Bartaman Patrika
আমরা মেয়েরা
 

মহাষ্টমী পুজো

মহাষ্টমী পুজোর দিন সকালে পুরোহিত আচমন করে মায়ের পুজো শুরু করেন। আসনশুদ্ধি, ভূতশুদ্ধি, মাতৃকান্যাস, প্রাণায়াম, পীঠন্যাস সমাপ্ত করে মাকে দন্তকাষ্ঠ নিবেদন করেন। তারপর শুরু হয় মায়ের মহাস্নান। সপ্তমী তিথির মতো নানা মৃত্তিকা, সুগন্ধি তেল, নানা ধরনের জল প্রভৃতি দ্বারা দর্পণে মায়ের প্রতিবিম্বতে মহাস্নান সমাপ্ত করে গণেশ, শিব, দুর্গা, নারায়ণ, লক্ষ্মী, সরস্বতী, ব্রহ্মা, কার্তিক, সূর্য, নবগ্রহ, জয়া, বিজয়া, পীঠদেবতা, সিংহ, অসুর, পেঁচা, হাঁস, ময়ূর, ইঁদুর প্রভৃতিদের পুজো করে দেবী দুর্গার ধ্যান, ষড়ঙ্গ বিন্যাস করে ষোড়শোপচারে দেবীর পুজো ও নবপত্রিকার পুজো ও আবরণ পুজো করা হয়। মহাষ্টমীর দিন মহাস্নান ও সমস্ত আচার সমাপ্ত করে মায়ের ঘটের সামনে ‘সর্ব্বতোভদ্র মণ্ডল’ নির্মাণ করা হয়। তারপর দেবীর ধ্যানের পর শুরু হয় ‘পীঠপুজো’। দেবীর মঙ্গলঘটের সামনে অষ্টদল পদ্ম এঁকে সেই পদ্মের প্রত্যেক দল বা পাঁপড়িতে মন্ত্র পড়ে (প্রত্যেক পাঁপড়িতে আলাদা মন্ত্র ও ধ্যান আছে) ধ্যান করতে হয়। এইভাবে মণ্ডলের আট দিকে ও মধ্যস্থলে ‘নবঘট’ স্থাপন করে নবশক্তির যথোপযুক্ত পুজো ও প্রণাম করা হয়।
এখানে উল্লেখ করা প্রয়োজন যে অষ্টদল পদ্মের প্রতিটি দল বা পাঁপড়িতে আটজন করে যোগিনীর অর্থাৎ আটটি দলে মোট চতুঃষষ্ঠী যোগিনীর পুজো ও প্রণাম করে মন্ত্রদ্বারা কোটিযোগিনীর পুজো করে মণ্ডলের নবঘটে নবদুর্গার আহ্বান করে পুজো ও প্রণাম করা হয়।
তারপর হয় দিক্‌পা঩লের পুজো। মণ্ডলমধ্যে দশদিকে দশরংয়ের ধ্বজ বা পতাকা রোপণ করে দিক্‌পা঩লের পুজো করা হয়ে থাকে। পূর্বদ্বারে শুক্লধ্বজ পতাকা রোপণ, অগ্নিকোণে রক্তধ্বজ পতাকা, দক্ষিণে কৃষ্ণধ্বজ পতাকা, নৈঋতে রক্তধ্বজ পতাকা, পশ্চিমে নীলধ্বজ পতাকা, বায়ুকোণে পীতধ্বজ পতাকা, উত্তরে কৃষ্ণধ্বজ পতাকা, ঈশানে শ্বেতধ্বজ পতাকা, মধ্যে রক্তধ্বজ পতাকা, পূর্ব ও ঈশান কোণে বিচিত্রধ্বজ পতাকা রোপণ করে মন্ত্র দ্বারা পুজো ও প্রণাম করতে হয়।
দুর্গাপুজোর প্রত্যেক দিনই মা দুর্গাকে পুষ্পাঞ্জলি প্রদান করে মায়ের আশীর্বাদ প্রার্থনা করা হয়। তবে অষ্টমীতে অঞ্জলির জনপ্রিয়তা আমাদের সমাজে বিশেষভাবে লক্ষণীয়।
মা দুর্গার প্রিয় ফুল অতসী আর অপরাজিতা। তাই এই দুটি ফুল ও শিউলি ও অন্যান্য ফুল চন্দনের ছিঁটে দিয়ে সেই ফুল ও ত্রিপত্র বেলপাতা হাতে নিয়ে শুদ্ধাচারে তিনবার অঞ্জলির মন্ত্র বলে মাকে পুষ্পাঞ্জলি প্রদান করে প্রণাম মন্ত্র উচ্চারণ করে মায়ের আশীর্বাদ কামনা করা হয়।
এরপর দেবীর অস্ত্রসমূহের পুজো করা হয়। দুর্গাপুজোর অন্য দিনগুলোর মতো মহাষ্টমীতেও চণ্ডীপাঠ করা হয়।
অনেক পুজোতে মহাষ্টমীতে হোম করা হয়। গৃহস্বামীর বেদ অনুসারে হোম করা হয়। বেদ জানা না থাকলে যজুঃর্বেদ অনুসারে হোম অনুষ্ঠিত হয়।
অনেক স্থানে অষ্টমীতে কুমারী পুজো করা হয়। যাদের পুজোয় বলিদান প্রচলিত আছে সেখানে বলিদান করা হয়। মায়ের ভোগও বৈচিত্র্যপূর্ণ। কেউ কেউ মা সহ তার সন্তানদের সবাইকে নিরামিষ ভোগ দেন। কেউ বা মাকে মাছ, মাংস সহ আমিষ ভোগ দান করেন। মা ও তার সন্তানেরা আমিষ ভোগ খেলেও শিব ও নারায়ণকে সব সময়ই নিরামিষ ভোগ দিতে হয়। এছাড়া ফল, মিষ্টি, খই-মুড়কি, নাড়ু-তক্তি প্রভৃতি দিয়ে নৈবেদ্য প্রদান করা হয়।
পাঁচফল খই, মুড়কি, নাড়ু-তক্তি দিয়ে রচনা দেওয়া হয়। ভোগ প্রদানের পর আরতি করে অষ্টমী পুজো সমাপ্ত হয়।
অষ্টমী ও নবমী তিথির সন্ধিক্ষণে হয় মা দুর্গার সন্ধিপুজো।
(সন্ধিপুজো সম্বন্ধে পরের পাতায় লেখা আছে)
যদি সন্ধিপুজোর সময় সকালে বা রাতে হয় তাহলে সন্ধেবেলা মা দুর্গাকে বৈকালি ভোগ দিয়ে যথানিয়মে ঢাক-ঢোল-কাঁসর-ঘণ্টা-শঙ্খ ও উলুধ্বনির মধ্য দিয়ে মায়ের আরতি হয়।
 সন্ধিপুজো
অষ্টমী-নবমীর সন্ধিক্ষণে পুরোহিত সামান্যার্ঘ্যাদি স্থাপন পূর্বক মা দুর্গাকে চামুণ্ডারূপে চিন্তা করে ধ্যান করে ষোড়শোপচারে মায়ের পুজো করেন। এই সময় মন্ত্র উচ্চারণ করতে করতে মা দুর্গাকে একশো আটটি পদ্ম নিবেদন করা হয়। জ্বালানো হয় একশো আটটি মঙ্গলদীপ। তৈজসাধারাদি উৎসর্গ করে চতুঃষষ্ঠী-যোগিনী এবং মা চামুণ্ডার পুজো করা হয়। মা চামুণ্ডাকে শয্যা দেওয়া হয়। রক্তবস্ত্র মাকে দেওয়া হয়। ভোগ প্রদান করা হয়। বলিদান করা হয় (যাদের বলিপ্রথা আছে) দীপমালা উৎসর্গ করে যথানিয়মে সন্ধিপুজো করা হয়। মা চামুণ্ডার ধ্যানমন্ত্র হল— ‘ওঁ কালী করালবদনা বিনিষ্ক্রান্তাসিপাশিনী। বিচিত্র খট্টাঙ্গধরা নরমালাবিভূষণা। দীপিচর্মপরীধানা শুষ্কমাংসাতিভৈরবা। অতিবিস্তারবদনা জিহ্বাললনা ভীষণা। নিমগ্নারক্তনয়না নাদাপুরিতদিঙ্মুখা।’
দূর্বা বাগচী
মহাপূজার আঙিনায়
বলিদান

 মহাপূজার অন্যতম অঙ্গ বলিদান। বলি শব্দের অর্থ উপহার। দেবীভাগবতের মতে, একমাত্র দেবী পূজাতেই বলিদান সম্মত। অন্যত্র নয়। কারণ ব্রহ্মবিদ্যাস্বরূপিণী দেবী আমাদের স্বরূপনিরোধক এই ঘোর জীববুদ্ধি নাশ করে ব্রহ্মকারা বৃত্তিতে প্রকাশমান হন। তাই মহাদেবী বলিপ্রিয়া।
বিশদ

সেকাল একালের
আগমনী আড্ডা

দুর্গা পুজো মানেই নতুন পোশাক, খাওয়া-দাওয়া, রাত জেগে ঠাকুর দেখা আর নির্ভেজাল আড্ডা। আড্ডা পরিকল্পনাও থাকে নানারকম। আড্ডাবাজ বাঙালির আড্ডার আসর বসে পাড়ার পুজো, বাড়ির পুজো, বা আবাসনের পুজোমণ্ডপে। নব্য প্রজন্মের কেউ বা পছন্দ করে ঘুরে বেড়িয়ে আড্ডা দিতে। বিশদ

মহিলা মৃৎশিল্পী
ঠাকুর গড়েন চায়না পাল

 ছোটবেলায় আঁকতে ভীষণ ভালোবাসতেন চায়না। পেন বা পেন্সিল দিয়ে পাতার পর পাতা ঠাকুর দেবতার ছবি আঁকতেন তিনি। টানা টানা চোখওয়ালা সাবেকি ঠাকুরের মুখ ভরে যেত তাঁর খাতার পাতায়। বাবা যখন ঠাকুর গড়তেন সেটাও হাঁ করে দেখতেন চায়না। বিশদ

উৎসবের ভোজ, ভোজের উৎসব 

ভোরের প্রথম আলোয় শিউলি ফুলের মন মাতানো মিষ্টি গন্ধই শুধু নয়, ভোরের বাতাসেও অকারণ পুলকের স্পন্দন। পাড়ায় পাড়ায় বাঁশ আর কাপড়ের স্তূপ। যেন উৎসবের আর উৎসাহের জোয়ার। মায়ের আগমনী বার্তা বয়ে নিয়ে আসে এইসব খুঁটিনাটির অনুষঙ্গগুলো।   বিশদ

14th  September, 2019
মহিলা মৃৎশিল্পী 

সুস্মিতা রুদ্রপাল মিত্র: এক দশক মানে প্রায় বারো বছর হয়ে গেল সুস্মিতা রুদ্রপাল মিত্র প্রতিমা তৈরি করা শুরু করেছেন। সুস্মিতার বেড়ে ওঠা কুমোরটুলির এক মৃৎশিল্পীর পরিবারে। বাড়িতে বাবা-দাদাদের কাজ দেখতে দেখতে বড় হয়েছেন সুস্মিতা।  বিশদ

14th  September, 2019
মহাসপ্তমী পুজোর রীতি ও আচার 

দুর্গাপুজোর মহাসপ্তমী। এই দিন প্রথমে গৃহকর্তা পুরোহিতকে কাপড় ও নানা দ্রব্য দিয়ে বরণ করে নেবেন। তারপর নবপত্রিকা স্নান। গঙ্গা বা কোনও জলাশয়ে নবপত্রিকাকে স্নান করিয়ে নতুন কাপড় পরিয়ে যথাযথ মন্ত্র উচ্চারণ করে দুর্গামণ্ডপে প্রতিষ্ঠা করা হয়।   বিশদ

14th  September, 2019
মহাপূজার আঙিনায় 

মহাস্নানের পর আরম্ভ হয় দেবীর পুজো। আরাধনার প্রথম ধাপ সুস্থ দেহ ও স্থির মন। সর্বাগ্রে এটি করা প্রয়োজন, না করলে দেবতার অধিষ্ঠান হতে পারে না। শ্রীরামকৃষ্ণদেব বলতেন, ‘প্রতিমায় আবির্ভাব হতে গেলে তিনটি জিনিসের দরকার— প্রথম পূজারীর ভক্তি, দ্বিতীয় প্রতিমার সৌন্দর্য, তৃতীয় গৃহস্বামীর ভক্তি।’  বিশদ

14th  September, 2019
 শহর জুড়ে আজ পুজোর মরশুম

নরম শিউলি ফুলের মতো মিষ্টি রোদ ছেয়ে আছে শহর জুড়ে। চাঁদার বই হাতে উদ্যোক্তাদের ইতিউতি উপস্থিতি, বেমক্কা জ্যাম, শপিং মল থেকে ফুটপাতে উপচানো ভিড় দেখেই অনুমান করা যায় শহর জুড়ে আজ পুজোর মরশুম। উচ্ছ্বাসে মেতে ওঠা শহরবাসী এখন কেনাকাটা করেন চুটিয়ে।
বিশদ

07th  September, 2019
 বোধনে মহাষষ্ঠী

মহাষষ্ঠীতে হয় মা দুর্গার বোধন। সকালবেলায় তিথি দেখে ষষ্ঠীপুজো হয়ে থাকলেও তিথি অনুযায়ী সন্ধেবেলায় বিল্ববৃক্ষতলে হয় দেবীর বোধন। তখন শুদ্ধাচারে, শুদ্ধাসনে, শুদ্ধবস্ত্র পরিধান করে স্বস্তিবাচন ও পাপাপনোদন করেন পুরোহিত। তিনি ঊর্ধ্ব, অধঃ পার্শ্বদ্বয় ভালো করে দেখেন ও শান্ত চিত্তে কুশ, তিল, ফল, পুষ্প দিয়ে জলপূর্ণ তাম্রপাত্র গ্রহণ করেন।
বিশদ

07th  September, 2019
মহিলা মৃৎশিল্পী কাকলি পাল

দু’ হাজার তিন সাল। কালীপুজোর ঠিক আগের ঘটনা। মৃৎশিল্পী কাকলি পালের স্বামী ঠাকুর তৈরির বায়না নিয়ে আসার পরের পরের দিন হঠাৎ ব্রেন স্ট্রোকে মারা যান। তখন কাকলির বড় মেয়ের বয়স সাত এবং ছোট মেয়ের এক। দুটো মেয়েকে নিয়ে কাকলি অথৈ জলে পড়েছিল।
বিশদ

07th  September, 2019
মহাপূজার আঙিনায়

মা আনন্দময়ীর আগমন। বর্ষে বর্ষে আসেন তিনি। আমাদের ঘরে-বাইরে তাঁর ছড়ানো সংসারে। শারদীয়া দেবীর আবির্ভাবের মধ্য দিয়েই জাতির আত্মশক্তির উদ্বোধন। ব্রত-পার্বণ উৎসবময় ভাবালোকে মাতৃমূর্তির এই আবির্ভাব।   বিশদ

07th  September, 2019
 ঋণ নিয়ে রোজগেরে মেয়েরা

গ্রামের মহিলাদের ঋণ দিয়ে রোজগেরে করে তুলছে ভিলেজ ফিনানসিয়াল সার্ভিস। কীভাবে এই পথে ঋণ নিয়ে রোজগেরে হয়ে ওঠা যায় তারই উপায় জানালেন সংস্থার কর্ণধার। প্রতিবেদনে কমলিনী চক্রবর্তী।
বিশদ

31st  August, 2019
কুড়ির তারুণ্যে ভরা ল্যা ক মে

পাঁচদিনের ‘ল্যাকমে ফ্যাশন উইক উইন্টার-ফেস্টিভ ২০১৯’-র এবারের আসরও ছিল জমজমাট। এবছর কুড়িতে পা দিল ল্যাকমে ফ্যাশন উইক। কুড়ির অভিজ্ঞতা গায়ে মেখে তারুণ্যে ভরা ল্যাকমের আসর থেকে নতুন নতুন ফ্যাশনধারার সন্ধান দিলেন আমাদের মুম্বই প্রতিনিধি দেবারতি ভট্টাচার্য।
বিশদ

31st  August, 2019
 সাধারণ মানুষের জন্যেও পোশাক বানাই: অনিতা ডোঙ্গরে

নিউ ইয়র্কের সোহোর পাশাপাশি কলকাতার এলগিন রোডেও রয়েছে তাঁর শো রুম। তাঁর তৈরি করা পোশাক পরেছেন হিলারি ক্লিন্টন থেকে ডাচেস অব কেমব্রিজ পর্যন্ত। এ হেন আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন ডিজাইনার অনিতা ডোঙ্গরের সঙ্গে কথোপকথনে স্বস্তিনাথ শাস্ত্রী।
বিশদ

31st  August, 2019
একনজরে
 নিজস্ব প্রতিনিধি, নয়াদিল্লি, ২০ সেপ্টেম্বর: চলতি ২০১৯-২০ আর্থিক বছরে দেশের মাইক্রো-ফিনান্স ইন্ডাস্ট্রি ২ লক্ষ ৫০ হাজার কোটি টাকার গণ্ডি অতিক্রম করবে। স্ব-ধন ‘ভারত মাইক্রো-ফিনান্স রিপোর্ট, ২০১৯’-এ প্রকাশ পেয়েছে এই তথ্য। ...

 গুয়াহাটি, ২০ সেপ্টেম্বর (পিটিআই): এনআরসির বিরোধিতায় শুক্রবার অসমজুড়ে ১২ ঘণ্টার বন্ধ পালন করা হয়। অল কোচ রাজবংশী স্টুডেন্টস ইউনিয়ন (একেআরএসইউ)-এর ডাকা ওই বন্঩ধে এদিন স্বাভাবিক ...

 ওয়াশিংটন, ২০ সেপ্টেম্বর (পিটিআই): আমেরিকার রাস্তায় ফের প্রকাশ্যে বন্দুকবাজের তাণ্ডব। গুলিতে একজন প্রাণ হারিয়েছেন এবং আরও পাঁচজন জখম হয়েছেন। পুলিস জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার রাত ১০টা নাগাদ কলম্বিয়া হাইটস এলাকায় ওই ঘটনা ঘটেছে। জায়গাটি হোয়াইট হাউস থেকে খুব বেশি দূরে নয় বলেও ...

বিএনএ, রায়গঞ্জ: দুই শিক্ষাকর্মীর বদলির প্রতিবাদে ছাত্র আন্দোলনে শুক্রবার উত্তাল হল রায়গঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয়। এদিন বিশ্ববিদ্যালয়ে অঙ্ক ও কম্পিউটার অ্যান্ড ইনফর্মেশন সায়েন্স বিভাগের সামনে কয়েকশ’ ছাত্রছাত্রী ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

শরীর ভালো যাবে না। সাংসারিক কলহবৃদ্ধি। প্রেমে সফলতা। শত্রুর সঙ্গে সন্তোষজনক সমঝোতা। সন্তানের সাফল্যে মানসিক ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

আন্তর্জাতিক শান্তি দিবস
১৮৬৬: ব্রিটিশ সাংবাদিক, ঐতিহাসিক ও লেখক এইচ জি ওয়েলসের জন্ম
১৯৩৪: জাপানের হনসুতে টাইফুনের তাণ্ডব, মৃত ৩ হাজার ৩৬ জন
১৯৪৭: মার্কিন লেখক স্টিফেন কিংয়ের জন্ম
১৯৭৯: ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিকেটার ক্রিস গেইলের জন্ম
১৯৮০: অভিনেত্রী করিনা কাপুর খানের জন্ম
১৯৮১: অভিনেত্রী রিমি সেনের জন্ম
১৯৯৩: সংবিধানকে অস্বীকার করে রাশিয়ায় সাংবিধানিক সংকট তৈরি করলেন তৎকালীন প্রেসিডেন্ট বরিস ইয়েলৎসিন
২০০৭: রিজওয়ানুর রহমানের মৃত্যু
২০১৩: কেনিয়ার রাজধানী নাইরোবিতে ওয়েস্ট গেট শপিং মলে জঙ্গি হামলা, নিহত কমপক্ষে ৬৭





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৯.১৯ টাকা ৭২.৭০ টাকা
পাউন্ড ৮৬.৪৪ টাকা ৯১.১২ টাকা
ইউরো ৭৬.২৬ টাকা ৮০.৩৮ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩৭,৯৯০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৬,০৪৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩৬,৫৮৫ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৫,৯০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৬,০০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৪ আশ্বিন ১৪২৬, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, শনিবার, সপ্তমী ৩৭/১২ রাত্রি ৮/২১। রোহিণী ১৪/৪৩ দিবা ১১/২২। সূ উ ৫/২৮/২৩, অ ৫/৩১/৪০, অমৃতযোগ দিবা ৬/১৬ মধ্যে পুনঃ ৭/৪ গতে ৯/২৯ মধ্যে পুনঃ ১১/৫৪ গতে ৩/৬ মধ্যে পুনঃ ৩/৫৫ গতে অস্তাবধি। রাত্রি ১২/৪১ গতে ২/১৭ মধ্যে, বারবেলা ৬/৫৯ মধ্যে পুনঃ ১/০ গতে ২/৩০ মধ্যে পুনঃ ৪/০ গতে অস্তাবধি, কালরাত্রি ৭/১ মধ্যে পুনঃ ৩/৫৯ গতে উদয়াবধি।
৩ আশ্বিন ১৪২৬, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, শনিবার, সপ্তমী ২৫/২২/২১ দিবা ৩/৩৭/৫। রোহিণী ৭/১/২৪ দিবা ৮/১৬/৪৩, সূ উ ৫/২৮/৯, অ ৫/৩৩/২৯, অমৃতযোগ দিবা ৬/২০ মধ্যে ও ৭/৭ গতে ৯/২৯ মধ্যে ও ১১/৪৮ গতে ২/৫৫ মধ্যে ও ৩/৪২ গতে ৫/৩৩ মধ্যে এবং রাত্রি ১২/৩৮ গতে ২/১৭ মধ্যে, বারবেলা ১/১/২৯ গতে ২/৩২/৯ মধ্যে, কালবেলা ৬/৫৮/৪৯ মধ্যে ও ৪/২/৪৯ গতে ৫/৩৩/২৯ মধ্যে, কালরাত্রি ৭/২/৪৯ মধ্যে ও ৩/৫৮/৪৯ গতে ৫/২৮/২৮ মধ্যে।
২১ মহরম

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
রাজীব কুমারের আগাম জামিনের আবেদন খারিজ
আজ রাজীব কুমারের আগাম জামিনের আবেদন খারিজ করে দিল আলিপুর ...বিশদ

08:21:33 PM

ফের সিএবি প্রেসিডেন্ট সৌরভ
আরও একবার সিএবি-র প্রেসিডেন্ট হলেন সৌরভ গঙ্গোপাধধ্যায়। আজ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ...বিশদ

07:39:27 PM

অস্কারে মনোনীত ছবি-গালি বয়

06:03:00 PM

ইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় যুবককে মারধর
স্কুলের ছাত্রীদের উত্ত্যক্ত করার প্রতিবাদ করায় এক যুবককে লাঠি-রড দিয়ে ...বিশদ

05:22:00 PM

মুর্শিদাবাদে আগ্নেয়াস্ত্র সহ গ্রেপ্তার ১ 
আজ সকালে মুর্শিদাবাদের পাহাড়ঘাটি মোড় থেকে আগ্নেয়াস্ত্র সহ সফিকুল ইসলাম ...বিশদ

05:13:00 PM

দীঘায় ডুবন্ত ব্যক্তিকে উদ্ধার করল নুলিয়া
 

দীঘার সমুদ্রে তলিয়ে যাওয়ার মুখে এক পর্যটককে উদ্ধার করল নুলিয়া। ...বিশদ

05:05:00 PM