ্ল্যাট ভাড়া নিয়ে আসেন, তখন তাঁদের খুব হাসি-খুশি ও সুখী পরিবার বলেই মনে হয়েছিল সবার। এছাড়া, ব্যবসার কারণে বাজারে বৃন্দাবনবাবুর অনেক দেনা হয়ে গিয়েছিল বলে জানতে পেরেছে পুলিস। তদন্তে সবদিক খতিয়ে দেখা হচ্ছে। 

21st     November,   2023
 
 
অক্ষয় তৃতীয়া ১৪৩১
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ