দেশ

নিট আয়োজনের সমস্ত ধাপ খতিয়ে দেখতে চাইছে সিবিআই

নয়াদিল্লি: রবিবার থেকে ডাক্তারির সর্বভারতীয় পরীক্ষা নিটে দুর্নীতি নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে সিবিআই। শুরু থেকেই এই তদন্তে পরিকল্পনা করে এগতে চাইছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। সিবিআইয়ের দুটি দল বিহার ও গুজরাতের গোধরায় গিয়ে তদন্ত শুরু করে দিয়েছে। সিবিআই সূত্রে খবর, নিট দুর্নীতির তদন্তকে চারটি ভাগে ভাগ করতে চাইছে তারা। প্রশ্নপত্র তৈরি ও ছাপা থেকে শুরু করে সেগুলি সারা দেশের পরীক্ষাকেন্দ্রে পাঠানো পর্যন্ত সমস্ত ধাপ খতিয়ে দেখবে সিবিআই। নিটের দায়িত্বে থাকা ন্যাশানাল টেস্টিং এজেন্সি বা এনটিএর তরফে পরীক্ষার গোপনীয়তা বজায় রাখার ক্ষেত্রে কোনও গাফিলতি হয়েছিল কি না, তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। নিটের প্রশ্নপত্র তৈরি, মুদ্রণ, ছাপার পর প্রশ্নপত্র সুরক্ষিত স্থানে নিয়ে যাওয়া ও সেখানে নিরাপত্তার দায়িত্বে যারা যারা ছিলেন, প্রত্যেকের ভূমিকা খতিয়ে দেখতে চাইছে তদন্তকারী সংস্থা। সিবিআই সূত্রে খবর, এই প্রত্যেকটি ধাপের সঙ্গে যাঁরা জড়িত ছিলেন, তাঁদের সকলেরই দায়িত্ব ছিল নিটের গোপনীয়তা বজায় রাখা। একইসঙ্গে ব্যাপম কেলেঙ্কারি সহ বিভিন্ন প্রশ্নফাঁসের তদন্ত থেকে পাওয়া এক হাজার নাম ও ফোন নম্বরও খতিয়ে দেখছেন সিবিআই আধিকারিকরা। আগের ঘটনাগুলির সঙ্গে জড়িত কেউ নিট দুর্নীতির পিছনে থাকলে, সেক্ষেত্রে এই চক্রের বিষয়ে আরও পরিষ্কার ধারণা মিলতে পারে বলে মনে করছেন তাঁরা।
এদিকে, সোমবার নিট দুর্নীতির তদন্তে গুজরাতের গোধরায় যায় সিবিআইয়ের একটি দল। গত ৮ মে নিটে অনিয়মের অভিযোগ তুলে গোধরা পুলিসে একটি মামলা দায়ের হয়। মাথাপিছু ১০ লক্ষ টাকার বিনিময়ে ২৭ জন নিট পরীক্ষার্থীকে বিভিন্নভাবে সাহায্য করা হয় বলে অভিযোগ করা হয়েছিল। পাঁচমহলের পুলিস সুপার হিমাংশু সোলাঙ্কি জানান, সিবিআইয়ের আধিকারিকরা পুলিসকর্মীদের সঙ্গে কথা বলেছেন। পুলিসের তরফে সিবিআইকে সবরকম সাহায্য করা হচ্ছে। রবিবার গুজরাত সরকারের তরফে নিট সংক্রান্ত সমস্ত অভিযোগের তদন্তভার পুলিসের হাত থেকে সিবিআইয়ের হাতে তুলে দেওয়ার কথা ঘোষণা করা হয়। এখনও পর্যন্ত নিট দুর্নীতিতে জড়িত থাকার অভিযোগে গুজরাতে পাঁচজন গ্রেপ্তার হয়েছে। এর মধ্যে গোধরার একটি স্কুলের প্রিন্সিপাল ও শিক্ষক রয়েছেন। তুষার ভাট নামে ওই শিক্ষকের থেকে ৭ লক্ষ টাকা উদ্ধার হয়েছে। ওই ২৭ জন পড়ুয়াকে বলা হয়েছিল, যে প্রশ্নের উত্তর তারা জানে না, ওএমআর শিটে সেই প্রশ্নের উত্তর ফাঁকা রাখতে। পরীক্ষার পরে সেই উত্তর লিখে দেওয়া হবে বলে জানানো হয়। তবে সূত্রের খবর, ২৭ জনের মধ্যে মাত্র তিনজনই নিট পাশ করেছে।
এদিকে, নিট দুর্নীতির সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে মহারাষ্ট্র পুলিস। এদের মধ্যে দুজন শিক্ষকও রয়েছেন। ওই দুই শিক্ষককে শনিবারই আটক করেছিল মহারাষ্ট্র পুলিসের সন্ত্রাসদমন শাখা। রবিবার সকালে তাঁদের ছেড়ে দেওয়া হলেও পরে গ্রেপ্তার করা হয়। পাশাপাশি আরও দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। এর মধ্যে একজন দিল্লির বাসিন্দা। গঙ্গাধর নামে ওই ব্যক্তি চক্রের মাথা হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। পুলিস সূত্রে খবর, ধৃতদের দু’জনের ফোনে নিটের পরীক্ষা হলের টিকিট ও সন্দেহজনক লেনদেনের হদিশ মিলেছে। বিহার সরকারের তরফেও নিট দুর্নীতির তদন্তভার সিবিআইয়ের হাতে তুলে দেওয়ার কথা ঘোষণা করা হয়েছে। বিহার পুলিসের ইকোনমিক অফেন্সেস ইউনিট শনিবারও ঝাড়খণ্ডের দেওঘর থেকে ৫ জনকে গ্রেপ্তার করে। সব মিলিয়ে তারা এখনও পর্যন্ত ১৮ জনকে গ্রেপ্তার করেছে।
25d ago
কলকাতা
রাজ্য
বিদেশ
খেলা
বিনোদন
ব্ল্যাকবোর্ড
শরীর ও স্বাস্থ্য
বিশেষ নিবন্ধ
সিনেমা
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
আজকের দিনে
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
mesh

গুরুজনের থেকে অর্থকড়ি লাভ হতে পারে। স্বার্থান্বেষী আত্মীয়-স্বজনের সঙ্গে দূরত্ব রেখে চলুন। মনে চাঞ্চল্য।...

বিশদ...

এখনকার দর
ক্রয়মূল্যবিক্রয়মূল্য
ডলার৮২.৮১ টাকা৮৪.৫৫ টাকা
পাউন্ড১০৬.৫৫ টাকা১১০.০৬ টাকা
ইউরো৮৯.৫৫ টাকা৯২.৭১ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
*১০ লক্ষ টাকা কম লেনদেনের ক্ষেত্রে
দিন পঞ্জিকা