বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
রাজ্য
 

এবার আদালতের বাইরে অনলাইনে আইনি সুরাহা ঠকে যাওয়া ক্রেতাদের

বাপ্পাদিত্য রায়চৌধুরী, কলকাতা: জিনিস কিনে প্রায়ই ঠকে যান অনেক ক্রেতা। সুরাহা পেতে তাঁদের শেষ ঠিকানা হয় আদালত। দীর্ঘদিন মামলা মকদ্দমায় নাভিশ্বাস ওঠে অনেকেরই। এদিকে কেন্দ্রীয় সরকারের তথ্য বলছে, বিভিন্ন আদালতে ক্রেতা সুরক্ষা সংক্রান্ত মামলা ঝুলে আছে প্রায় পাঁচ লক্ষ। সে-সবের নিষ্পত্তি কবে হবে, তা কেউ জানেন না। তাহলে উপায়? ক্রেতাদের সুরক্ষা দিতে এবার বিকল্প উপায় আনতে চলেছে ক্রেতাসুরক্ষা মন্ত্রক। আদালতে না গিয়ে আইনি সাহায্য নিয়েই এবার ঘরে বসে অনলাইনে সুরাহা পাবেন ক্রেতারা।
ক্রেতা কোনও জিনিস কিনে ঠকে গেলে কিংবা কোনও পরিষেবায় সন্তুষ্ট না-হলে সংশ্লিষ্ট সংস্থায় অভিযোগ দায়ের করতে পারেন তিনি। অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায়, সেই অভিযোগকে গুরুত্ব দেওয়া হয় না। সেক্ষেত্রে সুরাহা পেতে ক্রেতার কাছে দু’টি রাস্তা খোলা থাকে। (এক) মধ্যস্থতার মাধ্যমে সামধান, (দুই) আদালতে মামলা। প্রথম ক্ষেত্রে ক্রেতা সুরক্ষা দপ্তর বা কেন্দ্রীয় ক্রেতা সুরক্ষা মন্ত্রকে অভিযোগ জানাতে পারেন ক্রেতা। সেখান থেকে তাঁর অভিযোগটি পাঠানো হয় সংশ্লিষ্ট সংস্থায়। ক্রেতা ও বিক্রেতাকে আলোচনায় বসে সমস্যাটির মিটমাট করে নেওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হয় সরকারের তরফে। এরাজ্যে ক্রেতাসুরক্ষা দপ্তরের আওতায় যে বিভাগ আছে, সেখানে দু’পক্ষের মধ্যে রফা করার সুযোগ করে দেন দপ্তরের কর্মীরা। এমন মধ্যস্থতায় সুরাহা না-পেলে ক্রেতারা কনজিউমার ফোরামের দ্বারস্থ হতে পারেন। 
ক্রেতাসুরক্ষা মন্ত্রক এই দুই পন্থার মাঝামাঝি একটি সমাধান পর্ব চালু করতে চাইছে। সেক্ষেত্রে অনলাইনে পোর্টালে অভিযোগ নেওয়া হবে। দপ্তরের কর্মীরা সেসব খতিয়ে দেখে পাঠাবেন সংশ্লিষ্ট সংস্থার কাছে। সুরাহা জানা যাবে পোর্টালেই। অভিযোগটি ‘ট্র্যাক’ করতে পারবেন ক্রেতা। সংশ্লিষ্ট সংস্থাটি সুরাহা দিতে অস্বীকার করলে অথবা তাদের প্রস্তাব ক্রেতার অপছন্দ হলে আইনি পরামর্শ নেওয়া যাবে পোর্টালেরই মাধ্যমে। আইন বিশেষজ্ঞের পারিশ্রমিকের অঙ্ক ঠিক করে দেবে ওই পোর্টাল। অভিযোগ নিষ্পত্তির বিষয়টি দেখবেন দপ্তরের কর্মীরা। তবে পোর্টালটি প্রযুক্তিগতভাবে চালিয়ে নিয়ে যেতে বেসরকারি সংস্থার সাহায্য নেবে মন্ত্রক। 
সূত্রের খবর, অনলাইন পোর্টাল চালুর বিষয়ে ইতিমধ্যেই সরকার নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে। শুরু হয়েছে সংশ্লিষ্ট বেসরকারি সংস্থা নির্বাচনের টেন্ডার প্রক্রিয়াও। প্রকল্পটির রূপরেখা চূড়ান্ত হলে ক্রেতারা তাঁদের অভিযোগের সুরাহার নতুন দিশা পাবেন শীঘ্রই। এই ব্যাপারে আশাবাদী মন্ত্রক।

9th     December,   2023
 
 
কলকাতা
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ