রাজ্য

‘উন্নত’ সরকারি হাসপাতালের সংখ্যায় দেশে তৃতীয় পশ্চিমবঙ্গ, শংসাপত্র দিল কেন্দ্র

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ‘উন্নত’ মানের সরকারি হাসপাতাল ও স্বাস্থ্যকেন্দ্রের সংখ্যায় দেশে তৃতীয় স্থানে উঠে এল বাংলা। প্রথম ও দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে যথাক্রমে তামিলনাড়ু ও গুজরাত। অন্য কেউ নয়, খোদ কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক সূত্রে জানা গিয়েছে এই তথ্য। 
ছোট, বড়, মাঝারি মিলিয়ে ৭-৮ হাজার থেকে ৪০-৪৫ হাজার সূচক বিচার করা হয়। ভিন রাজ্যের পরিদর্শকরা খুঁটিয়ে দেখেন পরিষেবা ও অন্যান্য খুঁটিনাটি। তারপরই দেশের সরকারি হাসপাতাল ও স্বাস্থ্যকেন্দ্রগুলিকে এই ‘গুণগত মান’-এর ‘এনকোয়াস’ (ন্যাশনাল কোয়ালিটি অ্যাসিওরেন্স স্ট্যান্ডার্ডস) শংসাপত্র প্রদান করে কেন্দ্রীয় সরকার। ’২২ সালের বাংলার মাত্র ১৩টি সরকারি হাসপাতাল-স্বাস্থ্যকেন্দ্র পেয়েছিল এই শংসাপত্র। ’২৩ সালে ১৬ গুণ বেড়ে হয়েছে ২১০টি। 
দপ্তর সূত্রের খবর, এই আর্থিক বছরের মধ্যে গুণগত মানের এনকোয়াস হাসপাতালের বিচারে দেশে শীর্ষস্থানে পৌঁছতে পারে বাংলা। দপ্তরের এক পদস্থ কর্তা বলেন, এপ্রিলের মধ্যে আরও ১০০টি সরকারি হাসপাতাল-স্বাস্থ্যকেন্দ্র ‘এনকোয়াস’ পাবে বলে আশাবাদী আমরা। 
স্বাস্থ্যভবন সূত্রের খবর, কেন্দ্রীয় সরকারের এই শংসাপত্র অর্জন করা  মোটেই মুখের কথা নয়। জেলা, মহকুমা, সুপারস্পেশালিটি এবং স্টেট জেনারেল—এই চার ধরনের হাসপাতালের ক্ষেত্রে প্রায় ৪০ হাজার সূচক দেখা হয়! ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্র ও গ্রামীণ হাসপাতালের ক্ষেত্রে দেখা হয় ২৫-৩০ হাজার সূচক। প্রায় ১০ হাজার মানদণ্ড বিচার করা হয় সুস্বাস্থ্যকেন্দ্রের ক্ষেত্রে। 
এনকোয়াস-এর এমনই কয়েকটি সূচক বা মানদণ্ড তুলে ধরা হল—১) সমস্ত পরিষেবা আছে, নাকি নেই ২) ওষুধ ও চিকিৎসা যন্ত্রপাতি আছে না নেই ৩) সংক্রমণ মোকাবিলার ব্যবস্থা কেমন ৪) রোগীদের ডায়েট, হাসপাতালের নিরাপত্তা ও পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা কেমন ৫) চিকিৎসা পরিষেবার অবস্থা কেমন ৬) নিয়ম মেনে অ্যান্টিবায়োটিক দেওয়া হচ্ছে কিনা ৬) যে কোনও ধরনের খামতি মেটাতে কী কী ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে ইত্যাদি। 
স্বাস্থ্যভবন সূত্রের খবর, ‘এনকোয়াস’ ছাড়া ‘লক্ষ্য’ (প্রসূতি চিকিৎসায় শংসাপত্র) এবং ‘মুসকান’ (শিশুদের চিকিৎসায় সার্টিফিকেট)—কেন্দ্রীয় আরও দুই শংসাপত্র পাওয়ার ক্ষেত্রেও স্বাস্থ্যে সেরা রাজ্যগুলির সঙ্গে সেয়ানে সেয়ানে টক্কর দিচ্ছে রাজ্য। ২০২২ সালে রাজ্যের মাত্র ৬টি হাসপাতাল ‘লক্ষ্য‌’ শংসাপত্র পেয়েছিল। ’২৩ সালে বেড়ে হয়েছে ১৫টি। অন্য‌দিকে ’২২ সালে একটিও সরকারি হাসপাতাল ও স্বাস্থ্য‌঩কেন্দ্রের ‘মুসকান’ শংসাপত্র ছিল না। সেখানে ‘২৩ সালে এই শংসাপত্র পেল বাংলার ১১টি হাসপাতাল-স্বাস্থ্যকেন্দ্র। 
4Months ago
কলকাতা
দেশ
বিদেশ
খেলা
বিনোদন
ব্ল্যাকবোর্ড
শরীর ও স্বাস্থ্য
বিশেষ নিবন্ধ
সিনেমা
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
আজকের দিনে
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
mesh

মাতুলের থেকে বিত্তলাভ হতে পারে। কোনও বিষয়ের মানসিক উদ্বেগ কমবে। বিদ্যাচর্চায় বিশেষ শুভ।...

বিশদ...

এখনকার দর
ক্রয়মূল্যবিক্রয়মূল্য
ডলার৮২.৬৬ টাকা৮৪.৪০ টাকা
পাউন্ড১০৩.৮৯ টাকা১০৭.৩৫ টাকা
ইউরো৮৭.৭৬ টাকা৯০.৮৮ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
*১০ লক্ষ টাকা কম লেনদেনের ক্ষেত্রে
25th     June,   2024
দিন পঞ্জিকা