রাজ্য

প্রচার চালিয়ে যেতেই মোদির ধ্যান: মমতা

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা ও সংবাদদাতা, বারুইপুর: আর বাকি বলতে শেষ দফা। কিন্তু ষষ্ঠ দফার ভোটের পর থেকেই আত্মবিশ্বাস শিখরে উঠেছে বিরোধীদের। তারা সাফ দাবি করছে, দেশজুড়ে বিজেপি বিদায়ের রব উঠে গিয়েছে। মোদির পালে আর হাওয়া নেই। ৪০০ পারের দাবিও খুব শীঘ্রই বিগত এক দশকের সব থেকে বড় ‘জুমলা’ বলে প্রমাণিত হবে। আর সেটা বুঝেই শেষ মুহূর্তে গদি বাঁচাতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন বিদায়ী প্রধানমন্ত্রী। কেন এই আক্রমণ? মোদি ঘোষণা করেছেন, আজ, বৃহস্পতিবার প্রচার শেষ হলে কন্যাকুমারীর বিবেকানন্দ রকে ধ্যানে বসবেন তিনি। ২০১৯’এর নির্বাচন পর্বেও কেদারনাথে ধ্যানে বসেছিলেন তিনি। এবার এই ইস্যুতেই জ্বলে উঠেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রতিবার শেষ দফার ভোটের ৪৮ ঘণ্টা আগে মোদির এই ধ্যানে বসাটা আসলে নির্বাচনী কৌশল বলেই গর্জে উঠেছেন তিনি। মমতার কথায়, ‘নিয়মকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে প্রচার চালিয়ে যাবেন মোদি। তাই এই ভণ্ডামি।’ বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর হুঙ্কার, ‘ক্যামেরা নিয়ে ধ্যান! এর সম্প্রচারের বিরুদ্ধে আমরা নির্বাচন কমিশনে যাব।’
ইতিমধ্যেই অবশ্য কংগ্রেস এই এক ইস্যুতে কমিশনে নালিশ জানিয়েছে। ভোটের আগে সাইলেন্স পিরিয়ডে একে ভোটারদের প্রভাবিত করার ছক বলেই দাবি করেছে তারা। ঠিক যেভাবে গত লোকসভা ভোটের সময় কেদারনাথের গুহায় তাঁর ধ্যানের সম্প্রচার হয়েছিল। ভোটযুদ্ধের শেষ লগ্নে পৌঁছে বিরোধীরা মোদিকে এক ইঞ্চি জমি ছাড়তেও নারাজ। তাদের দাবি, নির্বাচন কমিশন প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ না নিলে তারা আদালতের দ্বারস্থ হবে। বিরোধী দলের প্রচার বন্ধ হওয়ার পর মোদির এই ধ্যান সম্প্রচারিত হলে বিজেপি একতরফা সুবিধা পাবে বলেও মত বিরোধী শিবিরের। মমতারও ক্ষোভ একই কারণে। বুধবার মেটিয়াবুরুজে তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের হয়ে প্রচারের পাশাপাশি বারুইপুরে যাদবপুরের তৃণমূলের প্রার্থী সায়নী ঘোষের সমর্থনেও জনসভা করেন মমতা। আর এই প্রচার পর্বের শেষ সভাটি করেন কালীঘাটে। সর্বত্রই তাঁর নিশানায় ছিল মোদির ভাঁওতাবাজি। মমতার কথায়, ‘এবার যে আর সরকারে ফেরা হচ্ছে না, সেটা উনি বুঝে গিয়েছেন। তাই নিজেকে দেবতার থেকেও বড় বলে মানুষের কাছে তুলে ধরছেন। তাই যদি হয়, ওঁর আর ধ্যানের কী প্রয়োজন? মানুষ তো ওঁর ধ্যান করবে। উনি নিজেই বলছেন, ওনাকে ঈশ্বর পাঠিয়েছেন, ঈশ্বরের দূত আবার ধ্যান করে নাকি?’ মোদি বিরোধী আক্রমণের ঝাঁঝ বাড়িয়ে তাঁর মন্তব্য, ‘সারা বছর দেশ এবং সংবিধানকে বিক্রি করে ভোটের মুখে বাংলায় এসে কুৎসা করছেন! বাংলায় এসে বলেছেন, এরাজ্যে বিজেপি উত্তরপ্রদেশের থেকেও ভালো ফল করবে!’ মমতার মতে, মোদির এই উক্তি থেকেই পরিষ্কার, বিজেপি এবার হেরে গিয়েছে। মোদির মিথ্যাচারের বিরুদ্ধে তাঁর তোপ, ‘উনি নাকি বাংলাকে বাঁধের টাকা দিয়েছেন? এক টাকাও দেননি। চ্যালেঞ্জ করছি। উনি এত মিথ্যা বলেন! দেশ কী শিখবে? ছোট ছোট ছেলে মেয়েরা কী শিখবে? এটা ভেবে সত্যিই খারাপ লাগে।’
বুধবার অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের হয়ে ভোটপ্রচারে মেটিয়াবুরুজে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। -নিজস্ব চিত্র
21d ago
কলকাতা
দেশ
বিদেশ
খেলা
বিনোদন
ব্ল্যাকবোর্ড
শরীর ও স্বাস্থ্য
বিশেষ নিবন্ধ
সিনেমা
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
আজকের দিনে
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
mesh

উচ্চশিক্ষায় নামী স্বদেশি/ বিদেশি প্রতিষ্ঠানে সুযোগ পেতে পারেন। স্ত্রীর স্বাস্থ্য বিষয়ে চিন্তা। কর্মে অগ্রগতি।...

বিশদ...

এখনকার দর
ক্রয়মূল্যবিক্রয়মূল্য
ডলার ৮২.৫৬ টাকা৮৪.৩০ টাকা
পাউন্ড১০৪.৩৩ টাকা১০৭.৮১ টাকা
ইউরো৮৮.০৪ টাকা৯১.১৭ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
*১০ লক্ষ টাকা কম লেনদেনের ক্ষেত্রে
দিন পঞ্জিকা