Bartaman Patrika
আমরা মেয়েরা
 

তবু কেন কন্যা সম্প্রদান? 

কন্যা সম্প্রদান আজকের যুগে কতটা যুক্তিযুক্ত? বিশ্লেষণ করলেন মহিলা পুরোহিত নন্দিনী ভৌমিক। তাঁর মুখোমুখি কমলিনী চক্রবর্তী।

আজ নারী শিক্ষিত। আজ নারী স্বনির্ভর। তবু আজও নারী স্বাধীন নয়। শিক্ষা ও স্বনির্ভরতা তাহলে নারীকে পূর্ণ স্বাধীনতা দিতে ব্যর্থ! সনাতন প্রথামতে আজও তাই বিবাহের মন্ত্রে কন্যাকে সম্প্রদান করা হয় পাত্রের কাছে। অর্থাৎ পিতার কাছ থেকে নারী চলে যায় স্বামীর দায়িত্বে। আগেকার দিনে এই রীতি যদি বা সমর্থন করা যেত, এখন তো তা কোনওমতেই সমর্থনযোগ্য নয়। তবু প্রথাগত বিবাহের এই দিকটি নিয়ে ততটা প্রশ্ন ওঠে কি আমাদের সমাজে? মেয়েরাও কি এই নিয়ে আদৌ ভাবে? আজকের আধুনিক সমাজে কন্যা সম্প্রদান কি সত্যিই প্রয়োজনীয়? সাক্ষাৎকারে এমনই নানা প্রশ্নের উত্তর দিলেন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের সংস্কৃত বিভাগের অধ্যাপিকা তথা মহিলা পুরোহিত নন্দিনী ভৌমিক।
 আজকের আধুনিক সমাজেও কি কন্যা সম্প্রদান প্রথা যুক্তিযুক্ত?
 প্রথমেই বলে রাখি, বিয়েতে কন্যা সম্প্রদানের প্রথা বৈদিক যুগে ছিল না। পরবর্তীকালে নারী যখন শিক্ষার আলো থেকে বঞ্চিত হতে শুরু করে, বাল্য বিবাহের রীতি যবে থেকে প্রচলিত হয়ে ওঠে আমাদের সমাজে, তবে থেকেই কন্যা সম্প্রদান প্রথাও চালু করা হয়। এক্ষেত্রে প্রথার পক্ষে বা বিপক্ষে কিছু বলার আগে সমাজের একটা চিত্র কল্পনা করে নেওয়া দরকার। তখন মেয়েদের আট-নয় বছরে বা তার চেয়েও ছোট বয়সে বিয়ে দেওয়া হতো। স্বামীটি কিন্তু সেই তুলনায় বয়স্ক। কলেজে পাঠরত তো বটেই, অনেকক্ষেত্রে আবার চাকরিও করে। বয়সের এই বিপুল ফারাকে স্বামী যে তার ছোট স্ত্রীয়ের দায়িত্ব নেবে সেটাই তো স্বাভাবিক। আর না নিলেও তো চলবে না, আট বছরের বালিকা কি নিজের দায়িত্ব নিতে পারে? এই অবস্থায় বাবার হাত থেকে মেয়েকে স্বামীর হাতে তুলে দেওয়া বা সম্প্রদান করার রীতি সমর্থনযোগ্যই বটে। কিন্তু ক্রমশ সমাজ বদলেছে। বাল্য বিবাহের রীতি আজ আর প্রচলিত নয়। মেয়েরাও এখন শিক্ষিত ও স্বনির্ভর। সেক্ষেত্রে আজকের দিনে কন্যা সম্প্রদান যে নেহাতই অমূলক তা বলাই বাহুল্য।
 সমাজের চোখে মেয়েরা কি তবে দানের বস্তু?
 একেকটা সময় একেকরকমভাবে মানুষের মূল্যায়ন করে। আর সময় যত পালটায়, মানুষের চিন্তাধারাও ততই বদলায়। তবে কন্যাকে সম্প্রদান করার অর্থ কখনওই দান নয়, বরং কন্যার ভার বা দায়িত্ব পিতার হাত থেকে স্বামীর হাতে সমর্পণ। এই ভার তুলে দেওয়া বা দায়িত্ব অন্যকে সমর্পণ করার রীতি কারও অপছন্দ হতেই পারে। তাই বলে এটা ধরে নেওয়া ঠিক নয় যে কন্যাকে সম্প্রদান করা হতো বলেই তাকে সমাজ দানের বস্তু হিসেবে দেখত। আর এখন তো সমাজের দৃষ্টিভঙ্গি অনেকটাই বদলে গিয়েছে। কন্যাকে দানের বস্তু হিসেবে দেখা হলে ঘরে ঘরে কন্যাই একমাত্র সন্তান হতে পারত কি?
 নারীকে কি কখনও বাবা, কখনও স্বামী, কখনও বা পুত্রের অধীনে বলেই মনে করা হয়?
 খুবই গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন। ভারতীয় মনোভাব অনুযায়ী এখনও নারীর ওপরেই সংসার সামলানোর দায়িত্ব বর্তায়। আগে মেয়েরা শুধুই অন্দরমহলের বাসিন্দা ছিলেন। শিক্ষার আলো থেকে বঞ্চিত হয়ে রাঁধার পরে খাওয়া আর খাওয়ার পরে রাঁধা নিয়েই ছিল তাঁদের জীবন। সেই সময় নারীকে রক্ষা করার দায়িত্ব ছিল পুরুষের কাঁধে। এখন আর তেমন পরিস্থিতি নেই। মেয়েরা শিক্ষিত তো বটেই, অনেকক্ষেত্রেই স্বনির্ভরও। তবু সংসার পালনের মূল দায়িত্ব কিন্তু আজও মেয়েদের ওপরেই পড়ে। আর ছেলেরাও এখনও দায়িত্ব নেওয়ার অভ্যাসটা ঝেড়ে ফেলতে পারেনি। তাই সমাজ আজও নারীর অরক্ষিত রূপের সঙ্গেই অভ্যস্ত। আমাদের সমাজ এখনও ততটা উদার হতে পারেনি। তাই মেয়েরাও সম্পূর্ণ স্বাধীনতা পায়নি। এখনও মেয়েরা নিরাপত্তাহীনতায় ভোগে। আজও মেয়েদের পুরুষরূপী রক্ষাকর্তার প্রয়োজন হয়। তাই এই উন্নততর সমাজে আজও নারী কখনও বাবা, কখনও স্বামী আর কখনও ছেলের অধীনে।
 হিন্দুধর্ম মতে বিবাহে কি কন্যা সম্প্রদান আবশ্যিক?
 হ্যাঁ। গতানুগতিক ধারা অনুযায়ী এই প্রথা আবশ্যিক। তবে হিন্দুধর্ম মতে বিয়ের অনুষ্ঠানে বদল আনা উচিত বলেই আমার মনে হয়। কারণ বৈদিক যুগেও তো হিন্দুধর্ম মতেই বিবাহ হতো এবং তাতে কন্যা সম্প্রদানের রীতি ছিল না। তাহলে এখনকার পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে কেন সম্প্রদান আবশ্যিক হবে? তবু আজও পুরোহিতরা মধ্যযুগীয় বিবাহপ্রথাকেই মেনে চলতে ভালোবাসেন। তাই গতানুগতিকতা বজায় রেখে কন্যা সম্প্রদান বিয়ের অঙ্গ হিসেবে চলছে, চলবে।
 প্রথাগত বিবাহে বদল আনার জন্য আপনি কতটা ও কীভাবে সচেষ্ট?
 আমি একা নই, আমাদের চারজনের একটি দল রয়েছে। নাম শুভমস্তু। আমরা সনাতন বৈদিক প্রথা অনুযায়ী বিবাহ অনুষ্ঠান সম্পন্ন করি। কিছু মন্ত্র ও কিছু গানের মধ্য দিয়ে পাত্রপাত্রীর চার হাত এক হয়। আমাদের দলে আমি ছাড়া আরও যাঁরা আছেন তাঁরা হলেন রুমা, সেমন্তী ও পৌলমী।
আমরা কেউই পদবি ব্যবহার করি না। জাতপাতের বিভেদ এড়ানোর জন্যই পদবি বর্জন। রুমা আর আমি দু’জনেই সংস্কৃতের ছাত্রী। মন্ত্র পড়ার দায়িত্ব আমাদের। সেমন্তী আর পৌলমী সঙ্গীত পরিবেশন করেন। রবীন্দ্রনাথের গান ও মন্ত্রোচ্চারণের মাধ্যমে বিবাহ অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়। কিছু আচার আমরা বাদ দিয়েছি। কন্যা সম্প্রদান, কনকাঞ্জলি আমাদের বিবাহ প্রথার অঙ্গ নয়। তাছাড়া বিয়ের অনষ্ঠানে যে শুধুই এওস্ত্রীরাই অংশ নিতে পারবেন, বিধবারা বাদ পড়বেন তাও আমরা মনে করি না। ‘শুভমস্তু’তে আমরা মনে করি বিবাহ নামক পুণ্য অনুষ্ঠানকে আনন্দময় করে তুলতে সকলের সমবেত উপস্থিতি জরুরি। তাছাড়া বিয়েতে আমরা পাত্র ও পাত্রী এবং তাদের পরিবারকে একই আসনে বসাই। বর ও কনের মায়ের উপস্থিতিও আমাদের বিবাহ অনুষ্ঠানের উল্লেখযোগ্য অংশ।
 হিন্দু নিয়মগুলো ভাঙার সময় বাধাপ্রাপ্ত হয়েছিলেন?
 যা-ই নতুন, তাকেই বিভিন্ন বাধা অতিক্রম করে আসতে হয়। আমাদেরও হয়েছে। প্রথমদিকে লোকে আমাদের নিয়মগুলো মেনে নেননি। তবে ক্রমশ সময় পাল্টাচ্ছে, লোকের চিন্তাধারা বদলাচ্ছে। এখন পাত্র ও পাত্রী আমাদের এই নতুন ধরনের বিবাহ প্রথা দেখে মুগ্ধ হচ্ছেন এবং আমরা ক্রমশ সমাজে গৃহীত হচ্ছি।
 মধ্যযুগীয় হিন্দু বিবাহে বদল আনা দরকার এমনটা মনে হল কেন?
 অধ্যাপনা করতে গিয়ে প্রথম এই ভাবনাটা মনে এসেছিল। নতুন প্রজন্মকে ঘাঁটতে ঘাঁটতে, তাদের চিন্তা ভাবনার সঙ্গে মিশতে মিশতে দেখেছিলাম তারা বিভিন্ন প্রথার দিকে আঙুল তুলছে, তা নিয়ে প্রশ্ন করছে। তখনই মনে হয়েছিল মধ্যযুগীয় প্রথাগুলোর বদল দরকার। আর সেই বদলের জন্য আমাদের খুব একটা দূরে যেতে হয়নি। একটু পিছিয়ে গিয়ে বৈদিক বিবাহ প্রথাগুলো ঘেঁটে দেখলাম তা অনেক উন্নত। তখনই এই প্রথায় বিয়ে দেওয়ার কথা মনে হল। তারপর আলাপ আলোচনার মাধ্যমে আমাদের দল গড়ে উঠল। বছর তিনেক আমরা সক্রিয়ভাবে কাজ শুরু করেছি।
 কন্যা সম্প্রদান ব্যতীত বিবাহ পাত্র ও পাত্রীর বাড়িতে কতটা গৃহীত?
 পাত্র ও পাত্রী দু’জনেই এই নতুন প্রথাকে মুক্তহস্তে আলিঙ্গন করেছে। তাদের বাড়ির লোকেরাও অনেকেই উদারভাবে এই প্রথা মেনে নিচ্ছেন। আর আজকের মেয়েরা যে বাবার হাত থেকে স্বামীর হাতে সমর্পিত হতে চায় না তা তো বলাই বাহুল্য।
ছবি: শুভমস্তুর সৌজন্যে  
18th  January, 2020
সারদা মিশনে 
মাতৃপুজো

শ্রীশ্রীমা সারদার পুজো বিষয়ে আলোচনায় প্রব্রাজিকা আপ্তকামপ্রাণা।  বিশদ

25th  September, 2021
এখন মেয়েরা

এমকিউর ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানির শীর্ষে রয়েছেন তিনি। অঙ্কে তাঁর ভীষণ দখল। আবার মহিলাকেন্দ্রিক বিষয় নিয়েও তাঁর চিন্তার অন্ত নেই। তিনি নমিতা থাপার। এমকিউর ফার্মার তিনি এগজিকিউটিভ ডিরেক্টর। হেল্থ কেয়ারে কাজ করার সুবাদে নমিতা মহিলাদের স্বাস্থ্য ও চিকিৎসার অভাব খুব কাছ থেকে দেখেছেন। বিশদ

25th  September, 2021
দুর্গাপুজোর  মহোৎসবে 
মেয়েরা

প্রায় দু’শো বছর ছুঁই ছুঁই লাহাবাড়ির দুর্গা পুজো। মহাপুজোর প্রস্তুতিতে মাতোয়ারা হয়ে ওঠে বাড়ির মেয়ে বউরা। পুজোর পুরনো ও নতুন গল্প নিয়ে কলম ধরলেন লাহাবাড়ির কন্যা সুস্মেলী দত্ত।
বিশদ

18th  September, 2021
এখন মেয়েরা

জন্ম থেকেই কানে শুনতে পান না জোহানা লুৎজ। জার্মানির এই কন্যাটি তাই স্বপ্নেও কখনও ভাবেননি তিনি নাসা-র বিজ্ঞানী হয়ে উঠবেন। অথচ লুৎজ হয়ে উঠলেন নাসার প্রথম এবং একমাত্র বধির বিজ্ঞানী। কিন্তু কেমন করে ঘটল এই অভাবনীয় ঘটনা? বিশদ

18th  September, 2021
গানে গানে 
নারী শক্তি

৩০ বছর ধরে বাউল গানের সাধনা করছেন রিনা দাস বাউল। মহিলাদের নিয়ে গান লেখেন তিনি। সমাজে নারী শক্তির প্রচার ও প্রসারই তাঁর লক্ষ্য। বাউল সঙ্গীত, বিদেশে বাউল গানের অনুষ্ঠান ও নিজের গানের ভাষা বিষয়ে তাঁর সঙ্গে খোলামেলা আড্ডায় কমলিনী চক্রবর্তী। বিশদ

11th  September, 2021
এখন মেয়েরা

আনা এলিজাবেথ জর্জ হলেন কেরলের এক হোম বেকার। ওনাম উৎসবে এক অভিনব কাজ করে বসলেন তিনি। গোটা একটা শাড়ির ডিজাইনে বানিয়ে ফেললেন ধোসা! অবশ্য এই খাবারকে ধোসা না বলে বরং এডিবল শাড়ি নামেই বিক্রি করেছেন। বিশদ

11th  September, 2021
‘আমি একরোখা একগুঁয়ে,
শেষ দেখে তবে ছাড়ব’

ভারতীয় প্রাণিবিজ্ঞান সর্বেক্ষণ (জুলজিক্যাল সার্ভে অব ইন্ডিয়া, জেডএসআই)-এর শীর্ষ পদে প্রথম মহিলা মুখ তিনি। বাধার অদৃশ্য সেই ‘কাচের দেওয়াল’ ভাঙতে মহিলারা লড়াই করেন প্রতিনিয়ত। তিনি অনায়াসে সেটা ভেঙে দিতে পেরেছেন। কিন্তু চলার পথটা কেমন ছিল? জেডএসআই-এর প্রথম মহিলা ডিরেক্টর ধৃতি বন্দ্যোপাধ্যায়-এর সঙ্গে আলাপচারিতায় অন্বেষা দত্ত। বিশদ

04th  September, 2021
নির্যাতনের বিরুদ্ধে 
মেঘার লড়াই

মিমির বয়স তখন তেরো। বাবা, মা, কাকা কাকিমা ও খুড়তুতো দাদা মিলে তাদের বড় সংসার। কাকাকে ভীষণ ভয় পেত মিমি। অথচ কাকা তো ভীষণ ভালোবাসেন তাকে। দেখতে পেলেই জড়িয়ে ধরেন। চুমু খান। তবু মিনি ধারে পাশে ঘেঁষতে চায় না। মা এই নিয়ে বকাবকি করলে একদিন মায়ের কাছে সব কথা খুলে বলেছিল সে। বিশদ

04th  September, 2021
লোকঐতিহ্যই
আবাহনের মন্ত্র

 বিদেশে থেকেও ভারতীয় নারীর ক্ষমতায়নের জন্য সক্রিয় তিনি। সাধারণ মহিলাদের হাতে তৈরি নানা সামগ্রী যাতে প্রচারের আলো পায়, তার জন্য চেষ্টা করছেন তিন বছর ধরে। কেমব্রিজের বাসিন্দা তনিমা পাল -এর সঙ্গে কথায় অন্বেষা দত্ত। বিশদ

28th  August, 2021
এখন মেয়েরা

জারা বাদারফোর্ড আধা ব্রিটিশ আধা বেলজিয়ান। মাত্র ১৯ বছর বয়সেই সে নাকি খবরের শিরোনামে! বাবা ও মা দু’জনেই পাইলট। তাই ছোট থেকেই প্লেন ওড়ানোর নেশা তাঁকে পেয়ে বসেছিল। প্রশিক্ষণও নিয়েছিলেন তিনি নিয়ম মতো। তারপর অপেক্ষায় ছিলেন প্রাপ্তবয়স্ক হওয়ার। বিশদ

28th  August, 2021
মায়ের পুজোয় মেয়েরা

শুভমস্তু সংস্থার চার মহিলা পুরোহিত এবার দুর্গাপুজোর আসর সাজিয়ে বসছেন। ৬৬ পল্লির দুর্গাপুজোয় পৌরোহিত্য করবেন তাঁরা। আগামিকাল খুঁটি পুজোর মাধ্যমে সেই কাজের শুভারম্ভ। তার ঠিক আগেই নিজেদের পুজোপদ্ধতি ও নতুন চমকের কথা জানালেন নন্দিনী ভৌমিক। তাঁর সঙ্গে কথায় কমলিনী চক্রবর্তী। বিশদ

21st  August, 2021
এখন মেয়েরা

দিব্যা গোপিনাথ একজন সাধারণ মেয়ে। হঠাৎই তিনি বিখ্যাত হয়ে উঠেছেন। আর তাঁকে বিখ্যাত করে তুলেছে একটি লার্নিং অ্যাপ। বাইজু’স অ্যাপের কথা বলছি। দিব্যা তাঁর স্বামীর সঙ্গে মিলে এই অ্যাপটি তৈরি করেছেন। বরাবরই পড়াশোনার প্রতি আকৃষ্ট ছিলেন। বিশেষত অঙ্ক আর বিজ্ঞান। বিশদ

21st  August, 2021
প্রগতি এখন হাতের মুঠোয়

নারীপ্রগতি কি শুধুই অলীক কল্পনা? নাকি প্রগতির পথে ক্রমশ এগিয়ে চলেছে মেয়েরা? নারীকেন্দ্রিক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা স্বয়ম-এর ডিরেক্টর অনুরাধা কাপুর-এর সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজলেন কমলিনী চক্রবর্তী। বিশদ

14th  August, 2021
পৃথিবীর  অর্ধেক আকাশ

নারীর স্বাধীনতা না থাকলে দেশ স্বাধীন হয় না। এই ধারণা আমাদের দেশের একাংশ মানুষের। বিশ্লেষণ করলেন শুভঙ্কর মুখোপাধ্যায়। বিশদ

14th  August, 2021
একনজরে
: শহরের রাস্তায় নির্মাণ সামগ্রী পড়ে থাকলে তা তুলে নেবে পুর কর্তৃপক্ষ। এবং সেই সামগ্রী পুরসভার প্রয়োজনে ব্যবহার করা হবে। পুজোর আগে শহরের রাস্তাঘাট পরিষ্কার রাখতে সোমবার এমন নির্দেশিকা জারি করেছে পুর প্রশাসন। ...

নিউটাউনে স্কুল করার জন্য সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে প্রায় দুই একর জমি দিয়েছিল রাজ্য সরকার তথা হিডকো। বিতর্ক দেখা দেওয়ায় তিনি জমি ফিরিয়ে দেন। রাজ্যও তাঁর জমা দেওয়া জমির দাম ফিরিয়ে দেয়। ...

আমেরিকা, ব্রিটেন, ফ্রান্স, অস্ট্রেলিয়া, জাপান আগেই উচ্চারণ করেছে কড়া সতর্কবার্তা। এবার জার্মানি। সরাসরি তারা তালিবানকে জানিয়ে দিয়েছে, ভারতে কিংবা কোনও প্রতিবেশি রাষ্ট্রে সন্ত্রাসে মদত দেওয়া ...

বন্যা কবলিত পূর্ব মেদিনীপুরের মোট ৭ লক্ষ ৪৬ হাজার ৩১২জন ক্ষতিগ্রস্ত বলে নবান্নে রিপোর্ট পাঠাল জেলা প্রশাসন। কৃষি, মৎস্য বা উদ্যানপালন প্রভৃতি ক্ষেত্রে ক্ষয়ক্ষতির রিপোর্ট ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

কর্মে শুভ অগ্রগতি ও বিত্তলাভের অনুকূলে যোগ। মৃৎ ও চিত্র শিল্পীদের শুভদিন। দাম্পত্যে ও বিদ্যায় ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

বিশ্ব জলাতঙ্ক দিবস
খ্রিঃ পূঃ ৫৫১: মহান চীনা দার্শনিক ও শিক্ষাগুরু কনফুসিয়াসের জন্ম
১৫৭৩: ইতালীয় অনন্য চিত্রশিল্পী মাইকেলাঞ্জেলোর জন্ম
১৭৪৬: প্রাচ্য তত্ত্ববিদ ও এশিয়াটিক সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা উইলিয়াম জোনসের জন্ম
১৭৯৩: রাণী রাসমণির জন্ম
১৮৮৯: সাহিত্যিক, সাংবাদিক, কবি নলিনীকান্ত সরকারের জন্ম
১৮৯৫: ফরাসি রসায়নবিদ ও অণুজীববিজ্ঞানী লুই পাস্তুরের মৃত্যু
১৯০৭: বিপ্লবী ভগৎ সিংয়ের জন্ম
১৯২৮ - স্যার অ্যালেকজান্ডার ফ্লেমিং প্রথমবারের মতো পেনিসিলিন আবিষ্কারের কথা ঘোষণা করেন
১৯২৯: সুরসম্রাজ্ঞী লতা মঙ্গেশকরের জন্ম
১৯৪৭: বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্ম
১৯৭৫: অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার স্টুয়ার্ট ক্লার্ক জন্মগ্রহণ করেন।
১৯৮২: শ্যুটার অভিনব ব্রিন্দার জন্ম
১৯৮২: অভিনেতা রণবীর কাপুরের জন্ম



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭২.৯১ টাকা ৭৪.৬২ টাকা
পাউন্ড ৯৯.১৬ টাকা ১০২.৬০ টাকা
ইউরো ৮৪.৯৪ টাকা ৮৮.০৫ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪৬,৮৫০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৪৪, ৪৫০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪৫,১৫০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৬০,৬০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৬০,৭০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

১১ আশ্বিন ১৪২৮, মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১। সপ্তমী ৩১/৫৬ সন্ধ্যা ৬/১৭। মৃগশিরা নক্ষত্র ৩৮/৩ রাত্রি ৮/৪৪। সূর্যোদয় ৫/৩০/৪০, সূর্যাস্ত ৫/২৪/১২।  অমৃতযোগ দিবা ৬/১৭ মধ্যে পুনঃ ৭/৫ গতে ১১/৪ মধ্যে। রাত্রি ৭/৪৯ গতে ৮/৩৯ মধ্যে পুনঃ ৯/২৭ গতে ১১/৫২ মধ্যে পুনঃ ১/২৯ গতে ৩/৬ মধ্যে পুনঃ ৪/৪১ গতে উদয়াবধি। মাহেন্দ্রযোগ রাত্রি ৭/৪৯ মধ্যে। বারবেলা ৭/০ গতে ৮/২৯ মধ্যে পুনঃ ১২/৫৭ গতে ২/২৭ মধ্যে। কালরাত্রি ৬/৫৬ গতে ৮/২৬ মধ্যে। 
১১ আশ্বিন ১৪২৮, মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১। সপ্তমী দিবা ৩/১০।  মৃগশিরা নক্ষত্র রাত্রি ৭/০। সূর্যোদয় ৫/৩০, সূর্যাস্ত ৫/২৬। অমৃতযোগ দিবা ৬/২১ মধ্যে ও ৭/৮ গতে ১১/০ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/৪১ গতে ৮/৩০ মধ্যে ও ৯/২০ গতে ১১/৪৮ মধ্যে ও ১/২৭ গতে ৩/৬ মধ্যে ও ৪/৪৫ গতে ৫/৩১ মধ্যে। মাহেন্দ্রযোগ রাত্রি ৭/৪১ মধ্যে। বারবেলা ৭/০ গতে ৮/২৯ মধ্যে ও ১২/৫৮ গতে ২/২৭ মধ্যে। কালরাত্রি ৬/৫৭ গতে ৮/২৭ মধ্যে। 
২০ শফর

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
বারুইপুরে প্রোমোটারের কাছে ৫ লক্ষ টাকা দাবি দুষ্কৃতীর, চলল গুলি
প্রোমোটারের কাছে ৫ লক্ষ টাকা দাবি স্থানীয় দুষ্কৃতীর। প্রোমোটার তা ...বিশদ

01:13:22 PM

উপনির্বাচনের দিন ঘোষণা হতেই দিনহাটাতে ব্যস্ততা শুরু রাজনৈতিক মহলে
দিনহাটা বিধানসভা কেন্দ্রের উপনির্বাচনের দিন ঘোষণা হতেই প্রশাসনিক ও রাজনৈতিক ...বিশদ

12:59:09 PM

মুচিপাড়ায় শিশুকে অপহরন করে মুক্তিপণের দাবি, গ্রেপ্তার ২

12:56:00 PM

ময়নাগুড়িতে ছাদ থেকে পড়ে যুবকের মৃত্যু, চাঞ্চল্য
ছাদ থেকে পড়ে এক যুবকের মৃত্যু ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়াল ময়নাগুড়ি ...বিশদ

11:55:07 AM

মঙ্গলকোটে তৃণমূল নেতা খুনে গ্রেপ্তার আরও ১
মঙ্গলকোটের লাখুরিয়ার তৃণমূলের অঞ্চল সভাপতি অসীম দাস খুনে আরও একজনকে ...বিশদ

11:51:57 AM

ভবানীপুরের উপনির্বাচন করতে কোনও বাধা নেই, জানিয়ে দিল কলকাতা হাইকোর্ট
‘ভবানীপুরে উপনির্বাচন করাতে কোনও বাধা নেই’ এমনটাই জানিয়ে দিল কলকাতা ...বিশদ

11:34:05 AM