রাজ্য

১৪ দিনের ইডি হেফাজতে
কালীঘাটের ‘কাকু’

নিজস্ব প্রতিনিধি,কলকাতা: নিয়োগ দুর্নীতিতে ধৃত সুজয়কৃষ্ণ ভদ্র ওরফে কালীঘাটের ‘কাকুর’ সঙ্গে মানিক ভট্টাচার্যের যোগ রয়েছে।  প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের প্রাক্তন সভাপতির কাছে অযোগ্য প্রাথীদের নামের তালিকা অ্যাডমিট কার্ড ও মার্কশিট সমেত পাঠিয়েছিলেন কাকু। বুধবার আদালতে এমনটাই দাবি করল ইডি। সেই সঙ্গে ২০১৪ টেট অনুত্তীর্ণ প্রার্থী অযোগ্যদের চাকরি করে দেবার জন্য কুন্তল ৭০ লক্ষ টাকা দিয়েছিলে কাকুকে। এই সমস্ত নথি  ও তথ্য প্রমাণ যাতে তদন্তকারী সংস্থার হেফাজতে না আসে তারজন্য এক ঘনিষ্ঠকে দিয়ে তথ্য প্রমাণ নষ্ট করে দেন বলে জানানো হয়েছে ইডি’র তরফে। বুধবার সুজয়কৃষ্ণ ভদ্রকে ইডি’র বিশেষ আদালতে তোলা হলে ১৪ দিনের জন্য তদন্তকারীদের হেফাজতে রাখার নির্দেশ দেন বিচারক।
নিয়োগকাণ্ডে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মঙ্গলবার কালীঘাটের কাকুকে ডেকে পাঠানো হয় সল্টলেকের সিজিও কমপ্লেক্সে ইডির দপ্তরে। সূত্রের খবর, জেরায় প্রথম থেকে অসহযোগিতা করতে থাকতেন তিনি। বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর এড়াতে থাকেন। তদন্তকারীদের দাবি, জেরা এড়াতে তিনি খাবার খেতেও অস্বীকার করেন। এমনকী এদিন সকালে কিছু মুখে তোলেননি। অনশনের হুমকি দিচ্ছেন। প্রথমে নিজের ক্ষমতা দেখানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু বিভিন্ন নথি তাঁর সামনে তুলে ধরতেই কাঁদতে শুরু করেন। ইডির আইনজীবী ফিরোজ এডুলজি, অভিজিৎ ভদ্র ও ভাস্কর প্রসাদ বন্দোপাধ্যায় এদিন আদালতে বলেন, জেলবন্দি তাপস মণ্ডল তদন্তকারী এজেন্সির কাছে দাবি করেছেন, টেট ২০১৪’তে পাশ না করা ৩২৫ জনের একটি তালিকা সুজয় ভদ্র মারফত পাঠান মানিকের কাছে। মানিকের সঙ্গে সম্পর্কের বিষয়ে কাকুকে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন, ২০২১’র আগে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের সভাপতিকে চিনতেন না। মানিকের বাজেয়াপ্ত করা মোবাইলের হোয়াটসঅ্যাপ মেসেজ ঘেঁটে তাঁরা জেনেছেন, ২০১৪ টেটে পাস না করা অযোগ্যদের  অ্যাডমিট কার্ড, মার্কশিট মেসেজ করে পাঠান মানিককে। দুজনের যোগাযোগ ২০১৮ সাল থেকে।
ইডির দাবি,  ২০১৪ টেট পাস না করেও ওই তালিকার সকলেই শিক্ষক পদে চাকরি পান। এই পর্বে প্রথমে সুজয়কে ৭০ লক্ষ এবং পরে আরও ১০ লক্ষ টাকা পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে দিয়েছিলেন কুন্তল। ইডির আইনজীবী ফিরোজ এডুলজি আদালতে বলেন, রাহুল বেরা নামে একজনের মাধ্যমে সুজয়বাবু মোবাইলে থাকা নথি, অ্যাডমিট ও ছবি নষ্ট করেন।  যাতে তদন্ত শ্লথ হয়। ইডির দাবি, সবিমিলিয়ে দুর্নীতির অঙ্ক কয়েকশো কোটি টাকার।  সুজয়বাবুর আইনজীবী সেলিম রহমান বলেন তাঁর মক্কেলকে গ্রেপ্তারের পর জানানো হয়নি। আর অবৈধভাবে তাঁর বাড়িতে তল্লাশি ও গ্রেপ্তার করা হয়। যদি ইডি দাবি করেছে, গ্রেপ্তারের পর কাকুর বাড়িতে ফোন করা হয় ল্যান্ডলাইন থেকে। তাঁর স্ত্রীকে বলা হয় গোটা বিষয়। নিয়ম মেনে এবং ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে সবকিছু করা হয়েছে। সেই কপিও তাদের তরফে বিচারককে দেখানো হয়েছে।
12Months ago
কলকাতা
দেশ
বিদেশ
খেলা
বিনোদন
ব্ল্যাকবোর্ড
শরীর ও স্বাস্থ্য
বিশেষ নিবন্ধ
সিনেমা
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
আজকের দিনে
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
mesh

উচ্চশিক্ষায় নামী স্বদেশি/ বিদেশি প্রতিষ্ঠানে সুযোগ পেতে পারেন। স্ত্রীর স্বাস্থ্য বিষয়ে চিন্তা। কর্মে অগ্রগতি।...

বিশদ...

এখনকার দর
ক্রয়মূল্যবিক্রয়মূল্য
ডলার ৮২.৫৬ টাকা৮৪.৩০ টাকা
পাউন্ড১০৪.৩৩ টাকা১০৭.৮১ টাকা
ইউরো৮৮.০৪ টাকা৯১.১৭ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
*১০ লক্ষ টাকা কম লেনদেনের ক্ষেত্রে
দিন পঞ্জিকা