বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
রাজ্য
 

আরও বেশি ভোটে জিতবে মহুয়া: মমতা

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: মহুয়া মৈত্রর পাশে দল ছিল, আছে এবং থাকবে। মহুয়া লড়াইয়ে জয়ী হবেই। আগামী নির্বাচনে বিজেপিকে যোগ্য জবাব দেবেন মানুষ— প্রত্যয়ী ঘোষণা তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। একইসঙ্গে তাঁর সংযোজন, আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে মহুয়ার প্রার্থী না হওয়ার তো কারণ এখনও পর্যন্ত দেখছি না। ওঁকে কৃষ্ণনগর সাংগঠনিক জেলার সভানেত্রী করা হয়েছে। দল আছে ওঁর সঙ্গে। অর্থাৎ সংসদ থেকে বহিষ্কার করা হলেও, মহুয়ার লড়াইকে কুর্নিশ জানিয়ে কার্যত লোকসভা ভোটে দলের ‘প্রথম প্রার্থী’ ঘোষণা করে দিলেন তৃণমূল নেত্রী। বিজেপি সাংসদ সংখ্যার জোরে মহুয়াকে ‘অন্যায়ভাবে বহিষ্কার’ করেছে বলে অভিযোগ তুলে মমতা ১০০ ভাগ আশাবাদী, আগামী দিনে জনগণের আদালতে সে জয়ী হবেই।
সংসদীয় রাজনীতির ইতিহাসে স্মরণীয় হয়ে থাকল শুক্রবার। সংসদ থেকে বহিষ্কৃত হলেন কৃষ্ণনগরের তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র। সংসদে ‘টাকা নিয়ে প্রশ্ন’ কাণ্ডে তাঁকে এথিক্স কমিটির রিপোর্ট অনুযায়ী বহিষ্কার করা হয়েছে। কিন্তু এভাবে বহিষ্কার’কে ‘সুবিচার’ বলে মনে করেন না মমতা। মহুয়ার বহিষ্কারের খবর শুনে উত্তরবঙ্গ সফররত অবস্থায় বিজেপির বিরুদ্ধে ক্ষোভে ফেটে পড়েন তিনি। বলেন, খুবই দুঃখজনক। মহুয়া মৈত্র কৃষ্ণনগরের জনগণের দ্বারা নির্বাচিত। ভোটে তাঁকে পরাজিত করতে না পেরে, আত্মপক্ষ সমর্থনের সুযোগ না দিয়ে, রাজনৈতিক প্রতিহিংসা চরিতার্থ করবার জন্য, এই ঘটনা ঘটানো হয়েছে। গণতন্ত্রকে হত্যা করা হয়েছে, আমি ধিক্কার জানাই। গণতন্ত্রে এটা কাঙ্ক্ষিত নয়। এর মধ্যে দিয়ে প্রমাণিত হল বিজেপি প্রতিহিংসার রাজনীতি করে। 
এথিক্স কমিটির ৪৯৫ পাতার রিপোর্ট এদিনই সংসদে পেশ করা হয়েছে। সেই রিপোর্ট পড়তে তিন-চারদিন সময় চাওয়া হলেও, তা দেওয়া হয়নি বলে তৃণমূলের অভিযোগ। মাত্র আধ ঘণ্টার মধ্যে আলোচনা শেষ করা এবং মহুয়াকে আত্মপক্ষ সমর্থনে বলতে না দেওয়ার প্রসঙ্গটি সামনে এনেছে বাংলার শাসক দল। মমতা আশা করেছিলেন, অন্তত প্রধানমন্ত্রী বিষয়টিতে হস্তক্ষেপ করবেন। কিন্তু তা না হওয়ায় চড়া সুরে মমতা বলেছেন, মহুয়া তরুণ প্রজন্মের একজন মহিলা সাংসদ। আমরা চেয়েছিলাম সুবিচার হোক। কিন্তু তুমি (বিজেপি) সিবিআই করবে, আবার বহিষ্কারও করবে। এমনকী ঘটল, যে একজন মহিলা সাংসদকে তাড়িয়ে দিতে হবে? সাংসদ সংখ্যার জোরে বিজেপি গণতন্ত্রের বাইপাস সার্জারি করেছে। সংসদের গরিমা নষ্ট করেছে। দু’তিন মাস বাদে নির্বাচন। বড়জোড় আর একটা অধিবেশনে যেতে পারত। সেই সুযোগটাও দেওয়া হল না। 
গুরুত্বপূর্ণ হল, মহুয়ার পাশে সোনিয়া-রাহুল গান্ধী সহ ইন্ডিয়া জোটের নেতা-নেত্রীরা যেভাবে পাশে দাঁড়িয়েছেন, তাতে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন মমতাও। জানিয়েছেন, ইন্ডিয়া মহাজোটের শরিক রাজনৈতিক দলের নেতাদের ধন্যবাদ জানাই। আমরা ঐক্যবদ্ধ। একজোট হয়ে লড়াই করব। এদিন মহুয়ার খবর সামনে আসতেই কলকাতায় বিজেপির বিরুদ্ধে প্রতিবাদে গর্জে ওঠেন রাজ্যের মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য, শশী পাঁজা। তাঁদের মূল বক্তব্য, বিজেপি নারী বিদ্বেষী।

9th     December,   2023
 
 
কলকাতা
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ