বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
রাজ্য
 

বাংলায় বিজেপি ৫টা পেয়ে দেখাক: মমতা

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: তিন রাজ্যে ‘অবিশ্বাস্য’ জয়, কংগ্রেসের একলা চলো নীতির প্রতি অনাস্থা, মহাজোট ইন্ডিয়ার ক্ষোভ। রবিবার এটাই ছিল জাতীয় রাজনীতির চালচিত্র। কিন্তু এই আবহকে পাল্টা আক্রমণের অভিমুখে ঘুরিয়ে দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই অমিত শাহের ৩৫টি আসনের টার্গেটকে খোলা চ্যালেঞ্জ ছুড়লেন তিনি। স্পষ্ট বুঝিয়ে দিলেন, বিজেপির বাংলা দখলের আশা দিবাস্বপ্ন হয়েই থেকে যাবে। সোমবার নেত্রীর হুঙ্কার, ‘লোকসভা ভোটে বাংলায় বিজেপি আগে ৫টি আসন পেয়ে দেখাক!’ 
‘অব কি বার ২০০ পার’—বিধানসভা ভোটের আগে অমিত শাহের এই ডাক ফিকে হয়ে গিয়েছিল ফলপ্রকাশের দিনই। এবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দাবি, ৩৫ আসন পাবে বিজেপি। গত বুধবার কলকাতায় সভা করতে এসে অবশ্য ৩৫ সংখ্যাটি মুখে আনেননি তিনি। তবে বিপুল আসন জয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। বঙ্গ বিজেপির অন্দরমহলও অবশ্য এতদূর ভাবছে না। একটি মহল থেকে ২৫ আসন জয়ের টার্গেট দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু সেটাও কি সম্ভব? মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বার্তা, একেবারেই না। বিধানসভায় দাঁড়িয়ে তাঁর হুঁশিয়ারি, ‘আমি দুর্বল নই। আগে ৫টা আসন পেয়ে দেখাক।’ তারপরই বিধানসভার বাইরে বিজেপির লাড্ডু বিতরণ নিয়ে তাঁর কটাক্ষ, ‘মাত্র একটা নির্বাচনে জিতে বাবুদের কী অবস্থা! বিধানসভার বাইরে লাড্ডু বিলোচ্ছে! আমি বলব, পারলে তিন দিন ধরে লাড্ডু বিলাও। বেল পাঁকলে কাকের কী? ওটা কংগ্রেসের পরাজয়, মানুষের পরাজয় নয়।’ অর্থাৎ একইসঙ্গে বিজেপি এবং কংগ্রেসকে এদিন বিঁধে দিলেন মমতা। এই দফায় সোনিয়া গান্ধীর দলের ভোট-কৌশল নিয়ে তিনি যে রীতিমতো অসন্তুষ্ট সেটাই বোঝালেন তিনি। বললেন, ‘সমস্যাটা হল আসন সমঝোতার। একটি দল ছ’টা আসন চেয়েছিল। ৩টি আসন অন্তত দিতে পারত। ৭০টি আসনে হেরেছে শুধুমাত্র সমঝোতা না হাওয়ার জন্য। বাস্তব তথ্য বলছে, কংগ্রেস পেয়েছে ৩৯ শতাংশ ভোট। ওরা পেয়েছে ৪২ শতাংশ। আর ইন্ডিয়া জোটের শরিকরা ভোট কেটেছে ১২ শতাংশ। মানে ভোট কাটাকাটির জয়। ভুল নীতির জন্যই এটা হয়েছে। ইন্ডিয়া জোটের শরিকদের মধ্যে আসন সমঝোতা হলে বিজেপি ২০২৪ সালে আর ক্ষমতায় ফিরবে না।’ তাঁর স্পষ্ট যুক্তি, ‘আগে দরকার আসন সমঝোতা। সেখানে কোনও সমস্যা থাকলে তা আগে মেটাতে হবে। শুধুমাত্র প্রচার, আর বিজ্ঞাপন করলেই চলবে না। রাজনৈতিক মতাদর্শের সঙ্গে স্ট্র্যাটেজি মেশাতে হবে। শুধু উপর থেকে নেতাদের বক্তব্য চাপিয়ে দেওয়া নয়, কর্মীদের মাঠে নেমে কাজ করতে হবে।’ তিন রাজ্যের ভোটের ‘অবিশ্বাস্য’ ফলের আবহেই বিজেপিকে মমতার হুঁশিয়ারি, ‘অহংকার, ঔদ্ধত্য পতনের কারণ। এজেন্সি সিলেকশন দিয়ে ভোট করাবে বিজেপি। ভুলত্রুটি শুধরে ইন্ডিয়াকে একজোট হয়ে লড়তে হবে।’

5th     December,   2023
 
 
কলকাতা
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ