বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
উত্তরবঙ্গ
 

‘ভাইরাল’ ভিডিও নিয়ে ফের পুলিসের দ্বারস্থ প্রাক্তন জেলা সভাপতি মৃণাল
 

সংবাদদাতা, গঙ্গারামপুর: গত পঞ্চায়েত নির্বাচনের সময় জেলা তৃণমূল সভাপতির ‘ভাইরাল’ হওয়া ভিডিও ফের চর্চায়। ব্ল্যাকমেলিংয়ের অভিযোগে আবার পুলিসের কাছে অভিযোগ দায়ের করলেন মৃণাল সরকার। পঞ্চায়েত নির্বাচনের সময় জেলা বিজেপি সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে তৎকালীন জেলা তৃণমূল সভাপতির ব্যক্তিগত ভিডিও সামনে আনে।  নির্বাচনের মুখে যা নিয়ে চরম অস্বস্তিতে পড়তে হয় জেলা তৃণমূলকে। সম্প্রতি এক ব্যক্তি মৃণাল সরকারের কাছে টাকা চেয়ে ব্ল্যাকমেল করছিল বলে অভিযোগ। বুধবার রাতে গঙ্গারামপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন মৃণালবাবু।
ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর মৃণালবাবু বালুরঘাট সাইবার ক্রাইম থানায় অভিযোগ দায়ের করলেও অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি জেলা পুলিস। এবার মৃণালবাবু নির্দিষ্ট নাম করে অভিযোগ জানিয়েছেন। বুধবার রাতে তিনি গঙ্গারামপুর থানায় গেলে সেখানে কয়েকজন তাঁকে অভিযোগ জমা করা থেকে আটকানোর চেষ্টা করলে উত্তেজনা তৈরি হয়। ঘটনাস্থলে রাত পর্যন্ত বিশাল পুলিস বাহিনী মোতায়েন করতে হয়েছিল।
মৃণাল সরকার বলেন, পঞ্চায়েত নির্বাচনের সময় আমার ব্যক্তিগত কিছু ভিডিও ভাইরাল করেছিল এক ব্যক্তি। খবর পেয়েছিলাম আমার প্রথমবারের অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিস তাকে গ্রেপ্তার করেছিল। কিছুদিন ধরে ওই ব্যক্তি আমার কাছে টাকা চেয়ে ব্ল্যাকমেল করছে। থানায় সেই অভিযোগ করতে গেলে কয়েকজন আমাকে আটকানোর চেষ্টা করে।
তিনি আরও বলেন, কালিমালিপ্ত করার জন্য আমার ভিডিও বিকৃত করে বিজেপি ভাইরাল করে। এর পিছনে আমাদের দলের একাংশও যুক্ত রয়েছে। পুলিস তদন্ত করলে আসল ঘটনা সামনে আসবে। তাই ফের অভিযোগ জানিয়েছি। 
জেলা তৃণমূল সভাপতি সুভাষ ভাওয়াল বলেন, মৃণালবাবু গঙ্গারামপুর থানায় অভিযোগ জানাতে গেলে উত্তেজনা হয়। তবে সেটা দলীয় বিষয় নয়। আমি আইসিকে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার কথা বলেছি। ভিডিও ভাইরাল করার পিছনে তৃণমূলের কোন নেতা আছেন,সেটা মৃণালবাবুই বলতে পারবেন। কারণ সেই সময় তিনি জেলার দায়িত্বে ছিলেন। পুলিস যাতে অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে সে বিষয়ে থানা ও মৃণালবাবুর সঙ্গে কথা বলব। জেলা পুলিস সুপার চিন্ময় মিত্তাল বলেন, পঞ্চায়েত নির্বাচনের সময় মৃণালবাবু ভিডিও ভাইরাল হওয়ার বিষয়ে অভিযোগ জানিয়েছিলেন। বিষয়টি আমরা দেখছি। এখনও কোনও মামলা হয়নি। কাউকে গ্রেপ্তারও করা হয়নি।
জেলা বিজেপি সভাপতি স্বরূপ চৌধুরী বলেন,বাজারে ভিডিও এসেছে। আমরা সোশ্যাল মিডিয়ায় দিয়েছি, যাতে সাধারণ মানুষ একজন তৃণমূল নেতৃত্বের জীবনযাপন দেখতে পান। জনগণ লোকসভায় এদের ছুড়ে ফেলে দেবে।

23rd     February,   2024
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ