Bartaman Patrika
আমরা মেয়েরা
 

লেডি ম্যাকবেথ 
হন তিনকড়ি দাসী

শ্যামলী আচার্য: কালীকৃষ্ণ ঠাকুরের বাড়িতে পুজো। সেই উপলক্ষে বাড়িতে সিটি থিয়েটারের বায়না ছিল। অভিনয় দেখার জন্য দর্শকদের মধ্যে সেদিন উপস্থিত ছিলেন স্বয়ং গিরিশচন্দ্র ঘোষ। অভিনয়ের শেষে শিল্পীরা প্রণাম করছেন তাঁকে। দীঘল একটি মেয়ে, কাঁচা সোনার মতো গায়ের রং, অভিনয়ের সময়েই শোনা গিয়েছে তাঁর চড়া গলার দাপট। মেয়েটি এসে লুটিয়ে প্রণাম করলেন নাট্যাচার্যকে। গিরিশচন্দ্রের জহুরির চোখ। সিটি থিয়েটারের কর্ণধার নীলমাধব চক্রবর্তীকে ডেকে জিজ্ঞেস করলেন, ‘কে এই নতুন মেয়েটি?’    
মেয়েটির পরিচয় শুধু নয়, তাঁকে মনে করে রেখেছিলেন গিরিশচন্দ্র। তাঁর গলায় সবরকম সুর খেলা করে, তাঁর দীঘল চেহারাটিও রঙ্গমঞ্চে চোখে পড়ার মতো। অথচ এতদিন মেয়েটি শুনে এসেছে, সে তেঠেঙে লম্বা, তার দ্বারা নায়িকার চরিত্র হওয়ার নয়। 
কিছুদিনের মধ্যেই নাগেন্দ্রভূষণ মুখোপাধ্যায় মিনার্ভা থিয়েটারে অধ্যক্ষ পদের জন্য ডেকে পাঠালেন গিরিশচন্দ্রকে। এই নাগেন্দ্রভূষণ ছিলেন পাথুরিয়াঘাটার প্রসন্নকুমার ঠাকুরের দৌহিত্র। গ্রেট ন্যাশনাল থিয়েটারের খালি জমি তিনি লিজ নিলেন সিমলার মহেন্দ্রনাথ দাসের কাছ থেকে। স্টার থিয়েটার কর্তৃপক্ষের সঙ্গে তখন গিরিশচন্দ্রের মনোমালিন্য চরমে। মামলা চলছে। ঠিক এই সুযোগটির প্রতীক্ষায় ছিলেন গিরিশ। স্টার  থিয়েটারের ঔদ্ধত্য আর অপমানের জবাব দিতে তিনি এসে দায়িত্ব নিলেন মিনার্ভার। অনুবাদ করতে শুরু করলেন শেক্সপিয়রের ‘ম্যাকবেথ’। নাট্যসমালোচকেরা বলেন, এর আগেও ম্যাকবেথের অনুবাদ হয়েছে, তার পরেও হয়েছে। কিন্তু বাংলা রঙ্গমঞ্চের অভিনয়ের উপযোগী যে অনুবাদ সেদিন গিরিশচন্দ্র করেছেন, তা ছিল তাঁর সেরা কাজ। নিষ্ঠা আর পরিশ্রম— সবটা তিনি ঢেলে দিয়েছিলেন ম্যাকবেথের অনুবাদে।  
মহলা শুরু হল। ‘লেডি ম্যাকবেথ’ চরিত্রটি দেওয়া হল তখনকার স্বনামধন্য অভিনেত্রী প্রমোদাসুন্দরীকে। শুরু হল তাঁর তালিম। কিন্তু গিরিশচন্দ্র সন্তুষ্ট হতে পারছিলেন না কিছুতেই। একদিন রাতে রিহার্সাল শেষে বাড়ি ফেরার সময় তাঁর মনে পড়ল সেই মেয়েটির কথা। সিটি থিয়েটারের অভিনেত্রী। তিনকড়ি দাসী। সিটি থিয়েটারের চল্লিশ টাকা মাইনের তিনকড়ি একদিন দুপুরে গিরিশচন্দ্রের ডাকে তিরিশ টাকা মাইনেতে এককথায় চলে এলেন মিনার্ভায়। এক বছরের চুক্তি। নিঃশব্দে একলব্যের মতো শুরু হল তাঁর শিক্ষা। অথচ নতুন নাটক ‘ম্যাকবেথ’-এ তিনকড়ির কোনও ভূমিকা নেই। তিনি প্রতিদিন আসতেন, আবার মহলার শেষে চুপচাপ বাড়ি ফিরে যেতেন।   
একটি ভূমিকা একজন অভিনেতা বা অভিনেত্রীকে দেওয়ার পরে তাঁর কাছ থেকে সেটি কেড়ে নেওয়া নিতান্তই অভদ্রতা। 
প্রমোদার অভিনয় পছন্দ হয়নি গিরিশচন্দ্রের। সেইজন্যই তিনকড়িকে নিয়ে আসা। কিন্তু প্রমোদার পার্ট তিনকড়িকে দিলে সে যদি প্রমোদার চেয়েও খারাপ অভিনয় করে, তবে তো মহাবিপদ। প্রমোদা নিশ্চয়ই পরে আর সেই পার্ট করতে চাইবে না। তবুও নাটকের স্বার্থে একটা সুযোগ নিলেন গিরিশচন্দ্র। তাঁর অভিজ্ঞ চোখ বুঝে নিয়েছিল, মহলার ঘরে বসে ওই নতুন মেয়েটি একাগ্রচিত্তে শিখে নিচ্ছে যাবতীয় কলাকৌশল। গিরিশচন্দ্র বারবার ভুল সংশোধন করছেন প্রমোদার। একসময় বিরক্ত হয়ে বলে উঠলেন, ‘নাঃ তোর দ্বারা এ পার্ট হবার কোনও আশা নেই’। মিনার্ভা থিয়েটারের সর্বশ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীকে ভরা মহলাকক্ষে সবার সামনে এই অভিযোগ হজম করতে হল। কারণ, যিনি বলছেন, তাঁর নাম গিরিশচন্দ্র। সকলে স্তম্ভিত। গিরিশ গম্ভীর হয়ে বসে থাকেন কিছুক্ষণ। তারপর বলেন, ‘এর দ্বারা যখন এ পার্ট হল না, তখন যে নতুন অভিনেত্রীটি এসেছে, তাকে ডাকো দেখি, তার দ্বারা একবার চেষ্টা করে দেখা যাক কতদূর কী দাঁড়ায়।’   
উঠে দাঁড়ালেন তিনকড়ি। গিরিশ বলেন, ‘বলো দেখি একটুখানি, কেমন বলতে পারো।’ তিনকড়ি জীবনের এই শ্রেষ্ঠ সুযোগ হাতছাড়া করলেন না। প্রখর বুদ্ধিমতী তিনি। তখনই সর্বসমক্ষে কিছু না বলে ঠিক এক রাত সময় চাইলেন গিরিশচন্দ্রের কাছে। আর সেই একটি রাতের মধ্যে গিরিশচন্দ্রের শেখানো সমস্ত কৌশল সহ মুখস্থ করে ফেললেন লেডি ম্যাকবেথের ট্র্যাজিক সংলাপ। 
পরদিন উপচে পড়া মহলার ঘরে তিনকড়ির অভিনয়ের উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করলেন স্বয়ং গিরিশচন্দ্র। ছ’নম্বর বিডন স্ট্রিটের মিনার্ভা থিয়েটারে ১৮৯৩ সালের ২৮ জানুয়ারি শনিবার বাংলা রঙ্গমঞ্চ পেল এক অন্যতম শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রীকে। অনেকেই মনে রাখেননি, লেডি ম্যাকবেথের ভূমিকায় সেদিন অসাধারণ অভিনয় করলেন অনেকের চোখে ‘অশিক্ষিতা, বারাঙ্গনা’ তিনকড়ি দাসী। শুধু তাই নয়, পরবর্তী আরও বহু বছর গিরিশচন্দ্রের সাহচর্যে, শিক্ষায় নিজেকে প্রমাণ করেছেন তিনকড়ি। কিন্তু লেডি ম্যাকবেথের ট্র্যাজিক চরিত্রে এক বাঙালি মেয়ের সেই প্রথম রঙ্গমঞ্চ জয়। 
তথ্য ঋণ— তিনকড়ি, বিনোদিনী ও তারাসুন্দরী: উপেন্দ্রনাথ বিদ্যাভূষণ, নট-নটীদের বিচিত্র কাহিনি: দেবনারায়ণ গুপ্ত, রঙ্গালয়ে বঙ্গনটী: অমিত মৈত্র 
অঙ্কন : সুব্রত মাজী
28th  November, 2020
ক্যান্সার ঠেকাতে 
কার্যকর ব্রকোলি 

সুরজিৎ মুখোপাধ্যায়: ক্যান্সারের কথা শুনলেই আমরা আতঙ্কিত হয়ে পড়ি। তবে সম্প্রতি কয়েকটি গবেষণায় দাবি করা হয়েছে, ম্যালিগন্যান্ট টিউমার দমন বা প্রতিরোধ করার ক্ষেত্রে ব্রকোলি নাকি অনবদ্য। বিশেষত এই সব্জিতে অনেকাংশেই এড়ানো যায় স্তন ক্যান্সার। বিশদ

28th  November, 2020
ওয়াহিদা রহমানের
ওয়াইল্ডলাইফ ফোটোগ্রাফি

তরুণ বয়সে ছিলেন বলিউডের পর্দাকাঁপানো অভিনেত্রী। এখন ৮২ বছর বয়সে এসে তাঁর নতুন শখ ওয়াইল্ডলাইফ ফটোগ্রাফি। তিনি ওয়াহিদা রহমান। অশীতিপর এই অভিনেত্রী এখন দাপিয়ে বেড়াচ্ছেন বনে-জঙ্গলে। এমনিতে ওয়াহিদার ছবি তোলার নেশা অবশ্য অনেক পুরনো। বিশদ

28th  November, 2020
নারী-মনের যন্ত্রণাই 
ডুবিয়ে দেয় অবসাদে

মানসিক নির্যাতনে ক্ষয়ে যায় মেয়েদের মন। তবু তার বিরুদ্ধে সমাজ আজও বেশিরভাগ সময় নীরব। এ ব্যাপারে মনস্তত্ত্ববিদের মতামত জানালেন তনুশ্রী কাঞ্জিলাল মাশ্চরক। বিশদ

28th  November, 2020
সংসার বাঁচাতে
মেয়েদের লড়াই

করোনাকালে রোজগারের প্রায় সব পথই যখন বন্ধ, ঠিক তখনই বিকল্প উপায়ে রোজগার করে সংসার চালিয়েছেন গ্রামের মহিলারা। তাঁদের কথা জানাচ্ছেন কমলিনী চক্রবর্তী। বিশদ

21st  November, 2020
অফিসের প্রতিকূল পরিবেশ
মাতৃত্বের জন্য ক্ষতিকর

অফিসের কাজের পরিবেশ প্রায় সকলের জন্যই প্রতিদিন নতুন চ্যালেঞ্জ নিয়ে আসে। তবে অনেক অফিসে কাজের পরিবেশ এতটাই প্রতিকূল যে তার সঙ্গে অনেকেই সহজে মানিয়ে নিতে পারে না। এক গবেষণায় জানা গিয়েছে, অফিসের প্রতিকূল পরিবেশে যে নারীরা কাজ করেন, তাঁরা মা হিসেবে ভালোভাবে দায়িত্ব পালন করতে পারেন না। বিশদ

21st  November, 2020
গাছকে স্বামীর মর্যাদা 
দিয়েছেন যে নারী!

বাড়িতে দুই সন্তান। তাদের সঙ্গে আবার রয়েছেন প্রেমিক। সবাইকে ছেড়ে সেজেগুজে ‘বৃক্ষ স্বামী’-র সঙ্গে প্রথম বিবাহবার্ষিকী পালন করলেন ব্রিটেনের লিভারপুল নিবাসী এক মহিলা! একটি গাছকেই স্বামীর মর্যাদা দিয়েছেন এই নারী। সহধর্মিণী হওয়ার সব দায়িত্বও পালন করছেন। বিশদ

21st  November, 2020
সাফল্যের পরেও
চাকরি পাব না? 

নুন আনতে পান্তা ফুরোয় সংসারে। অতি কায়ক্লেশে ছেলেমেয়েদের মুখে অন্ন জোগাতে হিমশিম অবস্থা। তবু দারিদ্রের সঙ্গে লড়াই করে কাঙ্ক্ষিত সাফল্য ছিনিয়ে নিতে বদ্ধপরিকর আটাশ ছোঁয়া অ্যাথলিট বুল্টি রায়। বিশদ

21st  November, 2020
প্রবাসে আমি দিদি ধরেছি

 প্রবাসে ভাইফোঁটার অনেক আয়োজন। তবু বাঙালি ভাইটির মনে ভেসে ওঠে দেশে পড়ে থাকা দিদির সজল আঁখি। ভ্রাতৃদ্বিতীয়ায় প্রবাসী ভাইয়ের মঙ্গলকামনায় যে আজও দেওয়ালে ফোঁটা দেয়। ভাইফোঁটার মজাদার গল্পের মাঝেও তাই বেজে ওঠে বিসমিল্লার সানাইয়ের করুণ সুর। লিখেছেন শুভঙ্কর মুখোপাধ্যায়। বিশদ

14th  November, 2020
সমন্বিতা দীপান্বিতা

আজ দীপান্বিতা কালীপুজো। ঘরে ঘরে দীপালিকার প্রদীপ। মন্দির, ঘরবাড়ি, অফিস-আদালত থেকে সর্বত্র বিদ্যুৎ আলোর বিচিত্র রোশনাই। দীপাবলির আলোর ঝর্ণায় মাতৃমন্ত্রে উজ্জীবিত হবে দেশের মানুষ। কার্তিক মাসের অমাবস্যায় অনুষ্ঠিত এই প্রাচীন লোকোৎসব শুধু বাংলায় নয় দেশের বিভিন্ন প্রান্তে সংগঠিত হয়ে থাকে। এই সর্বভারতীয় উৎসবের রূপ বিভিন্ন, বৈশিষ্ট্যমণ্ডিত ও সমন্বয়ধর্মিতায় অনুস্যূত। সামাজিক জীবনে প্রতিপালিত। দীপান্বিতায় দীপসমূহকে মালিকার মতো সারি সারি ভাবে সজ্জিত করে প্রজ্বলিত করার নামই ‘দীপাবলি’। আতসবাজি ও পটকার শব্দ যুক্ত হয়ে এই মহাতিথির রাতটি এক প্রাণবন্ত উৎসবে পরিগণিত হয়। এই দীপান্বিতার অপভ্রংশ হল ‘দেওয়ালি’। বিশদ

14th  November, 2020
মেয়েদের ওপর হিংসা
নয়, বার্তা ক্যুইজ মঞ্চে 

নিপীড়িত মেয়েদের পাশে থাকার কাজটি তিনি করে আসছেন গত ২৫ বছর ধরে। স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা ‘স্বয়ম’-এর ডিরেক্টর অনুরাধা কাপুর সম্প্রতি তাঁর কাজের জন্য আমন্ত্রিত হয়েছিলেন কেবিসি-তে। তাঁর অভিজ্ঞতা শুনলেন অন্বেষা দত্ত। বিশদ

07th  November, 2020
অন্তরঙ্গতায়
ভরা ছিল 

আজ নবনীতা দেবসেনের প্রয়াণ দিবস। তাঁর হাতে গড়া ‘সই’-এর অন্যতম সদস্য বিনতা রায়চৌধুরীর স্মরণে ধরা দিলেন এক বহুমুখী নবনীতা। যিনি নতুন আলোর সন্ধানে মেয়েদের হাত ধরে এগিয়ে নিয়ে গিয়েছেন।  বিশদ

07th  November, 2020
একের পাশে অন্য,
তবে বাঁচবে মেয়েরা 

‘এক মহিলা যদি অন্য মহিলার পাশে না দাঁড়ান, তাহলে তাঁর ঠাঁই হয় নরকে।’ কোনও এক বইয়ে লাইনটা পড়েছিলেন ‘স্টেট লিগাল সার্ভিসেস অথরিটি’র মেম্বার সেক্রেটারি দুর্গা খৈতান। মহিলাদের ক্ষমতায়ন নিয়ে তাঁর সঙ্গে আলোচনায় অন্বেষা দত্ত। 
বিশদ

31st  October, 2020
বছরটাই একেবারে এলোমেলো
কাটছে: অঙ্কিতা মজুমদার পাল 

‘গত বছর জানুয়ারি মাসে আমার সঙ্গে সৌমিত্র পালের বিয়ে হয়। অামাদের ছিল ‘অ্যারেঞ্জড লাভ’। একটি ম্যাট্রিমোনিয়াল সাইটে আমাদের আলাপ। সেও এক গল্পই বটে, ক্রমশ প্রকাশ্য। আমার শ্বশুরবাড়ি গৌহাটিতে। লকডাউনের ঠিক আগে আমরা গৌহাটি এসে আটকে যাই। প্রথমদিকে বেশ লাগছিল। 
বিশদ

31st  October, 2020
সন্তান জন্ম দেওয়ার আধ ঘণ্টা পরেই
পরীক্ষা দিলেন ইথিওপিয়ার মহিলা 

ইথিওপিয়ায় এক মহিলা সন্তান জন্ম দেওয়ার ৩০ মিনিটের মাথায় হাসপাতালের বিছানায় বসেই দশম শ্রেণির পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন। পশ্চিম ইথিওপিয়ার মেতু অঞ্চলে ২১ বছর বয়সি এই নারীর নাম আলমাজ ডেরেস। 
বিশদ

31st  October, 2020
একনজরে
উম-পুন পরবর্তী ক্ষতিপূরণে দুর্নীতির যাবতীয় অভিযোগের তদন্ত করবে কম্পট্রোলার অ্যান্ড অডিটার জেনারেল অব ইন্ডিয়া (ক্যাগ)। কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি থোট্টাথিল বি রাধাকৃষ্ণাণ ও অরিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চ মঙ্গলবার তিন মাসের মধ্যে তদন্তসাপেক্ষে ক্যাগকে রিপোর্ট দাখিল করতে বলেছে। ...

কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধীর বিরুদ্ধে কুৎসামূলক প্রচার নিয়ে এবার বিজেপি’র এক উগ্র সমর্থকের বিরুদ্ধে কলকাতা পুলিসে অভিযোগ দায়ের হল। মঙ্গলবার শেক্সপিয়র সরণী থানায় এই অভিযোগ দায়ের করেন প্রয়াত প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্রর ছেলে তথা দলের সাধারণ সম্পাদক রোহন মিত্র। ...

কৃষক বিক্ষোভের আঁচ ছড়াল দেশান্তরেও। কেন্দ্রীয় কৃষি আইনের বিরুদ্ধে আন্দোলন নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করলেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। বিক্ষোভরত ‘রোদে পোড়া, তামাটে’ মানুষগুলোর পরিবার ও বন্ধুদের জন্য চিন্তিত বলে জানিয়েছেন তিনি। ...

সাখির (বাহরিন): গত সাতদিনে তিনবার কোভিড টেস্ট রিপোর্ট পজিটিভ এল ফর্মুলা-ওয়ান তারকা লুইস হ্যামিলটনের। যার জেরে আসন্ন সাখির গ্রাঁ প্রি’তে অংশ নিতে পারবেন না সাতবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন রেসারটি। মঙ্গলবারই মার্সিডিজ-এএমজি পেট্রোনাস এফওয়ান দলের পক্ষ থেকে হ্যামিলটনের করোনায় আক্রান্তের খবর প্রকাশ্যে আনা ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

সম্পত্তিজনিত মামলা-মোকদ্দমায় সাফল্য প্রাপ্তি। কর্মে দায়িত্ব বৃদ্ধিতে মানসিক চাপবৃদ্ধি। খেলাধূলায়  সাফল্যের স্বীকৃতি। শত্রুর মোকাবিলায় সতর্কতার ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৯৭৬: কিউবার প্রেসিডেন্ট হলেন ফিদেল কাস্ত্রো
১৯৮৪: ভোপাল গ্যাস দুর্ঘটনায় কমপক্ষে আড়াই হাজার মানুষের মৃত্যু
১৯৮৮: পাকিস্তানের প্রথম মহিলা প্রধানমন্ত্রী হলেন বেনজির ভুট্টো
১৯৮৯: ভারতের সপ্তম প্রধানমন্ত্রী হলেন ভিপিসিং 



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭৩.১৭ টাকা ৭৪.৮৮ টাকা
পাউন্ড ৯৭.২১ টাকা ১০০.৬৪ টাকা
ইউরো ৮৬.৯৬ টাকা ৯০.১২ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪৮,৯৮০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৪৬,৪৭০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪৭,১৭০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৬০,৯০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৬১,০০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

১৬ অগ্রহায়ণ, ১৪২৭, বুধবার, ২ ডিসেম্বর ২০২০, দ্বিতীয়া ৩০/৪৪ সন্ধ্যা ৬/২৩। মৃগশিরা নক্ষত্র ১১/২২ দিবা ১০/৩৮। সূর্যোদয় ৬/৪/৪৩, সূর্যাস্ত ৪/৪৭/২৫। অমৃতযোগ দিবা ৬/৪৬ মধ্যে পুনঃ ৭/২৯ গতে ৮/১২ মধ্যে পুনঃ ১০/২১ গতে ১২/৩০ মধ্যে। রাত্রি ৫/৪০ গতে ৬/৩৩ মধ্যে পুনঃ ৮/২০ গতে ৩/২৫ মধ্যে। মাহেন্দ্রযোগ দিবা ৬/৪৬ গতে ৭/২৯ মধ্যে পুনঃ ১/১৩ গতে ৩/২২ মধ্যে। বারবেলা ৮/৪৫ গতে ১০/৫ মধ্যে পুনঃ ১১/২৬ গতে ১২/৪৭ মধ্যে। কালরাত্রি ২/৪৫ গতে ৪/২৫ মধ্যে। 
 ১৬ অগ্রহায়ণ, ১৪২৭, বুধবার, ২ ডিসেম্বর ২০২০, দ্বিতীয়া সন্ধ্যা ৫/৪। মৃগশিরা নক্ষত্র দিবা ১০/২৪। সূর্যোদয় ৬/৬, সূর্যাস্ত ৪/৪৮। অমৃতযোগ দিবা ৬/৫৬ মধ্যে ও ৭/৩৮ গতে ৮/২০ মধ্যে ও ১০/২৮ গতে ১২/৩৫ মধ্যে এবং রাত্রি ৫/৪৩ গতে ৬/৩৬ মধ্যে ও ৮/২৫ গতে ৩/৩২ মধ্যে। মাহেন্দ্রযোগ দিবা ৬/৫৬ গতে ৭/৩৮ মধ্যে ও ১/১৭ গতে ৩/২৪ মধ্যে। কালবেলা ৮/৪৬ গতে ১০/৭ মধ্যে ও ১১/২৭ গতে ১২/৪৭ মধ্যে। কালরাত্রি ২/৪৬ গতে ৪/২৬ মধ্যে। 
১৬ রবিয়ল সানি।

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
আপনার আজকের দিনটি
মেষ: সম্পত্তিজনিত মামলা-মোকদ্দমায় সাফল্য প্রাপ্তি। বৃষ: নানা উপায়ে অর্থপ্রাপ্তির সুযোগ। ...বিশদ

04:29:40 PM

ইতিহাসে আজকের দিনে
  ১৯৭৬: কিউবার প্রেসিডেন্ট হলেন ফিদেল কাস্ত্রো ১৯৮৪: ভোপাল গ্যাস ...বিশদ

04:28:18 PM

আইএসএল: হায়দরাবাদ ও জামশেদপুরের ম্যাচ ১-১ গোলে ড্র

09:33:58 PM

জিএসটি ফাঁকি: কলকাতা সহ রাজ্যের ১০৪টি ময়দা মিলে হানা আধিকারিকদের

06:29:00 PM

তৃতীয় একদিনের ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ১৩ রানে জয়ী ভারত

05:15:15 PM

কোভ্যাক্সিনের পরীক্ষামূলক প্রয়োগ: টিকা নিতে নাইসেডে ফিরহাদ হাকিম

04:15:35 PM