Bartaman Patrika
শরীর ও স্বাস্থ্য
 

বাঁধাকপি নাকি ফুলকপি পুষ্টিগুণে এগিয়ে কে?

উত্তর দিলেন  আয়ুর্বেদিক চিকিৎসক ডাঃ লোপামুদ্রা ভট্টাচার্য।

ঠান্ডা এখনও তেমন ভাবে পড়েনি। হালকা চাদর জড়াতে হলেও লেপ, কম্বল আলিঙ্গনের সময় এখনও অধরা। তবে বাজারজুড়ে বসে গিয়েছে হরেক সব্জির মেলা। জমিয়ে মরশুমি সব্জির স্বাদ উপভোগ করছেন আমজনতা। রান্নাঘর অধিকার করেছে ফুলকপি, বাঁধাকপিরা। পুষ্টিগুণ ও স্বাদ— সবেতেই এরা অতুলনীয়। তবে অনেক সময় মাথায় প্রশ্ন ঘোরে ফুলকপি নাকি বাঁধাকপি, কে বেশি উপকারী? কে অধিক পুষ্টিগুণ সম্পন্ন? চলুন আজ সেই উত্তর খুঁজে নিই। 

ফুলকপি 
শীতকালীন সব্জির নাম মনে করতে গেলেই শুরুতেই মাথায় আসে ফুলকপির কথা। খিচুড়ি, তরকারি, চপ, ভাজা— যে কোনও রূপে পাতে ফুলকপি পড়লে জমে যায়। তবে কেবল স্বাদ নয়, স্বাস্থ্যের যত্ন নিতেও ফুলকপির জুড়ি মেলা ভার। 

পুষ্টিগুণে ফুলকপি
১. ফুলকপিতে প্রচুর পরিমাণ ভিটামিন সি পাওয়া যায়। তবে এখানে একটা বিষয় মনে রাখতে হবে, মানুষ ছাড়া অন্যান্য প্রাণীরা শাকসব্জি কাঁচা খায়। যেহেতু আমরা ফুলকপি কাঁচা খাই না, তাই এর ভিটামিন সি আমাদের শরীরে তেমন কোনও কাজে লাগে না। আসলে জলে ধুলে বা গরমে রান্না করলে ভিটামিন সি অবশিষ্ট থাকে না। এই কারণে ফুলকপির ভিটামিন সি আমাদের কোনও উপকারে লাগে না। আবার ফুলকপি কাঁচা খাওয়াও উচিত নয়। তাই ভালো করে গরম জলে ধুয়ে খেতে হবে। চিন্তার কোনও কারণ নেই, এছাড়াও আরও অনেক গুণ রয়েছে ফুলকপির। 
 ২. ফুলকপিতে ভিটামিন বি, কে, এ ভরপুর পরিমাণে রয়েছে। শরীরের রোগ প্রতিরোধশক্তি বাড়ানোর পাশাপাশি আরও অনেক শারীরিক সমস্যার নিমেষে সমাধান করে এগুলি। এছাড়াও চোখের জন্য খুব উপকারী ফুলকপি। 
৩. সালফোরাফেন নামক একটি পদার্থ রয়েছে ফুলকপিতে যা হৃদরোগের বিরুদ্ধে লড়তে সাহায্য করে। এছাড়াও ক্যান্সার, টিউমারের সেলের বিরুদ্ধেও লড়াই করার ক্ষমতা রয়েছে এর। 
৪. সোডিয়াম, পটাশিয়াম, জিঙ্ক, ম্যাগনেশিয়ামের মতো খনিজ রয়েছে ফুলকপিতে। 
৫. ফ্যাট না থাকায় যাঁরা ডায়েট করছেন বা ডায়াবেটিসের রোগী, তাঁরা নিঃসংকোচে ফুলকপি খেতে পারেন। বরং ফুলকপিতে বেশ কিছুটা প্রোটিন রয়েছে। এছাড়াও প্রচুর ডায়টারি ফাইবার আছে। এগুলি কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে, ওজন কমাতে সাহায্য করে। 
৬. এই আনাজে অনেক ফাইবার রয়েছে। কোলেস্টেরলের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্য করে এটি। 
৭. ফুলকপিতে কোলিন থাকে। এই কারণে ইংরেজিতে এর নাম কলি ফ্লাওয়ার। অ্যালঝাইমার্সের মতো স্নায়ুর অসুখ প্রতিরোধে সাহায্য করে। খাদ্য তালিকায় নিয়মিত ফুলকপি রাখা হলে নার্ভের সমস্যা নিয়ন্ত্রণে থাকে, স্মৃতিশক্তি বাড়ে, মানসিক অবস্থাও ভালো থাকে। 
৮. যাঁদের থাইরয়েড হরমোনের পরিমাণ কম, তাঁরা নিয়মিত ফুলকপি খেলে উপকার পাবেন। 
৯. ফুলকপিতে রয়েছে, ক্যারোটিনয়েড এবং ফ্ল্যাভোনয়েড অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। যেগুলির ক্যান্সার রোধে সহায়তা করে।
১০. ফুলকপির প্রসঙ্গে ব্রকোলির কথাও বলা প্রয়োজন। দেখতে প্রায় একরকম হলেও ফুলকপির তুলনায় ব্রকোলির পুষ্টিগুণ অনেক বেশি। 

বাঁধাকপি
মাছের মাথা দিয়ে বা তরকারিতে— শীতকালে বাঁধা কপির তুলনা নেই। ফুলকপির মতোই বাঁধাকপিও পুষ্টিগুণে ভরপুর। 

স্বাস্থ্যগুণে বাঁধাকপি
১. ফুলকপির প্রায় দ্বিগুণ পরিমাণ ক্যালশিয়াম থাকে বাঁধাকপিতে। হাড়ের বিভিন্ন সমস্যা দূর করে এই আনাজ।
২. যাঁদের শরীরে ভিটামিন কে-এর অভাব রয়েছে, ব্লিডিংয়ের সমস্যা রয়েছে, তাঁরা নিয়মিত বাঁধাকপি খেতে পারেন। 
৩. ফুলকপির মতো বাঁধাকপি খোলা অবস্থায় থাকে না। প্রকৃতি ওর জন্য আলাদা একটি খোলসের ব্যবস্থা করে রেখেছে। তার জন্য স্বল্প পরিমাণে থাকলেও বাঁধাকপি থেকে আমরা ভিটামিন সি পাব। কারণ রান্না না করেও স্যালাড হিসেবে বাঁধাকপি খাওয়া যায়। তবে কাটার ১০-১৫ মিনিটের মধ্যে বাঁধাকপি খেয়ে নিতে হবে। নইলে ভিটামিন সি পাওয়া যায় না। 
৪. বাঁধাকপিতে খুব সামান্য পরিমাণে কোলেস্টেরল ও ফ্যাট রয়েছে। প্রচুর পরিমাণে ফাইবারও আছে। ওজন কমাতে চাইলে, বাঁধাকপি কার্যকরী ভূমিকা নেবে। স্যালাডে বাঁধাকপি থাকলে ক্যালরি বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে না। এলডিএল কোলেস্টেরল কমাতে সাহায্য করে সব্জিটি। 
৫. হার্টের জন্য ভীষণ উপকারী বাঁধাকপি। নিয়মিত বাঁধাকপি খেলে হৃদযন্ত্র ভালো থাকে।  
৬. অন্ত্রে অনেক ভালো ব্যাকটেরিয়াও থাকে, যেগুলি রোগ প্রতিরোধে সাহায্য করে। বাঁধাকপি সেগুলিকে বাঁচিয়ে রাখতে সহায়তা করে। 
৭. যেহেতু এই সব্জিটি প্রাকৃতিক উপায়ে সুরক্ষিত থাকে পাতা দিয়ে, তাই বাইরের কৃত্রিম সার, রাসায়নিক এর ক্ষতি করতে পারে না। নির্ভয়ে খাওয়া যায়। 
৮. হজম করার জন্য খুব উপকারী বাঁধাকপি। 
পরিশেষে বলা যায়, উপরের বৈশিষ্ট্যগুলির দিকে তাকালেই বোঝা যায়, ফুলকপিতে অনেক খনিজ উপাদান থাকলেও বাঁধাকপিতে সেগুলি তুলনায় কম। আবার ভিটামিন কে, সি, ক্যালশিয়াম— এগুলির উপকার আপনি বাঁধাকপি থেকেই পাবেন। তাই কোনওটিই কারও পরিপূরক নয়। দু’টি সব্জিই পুষ্টিগুণ সম্পন্ন। আমাদের শরীর ও স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী। দু’টি মধ্যেই ক্যালোরি বেশি নেই, তাই যাঁরা ডায়েট কনশাস, ডায়াবেটিস রয়েছে, তাঁরা খেতে পারেন নিশ্চিন্তে। সুস্থ থাকুন, জমিয়ে শীতের সব্জি উপভোগ করুন।
লিখেছেন শান্তনু দত্ত
 
30th  November, 2023
ব্রণ হয়েছে মানেই লিভার খারাপ?

যত দোষ নন্দ ঘোষ। আমাদের লিভারের হয়েছে সেই দশা। মুখে ব্রণ কিংবা মেচেতা, চোখের নিচে কালি, শ্বেতি, অকালে চুল পড়া, মুখে দুর্গন্ধ, পেট ভার এবং গ্যাস, ক্ষুধামান্দ্য, মুখে ঘা– সবকিছুর জন্য দেহের একটি অঙ্গই নাকি দায়ী! তার নাম লিভার। বাংলায় যকৃৎ। কিন্তু সত্যিই কি তাই! বিশদ

30th  November, 2023
মেয়েরা কি ছেলেদের চেয়ে এগিয়ে?

ইমিউনিটি: নারীর গড় আয়ু পুরুষের তুলনায় বেশি। পুরুষের তুলনায় নারীর হার্টের অসুখ হয় কম। দুর্যোগেও নারীর টিকে যাওয়ার হার বেশি। এমনকি সাত মাসে ভূমিষ্ঠ হওয়া শিশুদের ভেতর কন্যাসন্তানদের ‘বেঁচে থাকার হার’ বেশি। বিশদ

30th  November, 2023
বিশ্ব উষ্ণায়ন আঘাত হানছে মাতৃজঠরে, মৃত্যু হচ্ছে মা-শিশুর! বাড়ছে রোগ

গ্লোবাল ওয়ার্মিং বা বিশ্ব উষ্ণায়ন ক্রমে মা ও শিশুমৃত্যুর কারণ হয়ে উঠছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা, ইউনিসেফ ও ইউএনএফপিএ এক যৌথ বিবৃতিতে এই চাঞ্চল্যকর বার্তা দিয়েছে। বিশদ

24th  November, 2023
ষষ্ঠ ইন্দ্রিয় কি সত্যিই আছে?

আর জি কর হাসপাতালের সাইকিয়াট্রি বিভাগের প্রাক্তন প্রধান ডাঃ দিলীপ মণ্ডল প্রশ্ন শুনে খানিক চুপ করে থাকলেন। তারপর ধীরে ধীরে  জবাব দিলেন—‘প্রমথ চৌধুরীর লেখা ছোট গল্প ‘মন্ত্রশক্তি’র কথা মনে আছে? বিশদ

23rd  November, 2023
ভালো ঘুমের জন্য কী খাওয়া উচিত

ঘুমের সমস্যার বড় কারণ হতে পারে রোজকার খাদ্যাভ্যাস। জেনে নিন ভালো ঘুমের জন্য কী খাওয়া উচিত।  বিশদ

23rd  November, 2023
গাজা: হাসপাতালে হামলার প্রতিবাদে স্বাক্ষরগ্রহণ কর্মসূচি

ইজরায়েল-হামাস যুদ্ধে  হাসপাতাল ও স্বাস্থ্য পরিষেবার উপর ঘটে চলেছে লাগাতার আক্রমণ। ইনকিউবেটরে বিদ্যুতের অভাবে অসংখ্য শিশুমৃত্যু, চিকিৎসা পরিষেবা দিতে গিয়ে কর্মরত ডাক্তার  নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের মৃত্যু যেন নিত্যনৈমিত্তিক ঘটনা! এমন পরিস্থিতিতে যুদ্ধ চলাকালীন হাসপাতাল চত্বরে এবং সেখানে কর্মরত ডাক্তার, নার্স, স্বাস্থ্যকর্মীদের উপর আক্রমণ বন্ধের দাবিতে একজোট হল কলকাতার ৫০টি হাসপাতাল।  বিশদ

23rd  November, 2023
কেক কেটে রোগীর জন্মদিন পালন বি পি পোদ্দারে

ছোট থেকে বড়, কেউই চায় না হাসপাতালে ভর্তি হতে। হাসপাতাল মানেই মনের কোণে অস্বস্তি! অনেকসময় ছোটখাট অস্বস্তি তাই অনেকেই পরিবারের সদস্যদের কাছ থেকে লুকিয়ে রাখেন। কোনও কোনও ক্ষেত্রে তার ফল হয় গুরুতর। তাই হাসপাতাল ভীতি কাটাতে সম্প্রতি বিশেষ উদ্যোগ নিল বি পি পোদ্দার হাসপাতাল। বিশদ

23rd  November, 2023
মণিপালের ডায়াবেটিস হেলথ চেক আপ

সম্প্রতি উদযাপিত হল বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস। মণিপাল হাসপাতালের তরফেও তাই নেওয়া হয় বিশেষ কর্মসূচি। পশ্চিমবঙ্গ বন উন্নয়ন কর্পোরেশন লিমিটেড ও মণিপাল হাসপাতালের যৌথ উদ্যোগে ওই দিন সল্টলেকের সেন্ট্রাল পার্কে বিশেষ স্বাস্থ্যপরীক্ষা শিবিরের আয়োজন করা হয়। বিশদ

23rd  November, 2023
রাগ নিয়ন্ত্রণে রাখবেন কীভাবে?

পরামর্শে মনোরোগ চিকিৎসার জাতীয় স্টিয়ারিং গ্রুপের সদস্য বিশিষ্ট সাইকিয়াট্রিস্ট  ডাঃ রঞ্জন ভট্টাচার্য।
বিশদ

16th  November, 2023
কাঁদলে কেন দুঃখ কমে?

‘মন ভালো নেই মন ভালো নেই মন ভালো নেই/ কেউ তা বোঝে না, সকলি গোপন মুখে ছায়া নেই!’ একথা একদা লিখেছিলেন সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়। মন ভালো নেই বলে কবি কি কেঁদেছিলেন কখনও?
বিশদ

16th  November, 2023
তেতো খেলে কি সুগার কমে? 

ডায়াবেটিস প্রতিরোধ করা সম্ভব। আর তা করা যায় খাদ্যাভ্যাস ও জীবনযাত্রার ছোটখাট পরিবর্তন করেই। তাই ‘প্রি ডায়াবেটিক’ বা
বিশদ

16th  November, 2023
বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস: শহরজুড়ে পালিত হল নানা অনুষ্ঠান

বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবসে একাধিক উদ্যোগ গ্রহণ করল জিডি হাসপাতাল। ডায়াবেটিসকে জানা ও তা নির্মূল করার প্রয়াসে ‘নো (know) ডায়াবেটিস, নো (no) ডায়াবেটিস’
বিশদ

16th  November, 2023
বেঙ্গালুরুতে মেডিক্যাল সার্ভিস সেন্টারের সম্মেলন

মেডিক্যাল সার্ভিস সেন্টারের সর্বভারতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হল বেঙ্গালুরুতে। গত ৪ ও ৪ নভেম্বর এই সম্মেলনে হাজির ছিলেন প্রায় আট শতাধিক নার্স, চিকিৎসক, স্বাস্থ্যকর্মী,
বিশদ

16th  November, 2023
মহিলা ও শিশুদের চিকিৎসায়  ডিসানের সুপারস্পেশালিটি ইউনিট

নারী ও শিশুর চিকিৎসায় সুপারস্পেশালিটি ইউনিট শুরু করল ডিসান হাসপাতাল। সম্প্রতি কলকাতায় একটি সমাবর্তন অনুষ্ঠানের মাধ্যমে তাদের এই পথ চলা শুরু করল ডিসান।
বিশদ

16th  November, 2023
একনজরে
আচমকা চিতাবাঘের দেখা! দক্ষিণ দিল্লির নেব সরাইয়ে এই ঘটনায় প্রবল আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। বন্য পশুটির খোঁজে শুরু হয় তল্লাশি। ...

পরিযায়ী শ্রমিকের কাজে গিয়ে উত্তরপ্রদেশে পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু হল সালার থানার খাড়েরা গ্রামের এক যুবকের। মৃতের নাম বাদশা শেখ (২৪) । গ্রামের অঞ্চলপাড়ার বাসিন্দা ছিলেন তিনি। মাসতিনেক আগে তিনি রাজমিস্ত্রির কাজে সেখানে গিয়েছিলেন। ...

জবজের চিত্রগঞ্জ কালীবাড়িতে ভক্ত ও দর্শনার্থীদের আনাগোনা দিনে দিনে বাড়ছে। দূর-দূরান্ত থেকে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ ছুটে আসছেন। ...

২০০৪ সাল। ভারতীয় ফুটবলে সাড়া জাগানো নাম মাহিন্দ্রা ইউনাইটেড। ম্যানেজমেন্টের আন্তরিকতা দেখে সই করতে দ্বিধা করিনি। মরশুমের শুরুটা ভালোই হয়েছিল। কিন্তু বিনা মেঘে বজ্রপাত। একদিন অনুশীলনের আগে হঠাৎ ডাক পড়ল। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

যে কোনও ব্যবসায় শুভ ফল লাভ। বিশেষ কোনও ভুল বোঝাবুঝিতে পারিবারিক ক্ষেত্রে চাপ। অর্থপ্রাপ্তি হবে। ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

বিশ্ব মাটি দিবস
১৩৬০: ফ্রান্সের মুদ্রা ফ্রাঁ চালু হয়
১৮৫৪: রিভলবিং থিয়েটার চেয়ারের পেটেন্ট করেন অ্যারোন অ্যালেন
১৮৭৯: স্বয়ংক্রিয় টেলিফোন সুইচিং সিস্টেম প্রথম পেটেন্ট হয়
১৯০১: মার্কিন চলচ্চিত্র প্রযোজক, নির্দেশক ও কাহিনীকার ওয়াল্ট ডিজনির জন্ম
১৯১১: প্রবাদপ্রতিম গীতিকার ও কবি প্রণব রায়ের জন্ম
১৯১৩: বাঙালি চিত্রশিল্পী গোপাল ঘোষের জন্ম
১৯২৪: গীতিকার গৌরীপ্রসন্ন মজুমদার জন্ম
১৯৩২: অভিনেত্রী নাদিরার জন্ম
১৯৩৫: কলকাতায় মেট্রো সিনেমা হল প্রতিষ্ঠা হয়
১৯৩৯: অভিনেত্রী বাসবী নন্দীর জন্ম
১৯৪০: সঙ্গীত শিল্পী গুলাম আলির জন্ম
১৯৪৩: জাপানী বোমারু বিমান কলকাতায় বোমা বর্ষণ করে
১৯৫০: বিপ্লবী, দার্শনিক ও আধ্যাত্মসাধক ঋষি অরবিন্দের প্রয়াণ
১৯৫১: শিল্পী ও লেখক অবনীন্দ্রনাথ ঠাকুরের মৃত্যু
১৯৬৯: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান পূর্ব-পাকিস্তানের নামকরণ করেন ‘‘বাংলাদেশ ”
১৯৮৫: ক্রিকেটার শিখর ধাওয়ানের জন্ম
১৯৯৯: যানজট এড়াতে ব্যাংককে আকাশ ট্রেন সার্ভিস চালু
১৯৯৯: মিস ওয়ার্ল্ড হলেন যুক্তামুখী
২০১৩: দক্ষিণ আফ্রিকার বর্ণবাদবিরোধী আন্দোলনের অবিসংবাদিত নেতা নেলসন ম্যান্ডেলার মৃত্যু



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৮২.৪৫ টাকা ৮৪.১৯ টাকা
পাউন্ড ১০৩.৯২ টাকা ১০৭.৩৯ টাকা
ইউরো ৮৯.১৩ টাকা ৯২.৩০ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৬৩,৮০০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৬৪,১০০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৬০,৯৫০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৭৬,৭০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৭৬,৮০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

১৮ অগ্রহায়ণ, ১৪৩০, মঙ্গলবার, ৫ ডিসেম্বর ২০২৩। অষ্টমী ৪৬/১৯ রাত্রি ১২/৩৮। পূর্বফল্গুনী নক্ষত্র ৫৩/৪৯ রাত্রি ৩/৩৮। সূর্যোদয় ৬/৬/১৪, সূর্যাস্ত ৪/৪৭/৪২। অমৃতযোগ দিবা ৬/৪৮ মধ্যে পুনঃ ৭/৩২ গতে ১১/৫ মধ্যে। রাত্রি ৭/২৮ গতে ৮/২১ মধ্যে পুনঃ ৯/১৪ গতে ১১/৫৪ মধ্যে পুনঃ ১/৪১ গতে ৩/২৭ মধ্যে পুনঃ ৫/১৪ গতে উদয়াবধি। বারবেলা ৭/২৭ গতে ৮/৪৭ মধ্যে পুনঃ ১২/৪৭ গতে ২/৮ মধ্যে। কালরাত্রি ৬/২৮ গতে ৮/৭ মধ্যে। 
১৮ অগ্রহায়ণ, ১৪৩০, মঙ্গলবার, ৫ ডিসেম্বর ২০২৩। অষ্টমী রাত্রি ১১/২। পূর্বফল্গুনী নক্ষত্র রাত্রি ২/৫৯। সূর্যোদয় ৬/৮, সূর্যাস্ত ৪/৪৮। অমৃতযোগ দিবা ৭/৩ মধ্যে ও ৭/৪৫ গতে ১১/৬ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/৩৫ গতে ৮/২৯ মধ্যে ও ৯/২৩ গতে ১২/৪ মধ্যে ও ১/৫২ গতে ৩/৩৯ মধ্যে ও ৫/২৭ গতে ৬/৮ মধ্যে। বারবেলা ৭/২৮ গতে ৮/৪৮ মধ্যে ও ১২/৪৮ গতে ২/৮ মধ্যে। কালরাত্রি ৬/২৮ গতে ৮/৮ মধ্যে। 
২০ জমাদিয়ল আউয়ল।

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
বচসার জেরে গুলি চালানোর অভিযোগে উত্তরপ্রদেশে গ্রেপ্তার অভিনেতা ভূপিন্দর সিং, মৃত ১, জখম ৩

08:26:58 PM

তেলেঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী হচ্ছেন রেবন্ত রেড্ডিই, জানাল কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্ব

07:00:00 PM

ভাইফোঁটায় সলমন খানকে আমন্ত্রণ মমতার

06:56:35 PM

অনুষ্ঠানের সঞ্চালনার দায়িত্বে জুন মালিয়া, চূর্ণী গঙ্গোপাধ্যায়

06:45:00 PM

কেউ আমাদের ভাগ করতে পারবে না: মমতা

06:44:48 PM

বাংলা এখন ফিল্ম ডেস্টিনেশন হতে পারে: মমতা

06:43:53 PM