বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
রাজ্য
 

‘গো ব্যাক’ স্লোগানে মেজাজ হারালেন অধীর চৌধুরী, তৃণমূল কর্মীকে নিগ্রহ

নিজস্ব প্রতিনিধি, বহরমপুর: বহরমপুরে প্রচারে বেরিয়ে ব্যাপক বিক্ষোভের মুখে পড়ে মেজাজ হারালেন বিদায়ী কংগ্রেস সাংসদ অধীর চৌধুরী। তৃণমূল কর্মীদের ‘গো-ব্যাক’ স্লোগান শুনে গাড়ি থেকে নেমে এক তৃণমূল কর্মীর দিকে মারমুখী হয়ে এগিয়ে যান তিনি। অভিযোগ, তৃণমূলের সেই কর্মীকে সজোরে ধাক্কাও দেন তিনি। পিছু পিছু কংগ্রেসের নেতা-কর্মীরাও সেখানে গিয়ে তৃণমূল কর্মীদের সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে পড়েন। দু’পক্ষের মধ্যে হাতাহাতি পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। ‘সাংসদ গায়ে হাত তুলেছেন’, এই অভিযোগে রাস্তায় বসে বিক্ষোভ শুরু করেন তৃণমূল কর্মীরা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে বহরমপুর থানার পুলিস হাজির হয়ে বিক্ষোভকারীদের সরিয়ে দেয়। তারপর দু’পক্ষের বেশ কয়েকজনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। 
শনিবার সকালে প্রচার শেষে ফেরার পথে রাধারঘাট ফেরিঘাট এলাকায় রাস্তার উপরে তৃণমূল কর্মীদের বিক্ষোভের মুখে পড়েন অধীর। তাঁর গাড়ি দেখে তৃণমূলের কয়েকজন ‘গো-ব্যাক’ স্লোগান তোলেন। রাগে গাড়ি থেকে নেমে বিক্ষোভকারীদের দিকে তেড়ে যান। স্থানীয় একটি মন্দিরের সিসিটিভি ক্যামেরায় ধরা পড়ে, বিভান দে নামে এক তৃণমূল কর্মীকে মারতে উদ্যত অধীর। বিভান বলেন, ‘কংগ্রেস সাংসদ কোনও কাজ করেননি। আমরা সে কথাই জানাচ্ছিলাম। উনি এসে আমাকে মারধর করেছেন।’ প্রতিবাদে দুপুরে বহরমপুরের কোর্ট বাজার চত্বর থেকে প্রতিবাদ মিছিল বের করে তৃণমূল। 
অধীর বলেন, প্রচার শেষে বাড়ি ফেরার সময় হঠাৎ শুনি ‘গো ব্যাক’ স্লোগান। কয়েকজন কিছু বাজে কথাও বলছে। বিরক্ত হয়ে গাড়ি থেকে নামলাম। বললাম, ভাই নির্বাচন করার অধিকার তোমাদের আছে, আমারও আছে। আমার প্রচারে বাধা দিতেই ওদের নামানো হয়েছে। পুর নির্বাচনেও ঠিক একই কাজ করেছিল তৃণমূল। তবে আমি কাউকে মারিনি। বর্ষীয়ান তৃণমূল নেতা অশোক দাস বলেন, পায়ের তলায় মাটি সরে গিয়েছে বলেই তিনি এমন আচরণ করছেন। এখানেই শেষ নয়। বহরমপুরে উগ্র ভাটপাড়া এলাকায় চড়কপুজোর অনুষ্ঠানে গিয়ে বেশ কিছু ৫০০ টাকার নোট এক উদ্যোক্তার হাতে গুঁজে দিতে দেখা যায় কংগ্রেস প্রার্থীকে। সেই ভিডিও নিয়েও সরব হয়েছে তৃণমূল। জেলার তৃণমূল সভাপতি অপূর্ব সরকার বলেন, ‘অধীরবাবুর টাকা দেওয়ার ভিডিও আমরা দেখেছি। এনিয়ে আইনি পদক্ষেপ কী হবে তা আলোচনাও করছি।’ অধীর বলেন, ‘মন্দিরে দানপাত্র না দেখে আমি টাকাটা একজনের হাতে দিয়ে বললাম, ওখানে দিয়ে দিতে। সেটা যদি অপরাধ হয়, তাহলে অপরাধ।’ -নিজস্ব চিত্র

14th     April,   2024
 
 
অক্ষয় তৃতীয়া ১৪৩১
 
কলকাতা
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ