বর্তমান পত্রিকা : Bartaman Patrika | West Bengal's frontliner Newspaper | Latest Bengali News, এই মুহূর্তে বাংলা খবর
উত্তরবঙ্গ
 

দেবী চৌধুরানির বৃত্তান্ত দিল্লিতে তুলে ধরবে পুনম

নির্মাল্য সেনগুপ্ত, জলপাইগুড়ি: দেবী চৌধুরানির বৃত্তান্ত এবার দিল্লির বুকে তুলে ধরবে তিস্তাপারের পুনম। ছোটবেলা থেকেই পুনম, মা-দিদিমার মুখে শুনেছে দেবী চৌধুরানির রুখে দাঁড়ানোর গল্প। আর্তের পাশে দাঁড়ানোর কাহিনি। উৎসবে অনুষ্ঠানে বারবার পরিবারের সঙ্গে ছুটে গিয়েছে শিকারপুরে, গোশালায় দেবী চৌধুরানির স্মৃতি বিজড়িত মন্দিরগুলিতে। এখন সেই বীরাঙ্গনার চরিত্রই একাঙ্ক নাটকের মাধ্যমে দিল্লিতে মঞ্চস্থ করবে সে। জাতীয়স্তরের কলা উৎসবে এ রাজ্যের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করবে পুনম। 
জলপাইগুড়ি শহর লাগোয়া খড়িয়া পঞ্চায়েতের দক্ষিণ সুকান্তনগর কলোনির বাসিন্দা পুনম রায়। মাড়োয়ারি বালিকা বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী সে। সম্প্রতি স্কুলের হয়ে কলকাতায় গিয়ে রাজ্যস্তরের কলা উৎসবে প্রথম স্থান অধিকার করেছে। এতে খুশির হওয়া দক্ষিণ সুকান্তনগর কলোনিতে। এলাকার এক পড়ুয়ার প্রতিভার খবর পেয়ে প্রতিবেশীরা শুভেচ্ছা জানিয়ে যাচ্ছেন। বিভিন্ন জায়গা থেকে ইতিমধ্যেই সংবর্ধনাও মিলছে। স্থানীয় বাসিন্দা দুঃখী বৈষ্ণব বলেন, প্রতি বর্ষায় সুকান্তনগর কলোনিতে তিস্তার জল ঢুকে আসে। এলাকার অন্যদের মতো পুনমদের ঘরেও জল ঢুকে যায়। জীবনযুদ্ধের এই অভ্যাসই ওকে সাফল্যের দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে সাহস জোগাচ্ছে। আমরা চাই আরও সাফল্য পাক মেয়েটি। পুনমের সোজাসাপ্টা স্বীকারোক্তি, কোনও পেশাদারি প্রশিক্ষণ নেই। কারণ, প্রশিক্ষণ নেওয়ার মতো আমাদের সামর্থ্য নেই। বাবা সামান্য সব্জির দোকান করে তিন ভাইবোনের যাবতীয় খরচ চালাচ্ছেন। এরমধ্যে কিছুদিন আগে স্কুল থেকে আমাকে রাজ্যস্তরের কলা উৎসবে অংশগ্রহণ করানোর জন্য উদ্যোগী হন স্কুলের শিক্ষিকারা। শিক্ষিকা তমালিকা দত্ত ও পারমিতা দত্ত লাগাতার প্রশিক্ষণ দিয়ে একাঙ্ক নাটকের জন্য আমাকে প্রস্তুত করেছেন। কীভাবে মাত্র ছ’মিনিটের মধ্যে নাটক মঞ্চস্থ করতে হবে, ডায়ালগ, এক্সপ্রেশন সমন্বয় রক্ষা হবে কীভাবে, তার যাবতীয় কৌশল তাঁরাই শিখিয়ে দেন। সেইমতোই করেছি। অনুশীলন চালিয়ে গিয়েছি। তাতেই কাজ হয়েছে। 
 মেয়ের সাফল্যে উচ্ছ্বসিত পরিবার। তবে সে যে রাজ্যস্তরের প্রতিযোগিতায় প্রথম স্থান পাবে, তা যেন এখনও বিশ্বাস করতে পারছেন না পুনমের বাবা সঞ্জীব রায়, মা কুশল রায়। তাঁরা বলেন, পুনম ছোটবেলায় একটু নাচ শিখেছিল। আমি তো ওকে অভিনয়ের কোনও প্রশিক্ষণ দিতে পারিনি। এর জন্য ওর স্কুলের অবদানই প্রধান। ওঁরা না তালিম দিলে মেয়ে এই সাফল্য পেতো না। ওর এই গুণের কথা আমরা জানতেও পারতাম না। জাতীয়স্তরের প্রতিযোগিতার জন্য এখন ও তৈরি হচ্ছে। আবার মাধ্যমিক পরীক্ষার জন্যও প্রস্তুতি নিচ্ছে। আমাদের আশা, মেয়ে নিশ্চয়ই এগিয়ে যাবে।  নিজস্ব চিত্র

6th     December,   2023
 
 
কলকাতা
 
রাজ্য
 
দেশ
 
বিদেশ
 
খেলা
 
বিনোদন
 
আজকের দিনে
 
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
এখনকার দর
দিন পঞ্জিকা
 
শরীর ও স্বাস্থ্য
 
বিশেষ নিবন্ধ
 
সিনেমা
 
প্রচ্ছদ নিবন্ধ