বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
কলকাতা
 

বারাসতের নবপল্লীতে শিবমন্দিরে পুজো। -নিজস্ব চিত্র

দাদুর পারলৌকিক কাজ চলাকালীন
গঙ্গায় তলিয়ে গিয়ে মৃত্যু দু’ভাইয়ের

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: পরিবারের সঙ্গে দাদুর পারলৌকিক কাজ করতে এসে গঙ্গায় তলিয়ে গেল দুই ভাই। বুধবার সকাল ন’টা নাগাদ সাউথ পোর্ট থানা এলাকায় গঙ্গার পাড়ের গোয়ালিয়র ঘাটে এই মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে। নিখোঁজ দুই ভাইয়ের নাম নীতীশ সাউ (১৭) এবং সানি সাউ (২১)। দুর্ঘটনার খবর পাওয়ার পর কলকাতা রিভার ট্রাফিক পুলিস উদ্ধারকারী লঞ্চের পাশাপাশি কলকাতা পুলিসের ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট গ্রুপের (ডিএমজি) ডুবরিদের দফায় দফায় গঙ্গায় নামিয়েছে। দিনভর তল্লাশি চললেও দুই ভাইয়ের দেহ মেলেনি। রাতের দিকেও তল্লাশি চালানো হয়েছে বলে খবর।
এই ঘটনার অন্যতম সাক্ষী হালতুর বাসিন্দা নিলয় মজুমদার জানিয়েছেন, ঘড়িতে তখন সকাল ৯টা বাজে। আমার এক আত্মীয়ের সঙ্গে আমি গঙ্গার ঘাটে গিয়েছিলাম পারলৌকিক কাজে সাহায্য করার জন্য। চোখের সামনে দেখলাম, এক যুবক গঙ্গায় স্নান করতে নামলেন। হঠাৎ মহিলার আর্তনাদ কানে এল। গঙ্গার দিকে তাকাতেই দেখি, দুই যুবক গঙ্গায় কার্যত 
হাবুডুবু খাচ্ছে। ঘটনাস্থলে উপস্থিত সবাই অসহায়ভাবে সেদিকে তাকিয়ে রয়েছে। এভাবে প্রায় তিন থেকে চার মিনিট সময় কেটে গেল। শেষে পাড়ে দাঁড়িয়ে থাকা দু’টি ছেলে 
সাহায্যের জন্য ডুবন্ত দুই ভাইয়ের দিকে গামছা এগিয়ে দিলেও তাতে লাভের লাভ কিছু হয়নি। কারণ, ততক্ষণে ভাটার টানে তাঁরা ভেসে গিয়েছেন অনেকটাই। খবর পেয়ে উদ্ধারকাজে নামেন কলকাতা রিভার ট্রাফিক পুলিসের উদ্ধারকারী লঞ্চ ও ডিএমজি’র ডুবরিরা। কিন্তু বুধবার রাত পর্যন্ত নিখোঁজ দুই ভাইয়ের হদিশ মেলেনি বলে লালবাজার সূত্রে জানা গিয়েছে।
কলকাতা পুলিস জানিয়েছে, নিখোঁজ দুই যুবকের বাড়ি খিদিরপুরের কার্ল মাকর্স সরণিতে। এদিন সকালে মা এবং এক আত্মীয়ের সঙ্গে প্রয়াত দাদুর পারলৌকিক কাজের জন্য নীতীশ ও সানি গঙ্গায় এসেছিলেন। প্রথমে ভাই নীতীশ নদীতে নামে। হঠাৎ সে তলিয়ে যেতে থাকে। তাকে ওই অবস্থায় দেখে গঙ্গায় ঝাঁপ দেন দাদা সানি। এরপর একই অবস্থা হয় দাদারও। সানিও ধীরে ধীরে তলিয়ে যান। পরিবারের দাবি, দুই ভাইয়ের কেউই সাঁতার জানত না।
দুর্ঘটনার খবর পেয়ে খিদিরপুরের বাড়ি থেকে নীতীশ ও সানির বাবা ধনেশ্বর সাউ গোয়ালিয়র ঘাটে চলে আসেন। দুই ভাই গঙ্গায় তলিয়ে যাওয়ার খবর শুনে তাঁদের প্রতিবেশীরা রীতিমতো উদ্বিগ্ন। পাড়ার মোড়ে মোড়ে জটলা। ঘন ঘন বাসিন্দারা ফোন করে খবর নিচ্ছেন, নিখোঁজ দুই ভাইয়ের খোঁজ মিলল কি না। এদিকে, দুর্ঘটনার পর উপস্থিত লোকজন প্রশাসনের উদ্দেশে রীতিমতো ক্ষোভ উগরে দিয়ে বলেন, গঙ্গার এই ঘাটে প্রতিদিন বহু মানুষ তাঁদের মৃত পরিজনদের পারলৌকিক কাজ করতে আসেন। হরিদ্বারের মতো এখানেও যদি গঙ্গার ঘাটে লোহার শিকল বাঁধা যায়, তাহলে এই ধরনের দুর্ঘটনা এড়ানো যাবে। উল্লেখ্য, এই প্রথম নয়। এই ঘাটের গভীরতা স্বাভাবিকের তুলনায় অনেকটা বেশি হওয়ায় পরিজনের পারলৌকিক কাজ সারতে এসে তলিয়ে গিয়েছেন সাঁতার না জানা অনেকেই।

23rd     March,   2023
 
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ